Print Sermon

এই ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য হল ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপি এবং ধর্ম্মোপদেশের ভিডিওগুলি বিশ্বব্যাপী পালক ও মিশনারিদের বিনামূল্যে সরবরাহ করা, বিশেষ করে তৃতীয় বিশ্বে, যেখানে ধর্ম্মতত্ত্বমূলক সেমিনারী বা বাইবেল স্কুল থাকলেও খুব কম রয়েছে|

এই সমস্ত ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপি ও ভিডিওগুলি www.sermonsfortheworld.comওয়েবসাইটের মাধ্যমে এখন প্রতি বছর 221টি দেশের প্রায় 1,500,000 কম্প্যুটারে যায়| আরও শত শত লোক ইউটিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান এবং আমাদের ওয়েবসাইটে চলে আসেন| ইউটিউব আমাদের ওয়েবসাইটে লোক এনে দেয়| ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 42টি ভাষায় প্রায় 120,000 কম্প্যুটারে প্রচারিত হয়| ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার প্রচারের এই মহান কাজে আমাদের সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখনই আপনি ডঃ হেইমার্‍সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্‌সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




ক্লেশে বর্তমান এবং ভবিষ্যতের জন্য উৎসাহদান ও সতর্কবার্তা

ENCOURAGEMENT AND WARNING IN TRIBULATION –
NOW AND IN THE FUTURE
(Bengali)

2019 সালের, 19শে মে, প্রভুর দিনের সন্ধ্যাবেলায় লস্‍ এঞ্জেল্‍সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্‍ল মন্ডলীতে ডঃ ক্রিস্টোফার এল. কেগান-এর প্রচারের বিষয়বস্তু সহ ডঃ আর. এল. হেইমারস্‌, জুনিয়র লিখিত একটি ধর্ম্মোপদেশ
A sermon written by Dr. R. L. Hymers, Jr.
with material by Dr. Christopher L. Cagan
preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord's Day Evening, May 19, 2019

‘‘এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও| জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ; কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি’’ (যোহন 16:33)|


যীশু বলেছিলেন, “জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ|” “ক্লেশ” শব্দটি অনূদিত হয়েছে thlipsis (থিলিপসিস) শব্দ থেকে| এটা “প্রবল চাপ” হিসাবে অনুবাদ করা যেতে পারতো| আমাদের প্রত্যেকের জীবনে প্রবল চাপ আছে| কিন্তু প্রবল চাপের মন্দতর সময় তা সত্ত্বেও আসবে| ধার্ম্মিকতায় জগৎকে শাসন করতে সিয়ন পর্ব্বতে খ্রীষ্টের অবতরণের ঠিক আগে সাত বছরের জন্য ক্লেশের যুগ হবে| ঐ ক্লেশের মন্দতর অংশ হলো সর্বশেষ সাড়ে-তিন বছর| খ্রীষ্টের পৃথিবীতে আগমনের ঠিক সাত বছর আগে, খ্রীষ্টারীগণ জগৎকে শাসন করবে| বাইবেল ইঙ্গিত করছে যে এই সাত বছরের যুগে যারা খ্রীষ্ট বিশ্বাসী তাদের প্রত্যেকে শহীদ হবেন|

প্রেরিত যোহন স্বর্গে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের আত্মার এই সমস্ত ক্লেশের দর্শন প্রত্যক্ষ করেছিলেন| তিনি বলেছিলেন,

‘‘আমি দেখিলাম বেদির নীচে সেই লোকদের প্রাণ আছে, যাঁহারা ঈশ্বরের বাক্য প্রযুক্ত, এবং তাঁহাদের কাছে যে সাক্ষ্য ছিল, তৎপ্রযুক্ত নিহত হইয়াছিলেন’’ (প্রকাশিত বাক্য 6:9)|

তারপরে তিনি লিখেছিলেন,

‘‘ইহারা সেই লোক, যাহারা সেই মহাক্লেশের মধ্য হইতে আসিয়াছে, এবং মেষশাবকের রক্ত আপন আপন বস্ত্র ধৌত করিয়াছে, ও শুক্লবর্ণ করিয়াছে’’ (প্রকাশিত বাক্য 7:14)|

