Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




পাপের ক্ষেত্র থেকে তাদের ভিতরে আনুন !

BRING THEM IN FROM THE FIELDS OF SIN!
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2016 সালের, 7ই আগষ্ট, প্রভুর দিনের
সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি
প্রচারিত হয়েছিল
A sermon given to the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Evening, August 7, 2016

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|


বেশ কয়েক বছর ধরে আমি জানতাম না যে কিভাবে আত্মা জয় করতে হয়| আমি জানতাম না কিভাবে হারানো লোকদের উদ্ধার করতে হয় এবং তাদের মন্ডলীর ভিতরে নিয়ে আসতে হয়| আমি প্রায় সমস্ত রকমের সম্ভাব্য পদ্ধতিতে সেই চেষ্টা করেছিলাম| আমি প্রচার পুস্তিকা বিতরণ করার চেষ্টা চালিয়েছিলাম| কিন্তু পুস্তক বিতরণ হারানো লোকদের মন্ডলীর ভিতরে আনতে পারেন| আমি রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে প্রচার করার চেষ্টা চালিয়েছিলাম| কিন্তু তাতে হারানো লোকদের মন্ডলীর ভিতরে আনা যায়নি| আমি রাস্তায় বা লোকদের বাড়ির সদর দরজার সামনে দাঁড়িয়ে সাক্ষ্য পেশ করার চেষ্টা করেছি| কিন্তু তাতে কোন কাজ হয়নি| তারা পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য একটা প্রার্থনা করত এইমাত্র| কিন্তু তারা মন্ডলীতে আসত না| তাদের প্রার্থনা শেষ হওয়ার পরে আমি তাদের ‘‘অন্বেষণ’’ করার চেষ্টা করেছি| কিন্তু ‘‘অন্বেষণের’’ কাজ তাদের কোনভাবেই মন্ডলীর ভিতরে আনেনি| আমার নিজেকে খুব হতাশ এবং পরাজিত বলে মনে হত|

তবুও আমি হাল ছেড়ে দিতে চাইনি| আমি জানতাম যে সেখানে নিশ্চয়ই হারানো লোকদের মন পরিবর্তন করানোর এবং তাদের মন্ডলীর মধ্যে নিয়ে আসার জন্য কিছু রাস্তা আছে| পাঠ্যাংশ পড়ার সময়ে আমি সেটা পেলাম| আমি এটা এর আগেও পড়েছি, কিন্তু হঠাৎ করে মনে হয়েছিল যেন এটা আমার প্রতি কথা বলা শুরু করেছে| সেই মুহূর্তে আমাদের সুসমাচার প্রচার প্রণালীর জন্ম হল| আত্মা জয় করার জন্য যীশুর বাক্যই আমাদের পথপ্রদর্শকে পরিণত হল|

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

লোকদের কাছে যাওয়া এবং তাদের দিয়ে ‘‘পাপীর প্রার্থনা’’ করানো - এবং তারপরে তাদের মন্ডলীতে নিয়ে আসার চেষ্টা করার পরিবর্তে, আমরা নতুন কিছু একটা করেছিলাম| তাদের উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করার আগে আমরা তাদের মন্ডলীর ভিতরে নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করেছিলাম| এবং তাতে কাজ হয়েছিল! যীশু আমাদের যা বলেছিলেন এখন আমরা সেটাই করে চলেছি| আমার সুসমাচার প্রচারের সামনা সামনি হওয়ার আগেই আমরা ‘‘তাদেরকে ভিতরে আনতে’’ বাধ্য করছি|

অনেক লোক মন্ডলীতে আসেন না| কিন্তু কেউ কেউ আসেন| এবং তাদের মধ্যে কেউ কেউ আমাকে প্রচার করতে শুনেছেন এবং উদ্ধারপ্রাপ্ত হয়েছেন| কিন্তু তারা ছিলেন সেই সমস্ত লোক যারা মন্ডলীর ভিতরে আসতে বাধ্য হয়েছিলেন, এবং এখানে বন্ধুত্ব পাতিয়েছিলেন| সুসমাচার প্রচারের সামনা সামনি হওয়ার আগে ইতিমধ্যেই তারা নিয়মিত মন্ডলী অংশগ্রহণকারী হয়েছেন|

