Print Sermon

এই ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য হল ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপি এবং ধর্ম্মোপদেশের ভিডিওগুলি বিশ্বব্যাপী পালক ও মিশনারিদের বিনামূল্যে সরবরাহ করা, বিশেষ করে তৃতীয় বিশ্বে, যেখানে ধর্ম্মতত্ত্বমূলক সেমিনারী বা বাইবেল স্কুল থাকলেও খুব কম রয়েছে|

এই সমস্ত ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপি ও ভিডিওগুলি www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এখন প্রতি বছর 221টি দেশের প্রায় 1,500,000 কম্প্যুটারে যায়| আরও শত শত লোক ইউটিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান এবং আমাদের ওয়েবসাইটে চলে আসেন| ইউটিউব আমাদের ওয়েবসাইটে লোক এনে দেয়| ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 43টি ভাষায় প্রায় 120,000 কম্প্যুটারে প্রচারিত হয়| ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখনই আপনি ডঃ হেইমার্‌সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্‌সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |



প্রচারের আগে গাওয়া গান: “অ্যাম আই এ সোলজার অফ্‌ দ্য ক্রস?” (রচনা ডঃ আইজ্যাক ওয়াট্‌স, 1674-1748)|


খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত !

CRUCIFIED WITH CHRIST!
(Bengali)

লেখক: ডঃ আর. এল. হেইমার্‍স, জুনিয়র,
এমিরিটাস পালক
by Dr. R. L. Hymers, Jr.,
Pastor Emeritus

2020 সালের, 17ই মে, প্রভুর দিনের অপরাহ্নে লস্‍ এঞ্জেল্‌সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যা‌ক্‌ল মন্ডলীতে প্রচারিত একটি ধর্ম্মোপদেশ
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Afternoon, May 17, 2020

“খ্রীষ্টের সহিত আমি ক্রুশারোপিত হইয়াছি, আমি আর জীবিত নই, কিন্তু খ্রীষ্টই আমাতে জীবিত আছেন; আর এখন মাংসে থাকিতে আমার যে জীবন আছে, তাহা আমি বিশ্বাসে, ঈশ্বরের পুত্ত্রে বিশ্বাসেই, যাপন করিতেছি; তিনিই আমাকে প্রেম করিলেন, এবং আমার নিমিত্তে আপনাকে প্রদান করিলেন” (গালাতীয় 2:20)|


“খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হওয়ার অর্থ কি? আমি বিশ্বাস করি এর অর্থ হল যে আমাদের অবশ্যই আত্মার একটি অন্ধকার রাত্রির মধ্যে দিয়ে যেতে হবে| আমাদের অবশ্যই অনুভব করতে হবে আমাদের পাপ, অনুভব করতে হবে ব্যবস্থার কশাঘাত, পেরেক অনুভব করতে হবে, খ্রীষ্টের সাথে মৃত্যু বরণ করতে হবে – তাঁর মৃত্যুতে, আর সেইসঙ্গে তাঁর পুনরুত্থানে খ্রীষ্টের সাথে মিলিত হয়ে|

দুই বছরের জন্য নির্জন অবস্থাতে বন্দী হয়ে, কারাগৃহে থাকাকালীন পালক রিচার্ড উর্মব্রান্ড খ্রীষ্টের সাথে মৃত্যুর অভিজ্ঞতা অর্জন করেছিলেন| তাঁর লেখা, ইন গড্‌স আন্ডারগ্রাউন্ড, বইতে তিনি ব্যাখ্যা দিয়েছেন যে কিভাবে খ্রীষ্টের সাথে তিনি ক্রুশারোপিত হয়েছিলেন| উর্মব্রান্ড বলেছেন,