ইতিহাসে অন্য যে কোন যুগের তুলনায় এই সাত বছর খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের জন্য আরও অনেক বেশি মন্দ হবে| যীশু বলেছিলেন,

‘‘কেননা তৎকালে এরূপ মহাক্লেশ উপস্থিত হইবে, যেরূপ জগতের আরম্ভ অবধি এ পর্য্যন্ত কখনও হয় নাই, কখনও হইবেও না’’ (মথি 24:21)|

হ্যাঁ, সেখানে এক পরমানন্দ উপস্থিত হবে| বাইবেল বলছে,

‘‘কারণ প্রভু স্বয়ং আনন্দধ্বনি সহ, প্রধান দূতের রব সহ, এবং ঈশ্বরের তূরীবাদ্য সহ স্বর্গ হইতে নামিয়া আসিবেন, আর যাহারা খ্রীষ্টে মরিয়াছে, তাহারা প্রথমে উঠিবে| পরে আমরা যাহারা জীবিত আছি, যাহারা অবশিষ্ট থাকিব, আমরা আকাশে প্রভুর সহিত সাক্ষাৎ করিবার নিমিত্ত একসঙ্গে তাহাদের সহিত মেঘযোগে নীত হইব; আর এইরূপে সতত প্রভুর সঙ্গে থাকিব’’ (I থিষলনীকীয় 4:16-17)|

তা সত্ত্বেও, আমরা যেন চিন্তা না করি যে এই প্রতিশ্রুতি বর্তমান বিচার থেকে, এমনকী মহা ক্লেশের আগেই আমাদের মুক্ত করবে| আমাদের পাঠ্যাংশে, যীশু বলেছেন যে এই যুগের সমস্ত সময়ে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের মহাক্লেশ হবে|

‘‘এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও| জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ; কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি’’ (যোহন 16:33)|

+ + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + +

এখন আপনার সেল ফোনেই আমাদের ধর্ম্মোপদেশগুলি পাওয়া যাবে|
WWW.SERMONSFORTHEWORLD.COM ওয়েবসাইটে যান|
“অ্যাপ” লেখা সবুজ বোতামটি ক্লিক্‌ করুন|
যে নির্দেশগুলি আসবে সেগুলি অনুসরণ করুন|

+ + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + + +

যীশু এখানে যা বলেছেন আসুন সেগুলি খুব যত্নসহকারে বিবেচনা করি| প্রথমে আমি পদটির দ্বিতীয় অংশের, তারপরে প্রথম অংশের, এবং তারপরে শেষ অংশের ওপরে মন্তব্য করব|

I. প্রথম, “জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ |”

যীশু এই কথা তাঁর শিষ্যদের বলেছিলেন, এবং এটা বর্তমান যুগের সব খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের জন্যেই প্রযোজ্য| খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের শারীরিক ক্লেশ হবে| প্রেরিত পৌল লিখেছিলেন,

‘‘আর ঐ প্রত্যাদেশের অতি মহত্ত্ব হেতু আমি যেন অতিমাত্র দর্প না করি, এই কারণে আমার মাংসে একটা কন্টক…’’ (II করিন্থীয় 12:7)|

এটা মনে হয় পৌল তার চোখে দেখা সমস্যাটির প্রতি ইঙ্গিত করছে| এটা হল একটা ইঙ্গিত যে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা শারীরিক অসুস্থতা, যাতনা, এবং শারীরিক মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে যাবেন| যখন আমরা খ্রীষ্ট বিশ্বাসীতে পরিণত হয়েছি আমরা শারীরিক অসুখ এবং যাতনা থেকে নিষ্কৃতি পাই না|

তাছাড়া আমাদের পতিত, পাপময় জগতে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা অন্যান্য পরীক্ষা এবং মহাক্লেশের মধ্যে দিয়েও যাবেন| সেই সব খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের সম্বন্ধে প্রেরিত পৌল বলেছেন যাদের অভিজ্ঞতা হচ্ছে