আমি আগেই বলেছি, আমরা যাদের আমন্ত্রণ জানাই সেই লোকদের প্রত্যেকে মন্ডলীতে আসেন না| যীশুর দৃষ্টান্ত আমাদের বলছে যে বেশীর ভাগ লোক আসবে না| 18 তম পদটি বলছে, ‘‘তাহারা সকলে একমত হইয়া অজুহাত দিতে শুরু করিল’’ না আসার জন্য| বেশীর ভাগ লোক আদৌ আসবে না| আমরা তাদের আমাদের মন্ডলীতে আসতে ‘‘বাধ্য’’ করব, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তাদের মধ্যে খুব অল্প কয়েকজনই আসবে| আমরা তাদের বলেছিলাম ‘‘ভিতরে আসতে|’’ ভিতরে কোথায় আসতে বলেছি? অবশ্যই, মন্ডলীর ভিতরে! দৃষ্টান্ত অনুসারে এছাড়া আর কোন ‘‘ভিতরে আসবে’’ তারা? কিন্তু প্রকৃতপক্ষে খুব অল্প সংখ্যক লোক মন্ডলীতে আসেন| তারা শক্তিশালী সুসমাচার প্রচার শুনতেন| প্রকৃতপক্ষে তারা আমাদের সঙ্গে "একটি মহাভোজ" খেতেন - যেমন 16 নং পদে বলা হয়েছে| তারা আমাদের সঙ্গে একটি আহারের আনন্দ উপভোগ করতেন - যার পরেই হত আমাদের সদস্যদের মধ্যে কোন একজনের জন্য অনুষ্ঠিত ছোট্ট একটা জন্মদিনের পার্টি| সেই পার্টিতে তারা আমাদের সঙ্গে একটা সুন্দর সময় কাটাতেন! তারপরে আমরা তাকে আবার পরের রবিবারের আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাতাম|

যারা আসতেন তাদের অনেকেই আর পরে ফিরে আসতেন না| কিন্তু কেউ কেউ আবার আসতেন| আর তারপরে আমরা তাদের প্রতি সুসমাচার প্রচার করতাম, বারে বারে, আমাদের প্রত্যেকটি সেবাকাজে| কিছুদিন পর থেকে তারা সুসমাচার বুঝতে শুরু করতেন| আরও বেশ কিছু সময় পার করে কেউ কেউ পাপের অনুতাপের অধীনে আসতেন, এবং কেউ কেউ যীশুতে বিশ্বাস স্থাপন করতেন এবং পরিত্রাণ পেতেন| আপনাদের মধ্যে কতজন আজকের এই সন্ধ্যায় আমাদের মন্ডলীতে এইভাবে এসেছেন? এমনকী আপনারা যদি এখনও মন পরিবর্তন না করে থাকেন, আপনাদের মধ্যে কতজন আমাদের মন্ডলীতে এইভাবে এসেছিলেন? অনুগ্রহ করে উঠে দাঁড়ান| (তারা উঠে দাঁড়ালেন|) আপনারা দেখুন? বেশীর ভাগ লোকই এইভাবে আমাদের মন্ডলীতে এসেছিলেন! আপনারা আমাদের মন্ডলীতে এসেছেন তার কারণ আমরা খ্রীষ্টকে মেনে চলেছি| তিনি বলেছিলেন,

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

‘‘তাহাদের ভিতরে আন’’ - আমার সঙ্গে এই সমবেত সঙ্গীতটি করুন!

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|
      (“Bring Them In,” Alexcenah Thomas, 19th century) |

যেহেতু আমরা সুসমাচার প্রচারের জন্য খ্রীষ্টের পদ্ধতি অনুসরণ করেছি, আমরা ধীরে ধীরে অন্যান্য বিষয় শিখেছি| কাকে আমরা নিয়ে আসব সেই বিষয়ে আমরা বাছাই করতে শিখেছি| প্রথমে আমরা প্রত্যেককে নিয়ে এসেছিলাম| কিন্তু আমাদের মন্ডলী শহরের মধ্যখানে অবস্থিত| লস্‌ এঞ্জেল্‌সের ডাউনটাউনের ঠিক মধ্যিখানে আমরা রয়েছি| এখানে প্রচুর সংখ্যায় এমন লোকজন আছেন যাদের মধ্যে খুব ভাল সম্ভাবনা নেই| কেউ কেউ মাদকাসক্ত| আমরা তাদের খুব বেশী সাহায্য করতে পারি না| কেউ কেউ খুব বৃদ্ধ হয়েছেন এবং তাদের রাস্তা ঠিক করে নিয়েছেন| আমরা তাদেরও খুব বেশী সাহায্য করতে পারি না| যীশুর সময়ে তিনি তাদের বলেছিলেন ‘‘নুলা, খঞ্জ ও অন্ধদের’’ এখানে নিয়ে আসো (v. 21)| কিন্তু যীশুর সময়কার সেই সমস্ত লোকেরা বর্তমান লোকেদের তুলনায় অনেক বেশী সভ্য এবং আন্তরিক ছিলেন| আপনি সেই ধরনের লোকদের এখানে মন্ডলীর ভিতরে আনতে পারেন এবং তারা পাগলামী করবে না| কিন্তু মন্ডলীর ভিতরে নিয়ে আনার পক্ষে বর্তমানে অনেক লোকই অতি বর্বর এবং শাসনাতীত| সেইজন্যে যীশু স্বয়ং বলেছিলেন বাছাই করতে| যীশু তাঁর শিষ্যদের বলেছিলেন,