     আমাকে দুই বৎসরের জন্যে এই কক্ষে নির্জন কারাবাসে রাখা হইয়াছিল| আমার নিকটে পড়িবার মতন কিছুই ছিলনা এবং লিখিবার কোন উপকরনও ছিল না; আমার একমাত্র সঙ্গী ছিল আমার চিন্তাভাবনা, এবং আমি একজন ধ্যানশীল মানুষ ছিলাম না, কিন্তু আমার একটি আত্মা ছিল যাহা বিরলভাবে জ্ঞাত নিরীহ|
     আমি কি ঈশ্বরে বিশ্বাস করিয়াছিলাম? এক্ষনে পরীক্ষা উপস্থিত হইয়াছিল| আমি একাকী ছিলাম| উপার্জন করিবার জন্য কোন বেতন, স্বীকার করিবার মতন কোন সদ উপদেশ সেখানে ছিলনা| ঈশ্বর আমাকে কেবল যাতনা উৎসর্গ করিয়াছিলেন – আমি কি তাঁহাকে ক্রমাগত ভালবাসিতে থাকিব?
     ধীরে ধীরে আমি শিখিলাম যে নিস্তব্ধতার বৃক্ষে শান্তির ফল ঝোলানো রহিয়াছে…আমি লক্ষ্য করিয়াছিলাম যে এমনকী এইস্থানেও [এই নির্জন কারাবাসে] আমার চিন্তাভাবনা এবং আমার অনুভূতি সবই ঈশ্বরের অভিমুখে ধাবিত হইতেছে, এবং আমি প্রার্থনা, আধ্যাত্মিক অনুশীলন, এবং প্রশংসার মধ্য দিয়া রাত্রির পর রাত্রি অতিবাহিত করিতে পারিব| আমি এখন জানিয়াছি যে আমি কোন নাটকে অভিনয় করি নাই| আমি বিশ্বাস করিয়াছিলাম! (ইন গড্‌স আন্ডারগ্রাউন্ড, পৃষ্ঠা 120)|

+ + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + +

এখন আপনার সেল ফোনেই আমাদের ধর্ম্মোপদেশগুলি পাওয়া যাবে|
WWW.SERMONSFORTHEWORLD.COM ওয়েবসাইটে যান|
“অ্যাপ” লেখা সবুজ বোতামটি ক্লিক্‌ করুন|
যে নির্দেশগুলি আসবে সেগুলি অনুসরণ করুন|

+ + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + +

“খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হওয়ার অর্থ কি? এর অর্থ হল যে আপনাকে অবশ্যই আত্মার একটি অন্ধকার রাত্রির মধ্যে দিয়ে যেতে হবে| আপনাকে অবশ্যই অনুভব করতে হবে আপনার পাপ, অনুভব করতে হবে ব্যবস্থার কশাঘাত, অনুভব করতে হবে পেরেক, খ্রীষ্টের সাথে মৃত্যু বরণ করতে হবে – তাঁর মৃত্যুতে, আর সেইসঙ্গে তাঁর পুনরুত্থানে খ্রীষ্টের সাথে মিলিত হয়ে|

প্রায়ই আমার মতন জেদী মানুষকে অবশ্যই তার সমর্পনের আগে একাধিকবার এর মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে এবং সম্পূর্ণভাবে “খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হতে হয়েছে| আমি এখনও এই সত্য শিক্ষা করার প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছি, যদিও আমি এখন জীবনের আশিতম বছরে পৌঁছেছি|

আমি প্রথম এই সত্য শিক্ষা করা শুরু করেছিলাম একটি চীনা মন্ডলীতে থাকার দ্বারা, যেখানে আমি ছিলাম একজন “বহিরাগত” কয়েক দশকের জন্য| আমি ছেড়ে চলে যেতে চেয়েছিলাম, কিন্তু ঈশ্বর আমাকে ছাড়তে দেননি| ইব্রীয় 10:25 পদ এবং বাইবেলের আরও অন্যান্য জায়গায় তিনি সহজভাবে আমাকে বলেছিলেন ছেড়ে না যেতে| এতদানুসারে আমি “খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হতে আরম্ভ করেছিলাম|

আমি পরের বার ম্যারিন কাউন্টিতে সাউদার্ন ব্যাপটিষ্ট সেমিনারিতে আমি পরীক্ষিত হয়েছিলাম| আমি জায়গাটিকে ঘৃণা করতাম কারণ প্রায় সব অধ্যাপকগণই ছিলেন অপরিত্রাণপ্রাপ্ত উদারপন্থী যারা প্রায় প্রত্যেক শ্রেণীকক্ষে বাইবেল টুকরো টুকরো করে ছিঁড়ে ফেলতেন| আমি সেখানে থাকতে ঘৃণা করতাম, কিন্তু পুনরায়, ঈশ্বর আমায় থাকতে বলেছিলেন, আমি কেমন বোধ করছিলাম তাতে গুরুত্ব না দিয়ে| মধ্যরাত্রির পরে, সেমিনারিতে আমার ঘরে, ঈশ্বর আমাকে রাত্রির অন্ধকারে বাইরে বের হয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছিলেন| একটি “শান্ত, নম্র স্বরে” ঈশ্বর আমাকে বলেছিলেন, “এখন হইতে বহু বছর পর তুমি এই রাত্রির বিষয়ে চিন্তা করিবে এবং তুমি স্মরণ করিবে যে আমি তোমাকে বলিয়াছিলাম যখন তুমি বৃদ্ধ হইবে একমাত্র তখনই তোমার আসল কার্য্য শুরু হইবে… এখন তুমি শিখিবে ভীত না হইতে| আমি তোমার সহিত থাকিব… যদি তুমি ইহা না বল তো কেহ বলিবে না, এবং বেপরোয়াভাবে ইহা বলিবার প্রয়োজন – অন্যেরা ইহা বলিতে ভীত হইতেছে, কাজেই তুমি যদি ইহা না বল তো কেহ বলিবে না, অথবা অন্ততপক্ষে তাহারা ইহা খুব উত্তমভাবে বলিবে না|”