‘‘…কি ক্লেশ? কি সঙ্কট? কি তাড়না? কি দুর্ভিক্ষ? কি উলঙ্গতা? কি প্রাণ-সংশয়? কি খড়্গ? যেমন লেখা আছে, তোমার জন্য আমরা সমস্ত দিন নিহত হইতেছি; আমরা বধ্য মেষের ন্যায় গণিত হইলাম’’ (রোমীয় 8:35-36)|

কিন্তু তিনি নির্দেশ করেছিলেন যে এই সমস্ত মহাক্লেশের একটিও পারে না আমাদের “খ্রীষ্টের প্রেম হইতে পৃথক করিতে” (রোমীয় 8:35a)|

‘‘জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ’’ (যোহন 16:33)|

খ্রীষ্টে তাদের বিশ্বাস স্থাপনের জন্য প্রেরিতদের সকলকেই হত্যা করা হয়েছিল – কেবলমাত্র যোহন ছাড়া – যাকে ফুটন্ত তেলে ডোবান হয়েছিল, এবং তার বাকি জীবনের জন্য তাকে খুঁতবিশিষ্ট করে রাখা হয়েছিল| তাদের বিশ্বাসের জন্য খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা যুগ যুগ ধরে দুঃখভোগ করেছেন| ফক্সের লেখা শহীদের বই হচ্ছে একটি চিরায়ত সর্বশ্রেষ্ঠ বই যা যুগ যুগ ধরে খ্রীষ্ট বিশ্বাসী শহীদদের দুঃখভোগের ইতিহাস লিপিবদ্ধ করেছে| ডঃ পল মার্শাল বলেছিলেন,

মধ্য আমেরিকার জঙ্গলে…চীনা শ্রমিকদের শিবিরে, পাকিস্তানের কারাগারে, ভারতের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায়, এবং সুদানের গ্রামগুলিতে অসংখ্য বিশ্বাসীগণ ইতিমধ্যেই তাহাদের বিশ্বাসের জন্য চরম মূল্য দিয়াছে (আইবিড., পৃষ্ঠা 160)|

সুদানে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীগণকে ক্রীতদাস করিয়া রাখা হইয়াছিল| ইরানে তাহাদের গোপনে হত্যা করা হইয়াছে| কিউবাতে তাহাদের বন্দী করিয়া রাখা হইয়াছে| চীনদেশে তাহাদের মৃত্যু পর্য্যন্ত প্রহার করা হইতেছে| বিশ্বব্যাপী প্রায় 60টিরও বেশী দেশে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীগণকে তাহাদের বিশ্বাসের জন্য নিগ্রহ করা হইতেছে, তাহাদের অপব্যবহার হইতেছে, তাহাদের ওপরে অত্যাচার করা হইতেছে অথবা শাস্তি দেওয়া হইতেছে| 200,000,000 খ্রীষ্ট বিশ্বাসী, বিশ্বের চতুর্দিকে প্রত্যহ গোপন পুলিশ, ভিজিলান্স অথবা রাষ্ট্রীয় দমন ও বৈষম্যমূলক আচরণের ভয়ে ভীত হইয়া বসবাস করিতেছেন… লক্ষ লক্ষ খ্রীষ্ট বিশ্বাসী কষ্টভোগ করিতেছেন শুধুমাত্র তাহারা যাহা বিশ্বাস করিতেছেন উহার কারণে (Paul Marshall, Ph.D., Their Blood Cries Out, Word, 1997, back jacket)|