‘‘তোমরা পরজাতিগণের পথে যাইও না, এবং শমরীয়দের কোন নগরে প্রবেশ করিও না: বরং ইস্রায়েল-কুলের হারান মেষগণের কাছে যাও’’ (মথি 10:5, 6)|

পরে, তিনি তাদের এমনকী আরও বেশী করে বাছাই করতে বলেছিলেন| যীশু তাদের বলেছিলেন যে কিছু বিশেষ লোকদের প্রতি, আর এমনকী সমগ্র শহরের প্রতি সুসমাচার প্রচারের প্রয়োজন নাই| তিনি বলেছিলেন,

‘‘আর যে কেহ তোমাদিগকে গ্রহণ না করে, এবং তোমাদের কথা না শুনে, সেই গৃহ কিম্বা নগর হইতে বাহির হইবার সময়ে আপন আপন পায়ের ধূলা ঝাড়িয়া ফেলিও| আমি তোমাদিগকে সত্য কহিতেছি, বিচার-দিনে সেই নগরের দশা অপেক্ষা বরং সদোম ও ঘমোরা দেশের দশা সহনীয় হইবে’’ (মথি 10:14, 15)|

খ্রীষ্ট বাছাই করতেন এবং সেইজন্যে আমাদেরকেও অবশ্যই বাছাই করতে হয়| কেউ একজন বলেছিলেন, ‘‘আপনি যদি সকলকেই জয় করতে চেষ্টা করেন তাহলে কাউকেই আপনি জয় করতে পারবেন না|’’ আমরা দেখেছি যে আমাদের পদ্ধতিতে সুসমাচার প্রচারের জন্য প্রায় 16 থেকে 24 বছরের কলেজ পড়ুয়ার যুবকরা হলেন আমাদের পক্ষে বেশী সম্ভাবনাপূর্ণ| আমাদের বেশীর ভাগ মন্ডলী এই বয়সের ছেলেমেয়েদের নিয়ে গঠিত| আমরা এও দেখেছি যে চীনা যুবক-যুবতী যারা কলেজের পড়ুয়া তাদের অন্যদের তুলনায় সহজে জয় করা যায়| তবুও আমরা খুব কম হলেও অন্যদেরও পেয়ে থাকি| আমাদের মন্ডলীতে প্রায় 20টিরও বেশী জাতিগত দল আছে| কিন্তু আমাদের মন্ডলীর একতা এই সত্যের মধ্যে নিহিত যে তারা সকলেই হলেন (অথবা ছিলেন) কলেজের ছাত্র| তারা শুধুমাত্র যে কোন কলেজের ছাত্র নয়| বরং তারা হলেন খোলামনের যুবক যারা জোরালো মাদকদ্রব্য গ্রহণ করেন না| এরাই সেই দল গঠন করেছেন যাকে আমরা বলি ‘‘অভীষ্ট দল|’’ এদের উপরেই দৃষ্টি রেখে আমরা আমাদের সুসমাচার প্রচার চালাই| গত কয়েক বছরে আমরা এই যুবকদের প্রায় 50 জনকে আমরা আমাদের মন্ডলীতে যুক্ত করেছি|

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

সেই সমবেত সঙ্গীতটি আবার করুন!