তখন সেখানে ছিলেন আমার ধর্ম্মপ্রচারবিদ্যার অধ্যাপক ডঃ গর্ডন গ্রীন, যিনি আমাকে বলেছিলেন, “হেইমার্‌স, তুমি খুব ভাল প্রচারক, সেরাদের মধ্যে একজন| কিন্তু… তুমি কখনই সাউদার্ন ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতে পালক হতে পারবে না যদি তুমি তাদের যন্ত্রণা দেওয়া বন্ধ না করো|” আমি তার চোখে চোখ রেখেছিলাম এবং বলেছিলাম, “এর মূল্য যদি সেটাই হয় তবে আমি তাদের একজন হতে চাই না|” আমার কাছে এখন হারানোর মত কিছুই ছিল না| (এগেনস্ট অল ফিয়ার্‌স, পৃষ্ঠা 86) |

এরপরে আমি লস এঞ্জেল্‌সে চলে আসি এবং এই মন্ডলী শুরু করি| পরবর্তীতে ক্রেইগটন এই মন্ডলীতে ভাঙ্গন ধরান কারণ তিনি আমার সাথে “সহমত” ছিলেন না| কোন বিষয়টিতে তিনি আমার সাথে সহমত ছিলেন না? বিভিন্ন সংস্কারে আমার দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণে তিনি রাজী ছিলেন না, সেটাই হলো কারণ যে তিনি সহমত হননি! তিনি হলেন ঠিক একটি “মূষিক সদৃশ” ক্ষুদ্র মানুষ, ঈশ্বরের সত্যের পক্ষে দাঁড়াতে ভীত! শুভ বিদায়, ক্ষুদ্র মূষিক!

এখন, আমার 80তম বছরে, আমি উপলব্ধি করছি যে শেষ-সময়ের ধর্ম্মভ্রষ্টতার দিনে তাঁর পক্ষে একটি ভবিষ্যদ্বাণীপূর্ণ কণ্ঠস্বর হওয়ার জন্যে ঈশ্বর আমাকে সর্বদা প্রস্তুত করেছেন (II থিষলনীকীয় 2:3)|

যেখানে অন্যেরা আপনাকে বলছেন মহাউল্লাস হবে, তখন আমি বলছি যে আপনাদের মহাতাড়নার অধিকাংশের মধ্যে দিয়ে যেতেই হবে, যেমন মারভিন জে. রোসেনথাল তার প্রি-রাথ রাপচার অফ্‌ দ্য চার্চ বইতে বলছেন| যেখানে, ক্রেইগটনের মতন, অন্যেরা আপনাকে নব্য-সুসমাচার সংক্রান্ত প্রচারের দিকে টানতে চাইছেন, আমি বলছি, “খ্রীষ্টের পক্ষে দৃঢ়ভাবে দাঁড়ান – কি ঘটছে সেটা কোন ব্যাপার না|”

আমি জন শ্যামূয়েলকে ঘৃণা করছি না| আমি শুধু উপলব্ধি করছি যে এই শেষের দিনগুলিতে ভবিষ্যদ্বাণীপূর্ণ কন্ঠস্বর হওয়ার পক্ষে তিনি যথেষ্ট শক্তিশালী নন| তিনি ভয় পেয়েছিলেন যে যদি তিনি আমার সাথে থাকেন তিনি হয়তো “চূর্ণ ও দগ্ধ” হবেন| এর কারণ জন শ্যামূয়েল এখনও “খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হননি| আমি এত বার “খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হয়েছি যে এটা আমাকে আর ভয় দেখায় না!