এমনকী এইখানে, এই পাশ্চাত্যেও প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা একটি ক্রমবর্দ্ধমানভাবে ধর্মনিরপেক্ষ সমাজের দ্বারা প্রায়শই একঘরে হয়ে পড়ছেন, এবং অপমানিত বা নিগৃহীত হচ্ছেন| কলেজের শ্রেণীকক্ষে খ্রীষ্টধর্ম এবং বাইবেল নিয়ে ঠাট্টা-তামাশা করা হচ্ছে| অগ্রগতির ক্ষেত্রে বহু খ্রীষ্ট বিশ্বাসীগণ উপেক্ষিত হচ্ছেন এবং প্রভুর দিনে মন্ডলীতে গিয়ে, তাদের নিজেদের ঈশ্বরের আরাধনা করার ইচ্ছা পোষণের কারণে অন্যদের তাদের চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হচ্ছে| এমনকী অ-খ্রীষ্টিয় পরিবারের সদস্যগণ এবং দুর্বল, কোমল নব্য-ইভাঞ্জেলিকালগণও নিবেদিত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের প্রতি অবজ্ঞা প্রদর্শন করছেন| যেমন যীশু বলেছেন,

‘‘জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ’’ (যোহন 16:33)|

II. দ্বিতীয়, “এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও |”

যারা “খ্রীষ্টে” আছেন এটা তাদের প্রতি দেওয়া একটি প্রতিশ্রুতি| “আমাতে|” তিনি হলেন আভ্যন্তরীন শান্তির উৎস| যীশু বলেছেন,

‘‘শান্তি আমি তোমাদের কাছে রাখিয়া যাইতেছি, আমারই শান্তি তোমাদিগকে দান করিতেছি; জগৎ যেরূপ দান করে, আমি সেরূপ দান করি না…’’ (যোহন 14:27)|

যখন একজন ব্যক্তি খ্রীষ্টকে জানেন, সেখানে একটি স্থায়ী আভ্যন্তরীন শান্তি সৃষ্টি হয়, যা পৃথিবীর অন্য কারও কাছে থাকে না|

সেই ব্যক্তি যিনি খ্রীষ্টের “মধ্যে” থাকেন, এবং যিনি প্রার্থনার মধ্যে দিয়ে তার সমস্যা ঈশ্বরের প্রতি সমর্পন করেন, তার কাছে এক অদ্ভূত ধরণের শান্তি থাকে, যাকে বাইবেল বলছে “সমস্ত চিন্তার অতীত, যে ঈশ্বরের শান্তি” (ফিলিপীয় 4:7)| জগত সাধারণভাবে বুঝতে পারে না যে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা কেন গ্রেপ্তার হওয়া, অত্যাচারিত হওয়া, কারাবন্দী হওয়া, এবং শাস্তি পাওয়ার মত ঘটনার মধ্যে দিয়ে যাবেন – যেমনটা নাকি আজ রাত্রেও বিশ্বের চতুর্দিকের বহু রাষ্ট্রেই হয়ে চলেছে|

এই শান্তির অর্থ এই নয় যে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের মধ্যে কোন আভ্যন্তরীন দ্বন্দ, ভাবাবেগগত কোন সমস্যা, বা শারীরিক কোন অসুস্থতা নেই| আমেরিকায় বহু সুসমাচার প্রচার সংক্রান্তেরা সাফল্য, উন্নতি, প্রশান্তি, সুখ, এবং স্ব-উন্নতি নিয়ে অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে আছেন| তার বিশ্বাসের জন্য মাথা নিচের দিকে করে ঝুলিয়ে দেওয়া একজন চীনা খ্রীষ্ট বিশ্বাসীর কাছে অথবা কিউবাতে বসবাসকারী একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসীর কাছে, যিনি পাঁচ বছরের জন্য একাকী কারাবন্দী ছিলেন, অথবা যীশুতে বিশ্বাস করার জন্য মৃত্যুর সম্মুখীন হওয়া ইরানের একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসীর কাছে এই বিষয়গুলি হাস্যকর বলে মনে হবে|

তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলির এই সমস্ত তাড়নাগ্রস্ত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীগণ যীশু কি বলতে চেয়েছিলেন সেটা বোঝার অনেক বেশী কাছে এসেছেন যখন যীশু বলেছিলেন, “এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও” (যোহন 16:33)| আমি মনে করি তারা বুঝে থাকবেন যে এই শান্তি একটি আভ্যন্তরীন শান্তভাবের সঙ্গে সংযুক্ত অবস্থার উল্লেখ করছে, যা এই জ্ঞানের ফলস্বরূপ প্রাপ্ত যে, তাদের পাপের ক্ষমা হয়েছে এবং ঈশ্বর তাদের সম্পর্কে যত্নশীল|

আমি II করিন্থীয় 11:24-28 পদগুলি পড়তে চলেছি| প্রেরিত পৌলের কি হয়েছিলো সেটা আমি যেমন আপনাদের বলছি আপনারা শুনতে থাকুন| তিনি বলেছিলেন,

‘‘যিহূদীদের হইতে পাঁচ বার উনচল্লিশ আঘাত প্রাপ্ত হইয়াছি| তিন বার বেত্রাঘাত, এক বার প্রস্তরাঘাত, তিন বার নৌকাভঙ্গ সহ্য করিয়াছি, অগাধ জলে এক দিবারাত্র যাপন করিয়াছি; যাত্রায় অনেক বার, নদীসঙ্কটে, দস্যুসঙ্কটে, স্বজাতি-ঘটিত সঙ্কটে, পরজাতি-ঘটিত সঙ্কটে, নগরসঙ্কটে, মরুসঙ্কটে, সমুদ্রসঙ্কটে, ভাক্ত ভ্রাতৃগণের মধ্যে ঘটিত সঙ্কটে, পরিশ্রমে ও আয়াসে, অনেক বার নিদ্রার অভাবে, ক্ষুধায় ও তৃষ্ণায়, অনেক বার অনাহারে, শীতে ও উলঙ্গতায়| আর সকল বিষয়ের কথা থাকুক, একটী বিষয় প্রতিদিন আমার উপরে চাপিয়া রহিয়াছে, -সমস্ত মন্ডলীর চিন্তা” (II করিন্থীয় 11:24-28)|

এই ধরণের পরিস্থিতিতে পৌল কিভাবে শান্তি পাওয়ার কথা বলতে পারতেন? তবুও তিনি তা করেছিলেন| ফিলিপীয় 4:6, 7 পদে পৌল এর উত্তর দিয়েছেন|

‘‘কোন বিষয়ে ভাবিত হইও না, কিন্তু সর্ব্ববিষয়ে প্রার্থনা ও বিনতি দ্বারা ধন্যবাদ সহকারে তোমাদের যাচ্ঞা সকল ঈশ্বরকে জ্ঞাত কর| তাহাতে সমস্ত চিন্তার অতীত যে ঈশ্বরের শান্তি, তাহা তোমাদের হৃদয় ও মন খ্রীষ্ট যীশুতে রক্ষা করিবে’’ (ফিলিপীয় 4:6-7)|

পৌল অনেক ক্লেশ ও কষ্টভোগের মধ্যে দিয়ে গেছিলেন, তা সত্ত্বেও তিনি এখানে “সমস্ত চিন্তার অতীত ঈশ্বরের শান্তি”র সম্বন্ধে বলেছেন|

III. তৃতীয়, “কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি |”

জীবনের পরীক্ষা এবং ক্লেশের মধ্যেও আপনি এটা করতে পারেন কি না তা দেখে আপনি হয়তো আশ্চর্য্য হতে পারেন| ধর্মনিরপেক্ষ কলেজের যুবকদের অবশ্যই ক্লাসের পর ক্লাস করে যেতে হয়, যেখানে বাইবেল এবং খ্রীষ্টধর্মকে নিন্দাজনকভাবে আক্রমণ করা হয়, মর্যাদাহানি করা এবং উপহাস করা হয়| “আমি কি এটা গঠন করতে এবং একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হতে পারি?”, কলেজ ছাত্ররা এরকম ভাবেন| “আমি কি বর্তমান যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে যেতে পারি? আমি কি এটা সহ্য করতে পারি যখন সব লোক আমার বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়ায়? যখন আমি ভীত তখন কি আমি কি এটা ধরে রাখতে পারি – এবং আমার যথেষ্ট বিশ্বাস নেই?”