ডঃ কেগান আমাকে ক্রমাগত বলতেন যে শেষের এই সমস্ত দিনগুলিতে শক্তিশালী হওয়ার বিষয়ে আমি যা প্রচার করি তিনি তা পছন্দ করেন| আমার জন্যে সেটাই প্রয়োজনের তুলনায় যথেষ্ট বেশি উৎসাহ! যদি আপনি “খ্রীষ্টের সহিত ক্রুশারোপিত” হন আপনি এই সমস্ত ধর্ম্মভ্রষ্টতার দিনগুলিতে আমার এবং ডঃ কেগানের সাথে স্থির থাকতে সক্ষম হবেন (II থিষলনীকীয় 2:3), এবং আপনি হবেন একজম গৌরবান্বিত শহীদ– অথবা পালক উর্মব্রান্ডের মতন, অন্ততপক্ষে একজন গৌরবান্বিত ধর্ম্মপালনকারী হবেন!

“খ্রীষ্টের সহিত আমি ক্রুশারোপিত হইয়াছি, আমি আর জীবিত নই, কিন্তু খ্রীষ্টই আমাতে জীবিত আছেন; আর এখন মাংসে থাকিতে আমার যে জীবন আছে, তাহা আমি বিশ্বাসে, ঈশ্বরের পুত্ত্রে বিশ্বাসেই, যাপন করিতেছি; তিনিই আমাকে প্রেম করিলেন, এবং আমার নিমিত্তে আপনাকে প্রদান করিলেন” (গালাতীয় 2:20)|

ডঃ তিমথি লীন, তার দ্য কিংডম অফ্‌ গড, বইতে বলেছেন, “বর্তমানে অনেক মন্ডলীর সদস্যগণ ঈশ্বরের কন্ঠস্বর শুনিতে পারেন না কারণ তাহারা বাকি সবকিছুর উর্দ্ধে নিজেদেরকে প্রেম করেন… তাহাদের হৃদয় কঠিন হইয়া গিয়াছে, এবং সেইজন্যে তাহারা যত অধিক শিক্ষা করে তাহারা ততই কম শুনে| অনেকেই মনে করেন তাহারা সবকিছুই জানেন, যেখানে বাস্তবিক পক্ষে তাহারা বহু মৌলিক সত্যের বিষয়ে অজ্ঞ| তাহাদের অনেকেই এমনকী আপনাকে বলিতে পারেন না জীবনে তাহাদের উদ্দেশ্য কি!” ডঃ এ. ডব্লিউ. টোজার এই উদাহরণ দিয়েছিলেন|

     বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন যুবক ছাত্রকে জিজ্ঞাসা করুন, “বব, তুমি এখানে কেন?”
     “আমি বিয়ে করতে চাই; আমি টাকাপয়সা রোজগার করতে পছন্দ করি; এবং আমি ভ্রমণ করতে চাই|”
     “কিন্তু বব, এই গুলি সবই অদূরদর্শী বিষয়| তুমি সেইগুলি করবে আর তারপরে বুড়ো হবে এবং মারা যাবে| তোমার জীবনের বৃহৎ উদ্দেশ্য কি?”
     তখন বব হয়তো বলবে, “জীবনে আমার কোন উদ্দেশ্য আছে কি না আমি জানি না|”
     অধিকাংশ লোকই জানেন না জীবনে তাদের উদ্দেশ্য কি (“দ্য পারপাস অফ্‌ ম্যান,” পৃষ্ঠা 27)|

একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী বলতে পারেন যে জীবনে তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে স্বর্গে যাওয়া| কিন্তু ডঃ লীন বার বার বলেছেন যে সেখানে শাস্ত্রের একটিও পদ নেই যা বলছে যে স্বর্গে যাওয়াই হলো আপনার জীবনের উদ্দেশ্য!

জীবনে আপনার উদ্দেশ্য কি হ্ওয়া উচিৎ তা জানতে, II তীমথিয় 2:12 পদটি দেখুন| 12 নং পদের প্রথম অর্দ্ধাংশটি পড়ুন,

“যদি সহ্য করি, তাঁহার সহিত রাজত্ব করিব…”