বর্তমানে আন্তরিক খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা অন্ধবিশ্বাসী হিসাবে উপহাসিত হন| লোকেরা বলবেন যে আপনি যীশুর জন্য অতিরিক্ত কাজ করছেন| তারা আপনাকে এক ঘন্টার একটি সহজ ধর্মের প্রতি রবিবার সকালে আসতে বলবেন, অথবা আদৌ কোন মন্ডলীতে যেতে বলবেন না| তারা বলেন একমাত্র যদি আপনি খ্রীষ্টকে অনুসরণ করা বন্ধ করেন তবেই আপনি খুশী হবেন| “সেখানে ক্রুশ বহনের কোন প্রয়োজন নেই| দুঃখ বা যন্ত্রণা ভোগের কোন প্রয়োজন সেখানে নেই,” তারা এই কথাই বলেন| “এসব ভুলে যান| এসব একেবারে যেতে দিন এবং যেমন আমরা আছি সেইভাবেই থাকুন|” তারা আপনার উপরে চাপ সৃষ্টি করেন| যেমন যীশু বলেছিলেন, “জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ|”

কিন্তু খ্রীষ্ট বলছেন, “কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি|” যেমন আমি রোমীয় 8:35-39 পড়ছি আপনারা শুনুন|

‘‘খ্রীষ্টের প্রেম হইতে কে আমাদিগকে পৃথক করিবে? কি ক্লেশ? কি সঙ্কট? কি তাড়না? কি দুর্ভিক্ষ? কি উলঙ্গতা? কি প্রাণ-সংশয়? কি খড়্গ? যেমন লেখা আছে, তোমার জন্য আমরা সমস্ত দিন নিহত হইতেছি; আমরা বধ্য মেষের ন্যায় গণিত হইলাম| কিন্তু যিনি আমাদিগকে প্রেম করিয়াছেন, তাঁহারই দ্বারা আমরা এই সকল বিষয়ে বিজয়ী অপেক্ষাও অধিক বিজয়ী হই| কেননা আমি নিশ্চয় জানি, কি মৃত্যু, কি জীবন, কি দূতগণ, কি আধিপত্য সকল, কি উপস্থিত বিষয় সকল, কি পরাক্রম সকল, কি উর্দ্ধ স্থান, কি গভীর স্থান, কি অন্য কোন সৃষ্ট বস্তু, কিছুই আমাদের খ্রীষ্ট যীশুতে অবস্থিত ঈশ্বরের প্রেম হইতে আমাদিগকে পৃথক্‌ করিতে পারিবে না” (রোমীয় 8:35-39)|

যখন আপনি খ্রীষ্টের কাছে আসেন, তিনি সব দায়িত্ব নেন| তিনি আপনাকে ধরে রাখেন এবং আপনাকে যেতে দেবেন না| যখন আপনি খ্রীষ্টের কাছে এসেছেন, তখন আপনাকে তাঁকে ধরে রাখতে হয় না| তিনিই আপনাকে ধরে রাখেন! আপনার মন পরিবর্তনের মুহূর্ত থেকে, অনন্তকালের জন্য আপনি খ্রীষ্টে নিরাপদ| সঠিক ঘটনাটি হলো যে তৃতীয় বিশ্বের 200 মিলিয়ন লোক তাদের খ্রীষ্টিয় বিশ্বাসের জন্য কষ্টভোগ করতে ইচ্ছুক থাকার সেই সত্য ঘটনাটি প্রমাণ করছে যে খ্রীষ্ট তাঁর অনুসরণকারীদের ধরে রাখেন, এবং স্বর্গের আশা ছাড়া তাদের বিনষ্ট হতে দেন না| খ্রীষ্টের কাছে আসুন, তিনি সমস্ত উদ্ধার করেন, এবং সমস্ত সংরক্ষণ করেন! ধর্ম্মোপদেশ প্রচারের আগে যেমন নগান্‌ন গেয়েছেন,

সেই আত্মা যাহা যীশুর উপরে শান্তির জন্য ঝুঁকিয়া আছে,
   আমি যাইব না, আমি তাঁহার শত্রু হইতে পলাইয়া যাইব না;
ঐ আত্মা, যদিও নরক কম্পিত করিবার প্রচেষ্টা করিবে না,
   আমি কখনও না, কখনও না, কখনও ভুলিব না|
(“How Firm a Foundation,” ‘K’ in Rippon’s ‘Selection of Hymns,’ 1787) |