“দুঃখভোগ” এর অর্থ “সহ্য করা|” প্রকাশিত বাক্য 20:6 বলছে, “তাহারা ঈশ্বরের ও খ্রীষ্টের যাজক হইবে, এবং সেই সহস্র বৎসর তাঁহার সঙ্গে রাজত্ব করিবে|” “দুঃখভোগ” শব্দটির অর্থ “সহ্য করা|” II তীমথিয় 2:12 পদের বিষয়বস্তু II তীমথিয় 2:1-11 পদগুলিতে দেওয়া হয়েছে| স্কোফিল্ড এর টীকা উপরের 1 নং পদে “ধর্ম্মভ্রষ্টতার সময়ে একজন ‘উত্তম সৈনিকের’ পথ সঠিকভাবে দেখিয়েছে| খ্রীষ্টের সাথে এই রাজত্ব খুব সহজভাবে দেখানো হয়েছে, লূক 19:11-27 পদের দশ মুদ্রার দৃষ্টান্তে| যারা খ্রীষ্টের সাথে রাজত্ব করতে প্রস্তুত তাদের “দশ নগরের উপরে কর্তৃত্ব” (পদ 17) অথবা “পাঁচ নগরের উপরে” (পদ 19) দেওয়া হবে| ডঃ লীন বলেছেন যে এটা আক্ষরিক অর্থেই হবে| যারা এই জীবনে সহ্য করবেন তারাই খ্রীষ্টের সাথে রাজত্ব করবেন তাঁর আগত রাজ্যে| “দুঃখভোগ” এর অর্থ “সহ্য করা|”

তাহলে আমাদের কি সহ্য করতে হবে? জগতকে প্রেম না করার দ্বারা আমরা সহ্য করি,

“তোমরা জগৎকে প্রেম করিও না, জগতীস্থ বিষয় সকলও প্রেম করিও না| কেহ যদি জগৎকে প্রেম করে, তবে পিতার প্রেম তাহার অন্তরে নাই| কেননা জগতে যে কিছু আছে, মাংসের অভিলাষ, চক্ষুর অভিলাষ, ও জীবিকার দর্প, এ সকল পিতা হইতে নয়, কিন্তু জগৎ হইতে হইয়াছে| আর জগৎ ও তাহার অভিলাষ বহিয়া যাইতেছে; কিন্তু যে ব্যক্তি ঈশ্বরের ইচ্ছা পালন করে, সে অনন্তকালস্থায়ী” (I যোহন 2:15-17)|

একটি ভগ্ন মন্ডলী ত্যাগ না করার দ্বারা আমরা সহ্য করি,

“তাহারা আমাদের হইতে বাহির হইয়াছে; কিন্তু আমাদের ছিল না; কেননা যদি আমাদের হইত, তবে আমাদের সঙ্গে থাকিত; কিন্তু তাহারা বাহির হইয়াছে, যেন প্রকাশ হইয়া পড়ে যে, সকলে আমাদের নয়” (I যোহন 2:19)|

ভ্রান্ত শিক্ষকদের অনুসরণ অস্বীকার করার দ্বারা আমরা সহ্য করি,

“প্রিয়তমেরা, তোমরা সকল আত্মাকে বিশ্বাস করিও না, বরং আত্মা সকলের পরীক্ষা করিয়া দেখ তাহারা ঈশ্বর হইতে কি না; কারণ অনেক ভাক্ত ভাববাদী জগতে বাহির হইয়াছে” (I যোহন 4:1)|

সেই সমস্ত জিনিস করার দ্বারা আমরা সহ্য করি যা ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করে,

“এবং যে কিছু যাচ্ঞা করি, তাহা তাঁহার নিকটে পাই; কেননা আমরা তাঁহার আজ্ঞা সকল পালন করি, এবং তাঁহার দৃষ্টিতে যাহা যাহা প্রীতিজনক, তাহা করি” (I যোহন 3:22)|

ঈশ্বরের আজ্ঞা পালনের দ্বারা আমরা সহ্য করি,

“এবং যে কিছু যাচ্ঞা করি, তাহা তাঁহার নিকটে পাই; কেননা আমরা তাঁহার আজ্ঞা সকল পালন করি, এবং তাঁহার দৃষ্টিতে যাহা যাহা প্রীতিজনক, তাহা করি| আর তাঁহার আজ্ঞা এই, যেন আমরা তাঁহার পুত্ত্র যীশু খ্রীষ্টের নামে বিশ্বাস করি, এবং পরস্পর প্রেম করি, যেমন তিনি আমাদিগকে আজ্ঞা দিয়াছেন” (I যোহন 3:22, 23)|