এই ধর্ম্মোপদেশের শিরোনাম হল “ক্লেশে বর্তমান এবং ভবিষ্যতের জন্য উৎসাহদান ও সতর্কবার্তা|” আমি আপনাদের আজ রাত্রে উৎসাহ দিয়েছি| কিন্তু আমাকে অবশ্যই এর সঙ্গে একটি সতর্কতামূলক বাক্যও আপনাকে বলতে হবে| বর্তমানে আমরা যেসব সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি সেগুলি অন্যান্য স্থানের লোকদের দুঃখভোগের তুলনায় অতি সামান্য| এই তৃতীয় বিশ্বে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের প্রহার করা হচ্ছে, কারাগারে বন্দী করা হচ্ছে, খ্রীষ্টে বিশ্বাস করার জন্য তারা অত্যাচারিত হচ্ছেন এবং তাদের হত্যা করা হচ্ছে| সেখানে তাদের জীবন যেরকম তার তুলনায় এখানে আমেরিকায় আমাদের জীবন হলো অবকাশ যাপনের মতন| ভবিষ্যতের বছরগুলিতে এখানেও খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হওয়া আরও অনেক কষ্টদায়ক হতে পারে| চাপ আরও মন্দ হবে| একজন আন্তরিক খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হওয়ার জন্য আপনি আপনার চাকরি, আপনার বাড়ি, এবং আপনার অর্থ হারাতে পারেন| ঠিক এই মুহূর্তে অন্যান্য দেশে এমনটাই ঘটছে| আপনার বন্ধু ও আত্মীয়েরা আপনার বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াতে পারেন| ক্লেশের বিষয়ে বলতে গিয়ে, যীশু বলেছেন, “তখন ভ্রাতা ভ্রাতাকে ও পিতা সন্তানকে মৃত্যুতে সমর্পণ করিবে; এবং সন্তানেরা আপন আপন মাতাপিতার বিপক্ষে উঠিয়া তাহাদিগকে বধ করাইবে| আর আমার নাম প্রযুক্ত তোমরা সকলের ঘৃণিত হইবে; কিন্তু যে কেহ শেষ পর্যন্ত স্থির থাকিবে, সেই পরিত্রাণ পাইবে” (মার্ক 13:12, 13)| এটা অন্য দেশগুলিতে ঠিক এই মুহূর্তে ঘটছে| এমনকী সেই সাত বছরের আগেই যদি লোকে আপনাকে প্রত্যাখ্যান করেন তাতে বিস্মিত হবেন না|

ভাববাদি যিরমিয় বলেছিলেন, “তুমি যদি পদাতিকদের সহিত দৌড়িয়া গিয়া থাক, আর তাহারা তোমাকে ক্লান্ত করিয়া থাকে, তবে অশ্বগণের সহিত কি প্রকারে পারিয়া উঠিবে? আর যদ্যপি শান্তির দেশে নির্ভয়ে থাক, তথাপি যর্দ্দনের শোভাস্থানে কি করিবে?” (যিরমিয় 12:5)| হ্যাঁ, আপনি বর্তমানে কিছু ক্লেশের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন| কিন্তু যদি আপনি আজকের এই অল্প চাপের মোকাবিলা করতে না পারেন, তাহলে যখন এটা আরও মন্দ হবে তখন আপনি কি করবেন? আজকের অবকাশের দিনে যদি আপনি খ্রীষ্টিয় জীবন যাপন না করতে পারেন, তবে যখন ঝড়ঝাপটা আসবে তখন আপনি কি করবেন? এখনই একজন দৃঢ় খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হওয়ার পরামর্শ আমি আপনাদের দিচ্ছি| যদি আপনি এখন সেটা করেন তবে পরে আপনি একজন শক্তিশালী খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হবেন| একজন নতুন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হিসাবে আমি ঐ বিষয়ে ভেবেছিলাম যখন আমি পালক রিচার্ড উর্মব্রান্ডের লেখা, টর্চার্‌ড ফর খ্রাইস্ট নামের বইটি পড়েছিলাম| এটা শুধুমাত্র পড়ার জন্য একটি বই ছিল না| এটা আমার জীবন পরিবর্তন করেছিল| একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হওয়া সবসময়ে অবকাশ যাপন নয়| এটা বেশ কঠিন হতে পারে| এটা বেশ কঠিন হয়| হ্যাঁ, “সাহস কর” (যোহন 16:33)| কিন্তু এছাড়াও মূল্য গণনা করুন (দেখুন লূক 14:28)| সর্বসাকুল্যে এটা মূল্যবান হবে, কেননা আপনি চিরকালের জন্য খ্রীষ্টের সঙ্গে জীবন যাপন করবেন|