আমাদের শিক্ষকদের প্রতি সমর্পণের দ্বারা আমরা সহ্য করি,

“যাঁহারা তোমাদিগকে ঈশ্বরের বাক্য বলিয়া গিয়াছেন, তোমাদের সেই নেতাদিগকে স্মরণ কর, এবং তাঁহাদের আচরণের শেষগতি আলোচনা করিতে করিতে তাঁহাদের বিশ্বাসের অনুকারী হও… তোমরা (তোমাদের নেতাদিগের) আজ্ঞাগ্রাহী ও বশীভূত হও, কারণ নিকাশ দিতে হইবে বলিয়া তাহারা তোমাদের প্রাণের নিমিত্ত প্রহরিকার্য্য করিতেছেন, - যেন তাঁহারা আনন্দপূর্ব্বক সেই কার্য্য করেন, আর্ত্তস্বরপূর্ব্বক না করেন; কেননা ইহা তোমাদের পক্ষে মঙ্গলজনক নয়” (ইব্রীয় 13:7, 17)|

আমরা সহ্য করি “প্রভুর কার্য্যে সর্ব্বদা উপচিয়া” পড়িবার দ্বারা – অবিচলিতভাবে!

“অতএব, হে আমার প্রিয় ভ্রাতৃগণ, সুস্থির হও, নিশ্চল হও, প্রভুর কার্য্যে সর্ব্বদা উপচিয়া পড়, কেননা তোমরা জান যে, প্রভুতে তোমাদের পরিশ্রম নিষ্ফল নয়” (I করিন্থীয় 15:58)|

এই সমস্ত বিষয় সহ্য করার দ্বারা, ঈশ্বর আমাদের সেই শিষ্যে পরিণত হওয়ার প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন, যারা খ্রীষ্টের সাথে রাজত্ব করবেন তাঁর আগামী রাজত্বে|

“যে জয় করে, তাহাকে আমার সহিত আমার সিংহাসনে বসিতে দিব…যাহার কর্ণ আছে, সে শুনুক, আত্মা মন্ডলীগণকে কি কহিতেছেন” (প্রকাশিত বাক্য 3:21, 22)|

পালক ওয়াং মিং দাও (1900-1991) তার বিশ্বাসের জন্য কম্যুনিষ্ট চীনে 22 বছর কারাগারে অতিবাহিত করেছিলেন| তিনি বলেছিলেন,

“আমাকে কেহ একজন জিজ্ঞাসা করিয়াছিল বর্তমানে মন্ডলীর কোন পথ গ্রহণ করা উচিৎ| প্রশ্নাতীতভাবে আমি উত্তর করিয়াছিলাম, প্রেরিতদের পথ…মৃত্যু অবধি বিশ্বস্ত থাকিয়া|” তিনি ডঃ জন সাং এর শেষকৃত্য সেবায় প্রচার করেছিলেন| কারাগারে থাকাকালীন তিনি তার সব দাঁত, তার শ্রবণশক্তি এবং তার দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছিলেন| কারাগার হতে তার মুক্তি হওয়ার পরে, 1991 সালে তার মৃত্যু হওয়া পর্যন্ত তিনি এবং তার স্ত্রী তাদের ঘরে একদল খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের এনে তাদেরকে শিক্ষা দিতেন|

অনুগ্রহ করে উঠে দাঁড়ান এবং আমাদের গানটি করুন,

আমি কি ক্রুশের এক সৈনিক, মেষশাবকের এক অনুসরণকারী,
আমি তাঁর উদ্দেশ্য জানতে ভয় পাই, অথবা তাঁর নাম বলতে অপ্রতিভ হই?

আমি অবশ্যই পুষ্পময় শান্তি শয্যায় আকাশে পৌঁছাব,
যখন অন্যেরা পুরস্কারের জন্য যুদ্ধ করছিল, এবং রক্তাক্ত সাগরে পাল তুলেছিল?

সাক্ষাতের জন্য আমার কি কোন শত্রু নাই? আমি কি প্লাবনের মূল ধারায় বইব না?
তারা কি অনুগ্রহের প্রতি জঘণ্য জগতের বন্ধু, ঈশ্বরের প্রতি আমাকে সাহায্য করুন?

নিশ্চয় আমি যুদ্ধ করব, যদি আমি রাজত্ব করি; প্রভু, আমার সাহস বৃদ্ধি কর|
আমি কঠোর পরিশ্রম করব, যন্ত্রণা সহ্য করব, তোমার বাক্যের সহায়তায়|
   (“অ্যাম আই এ সোলজার অফ্‌ দ্য ক্রস?” রচনা ডঃ আইজ্যাক ওয়াট্‌স, 1674-1748)|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।