আর এখন আমি অবশ্যই যারা দিশাহারা তাদের উদ্দেশ্যে বলব যারা আজ রাত্রে এখানে আছেন| যীশু আপনাকে প্রেম করেন| আপনার পাপের দেনা শোধ করতে তিনি ক্রুশের উপরে মৃত্যুবরণ করেছেন| আপনার পাপ ধুয়ে দূরে সরিয়ে দিতে তিনি তাঁর রক্ত ঝরিয়েছেন| আপনাকে জীবন দান করতে তিনি সমাধিস্থান থেকে পুনরুত্থিত হয়েছেন| যদি আপনি তাঁকে বিশ্বাস করেন, আপনি অনন্তকালের জন্য উদ্ধার পাবেন| কিন্তু যীশুকে বিশ্বাস করা শুধুমাত্র কয়েকটি শব্দ নয়| যীশুতে বিশ্বাসের মানে হচ্ছে যীশুকে বিশ্বাস করা| হ্যাঁ, সেখানে কঠিন সময় আসবে| হ্যাঁ, আপনি হয়তো কষ্টভোগ করবেন| কিন্তু সর্বসাকুল্যে এটা মূল্যবান হবে| আপনি যীশুকে জানবেন| যদি আপনি তাঁকে বিশ্বাস করেন তাহলে আপনি অনন্তকালের জন্য খ্রীষ্টের সঙ্গে থাকবেন| যীশুকে বিশ্বাসের বিষয়ে যদি আপনি আমার সঙ্গে কথা বলতে চান, অনুগ্রহ করে আসুন এবং প্রথম দুটি সারিতে বসুন| আমেন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

ধর্ম্মোপদেশের আগে একক সংগীত গেয়েছেন মিঃ জ্যাক নগান্‌ন:
“How Firm a Foundation” (‘K’ in Rippon’s ‘Selection of Hymns,’ 1787)|


খসড়া চিত্র

ক্লেশে বর্তমান এবং ভবিষ্যতের জন্য উৎসাহদান ও সতর্কবার্তা

ENCOURAGEMENT AND WARNING IN TRIBULATION –
NOW AND IN THE FUTURE

ডঃ ক্রিস্টোফার এল. কেগান-এর বিষয়বস্তু সহ
ডঃ আর. এল. হেইমারস্‌, জুনিয়র লিখিত একটি ধর্ম্মোপদেশ

‘‘এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও| জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ; কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি’’ (যোহন 16:33)|

(প্রকাশিত বাক্য 6:9; 7:14; মথি 24:21; I থিষলনিকীয় 4:16-17)

I.   প্রথম, “জগতে তোমরা ক্লেশ পাইতেছ,” II করিন্থীয় 12:7; রোমীয় 8:35-36 |

II.  দ্বিতীয়, “এই সমস্ত তোমাদিগকে বলিলাম, যেন তোমরা আমাতে শান্তিপ্রাপ্ত হও,”
যোহন 14:27; II করিন্থীয় 11:24-28; ফিলিপীয় 4:6-7 |

III. তৃতীয়, “কিন্তু সাহস কর, আমিই জগৎকে জয় করিয়াছি,”
রোমীয় 8:35-39; মার্ক 13:12, 13; যিরমিয় 12:5; লূক 14:28 |