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

আমি শুনতে পচ্ছি যে সুসমাচার প্রচারকেরা বলছেন যে আজকের দিনে লোকদের জয় করা খুব শক্ত| তারা বলছেন যে প্রত্যেক বছর এটা আরও কঠিনতর হয়ে যাচ্ছে| তারা বলছেন যে আমরা শেষের দিনগুলির মধ্যে বসবাস করছি| এই জগত থেকে আত্মা জয়ের কাজকে সেটা আরও বেশী করে শক্ত করাচ্ছে| অন্যেরা আমাদের বলছেন যে কলেজ ক্যাম্পাসে অথবা শপিং মলে তাদের সঙ্গে আলাপ হচ্ছে এইরকম কোন অপরিচিত লোককে নিজের ফোন নম্বর দিতে কেউ রাজি হন না| কিন্তু তাদের তত্ত্ব সত্যের উপরে ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত নয়| যেমন আমরা করেছি সেরকমভাবে তারা এটা পরীক্ষা করে দেখেনি| আমরা জানি, অভিজ্ঞতার দ্বারা, যে প্রকৃতপক্ষে কলেজ ক্যাম্পাসের মধ্যে অনেক যুবকই তাদের প্রথম নাম এবং সেল ফোন নম্বর একজন বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যক্তিকে দিয়ে থাকেন| তারা প্রতি সপ্তাহেই এটা করে| আমি মনে করি না যে কুড়ি বছর আগে তারা এরকম করত, এবং সেই জায়গা থেকেই প্রচারকেরা এই ধারনা করেছিলেন যে এটা কাজ করে না| তারা অনুভব করছেন না যে আমরা চ্যাট লাইন এবং ফেসবুক এবং বাকি সমস্ত কিছু নিয়ে গঠিত একটি নুতন যুগে প্রবেশ করেছি| যারা আজ ‘‘আগামী স্বর্ণযুগ’’এ বাস করছেন সেই যুবকেরা প্রকৃতপক্ষে একজন অপরিচিতকে নিজেদের ফোন নম্বর দেন যারা বন্ধুতুল্য হন| প্রতি সপ্তাহে আমাদের মন্ডলীর মাধ্যমে তাদের মধ্যেকার শতাধিক লোক এইরকম করেন| কিন্তু আপনাকে কলেজ পড়ুয়া যুবকদের প্রতি নজর দিতে হবে, কারণ বয়স্ক লোকেরা তাদের নম্বর দেবেন না| প্রচারকরা মনে করেন যে কোন কিছুতেই কিছু হবে না, আর প্রত্যেক সুসমাচার সংক্রান্ত পদ্ধতি খুবই কঠিন| কিন্তু তারা ভুল করেন| যীশু বলেছেন,

‘‘চক্ষু তুলিয়া ক্ষেত্রের প্রতি দৃষ্টিপাত কর, শষ্য এখনই কাটিবার মত শ্বেতবর্ণ হইয়াছে’’ (যোহন 4:35)|

সমস্ত কলেজ, এবং মল, এবং রাস্তাঘাট যুবকদের দ্বারা পরিপূর্ণ রয়েছে| কিন্তু আমাদের তাদের পিছনে পিছনে যেতে হবে| প্রবল আগ্রহ এবং দৃঢ়তা নিয়ে আমাদের তাদের পিছনে যেতে হবে| এই শহর তাদের দ্বারা পূর্ণ রয়েছে| ফসল সংগ্রহ হল সর্বদাই মহৎ কাজ| প্রত্যেক সেমিস্টারে কলেজে যেহেতু নূতন ছাত্ররা আসছেন সেহেতু এর পরিমান সর্বদা বৃদ্ধি পাচ্ছে| যীশু বলেছিলেন,

‘‘শষ্য প্রচুর বটে, কিন্তু কার্য্যকারী লোক অল্প; অতএব শষ্যক্ষেত্রের স্বামীর নিকটে প্র্রার্থনা কর, যেন তিনি নিজ শষ্যক্ষেত্রে কার্য্যকারী লোক পাঠাইয়া দেন’’ (মথি 9:37, 38)|

এই গানটি আবার করুন!

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

এটা খুব সহজ একটা কাজ নয়| আমি খুব আঘাত পেয়েছিলাম যখন আমি জেনেছিলাম যে আমাদের এইরকম লোক আছেন যারা সুসমাচার প্রচারের কাজে যাচ্ছেন এবং খুব অল্প কয়েকটি নাম এবং ফোন নম্বর নিয়ে আসছেন| কেউ কেউ আছেন যারা সুসমাচারের পরে কোন নাম বা ফোন নম্বর কিছুই নিয়ে আসেন না| গত রাত্রে এই ঘটনা আমাকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছিল| সত্যিটা হল এই যে শষ্যক্ষেত্রগুলি যুবকদের দ্বারা পরিপূর্ণ হয়ে আছে| যীশু বলেছিলেন যে আমাদের উচিৎ ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করা যেন তিনি ‘‘নিজ শষ্যক্ষেত্রে কার্য্যকারী লোক পাঠাইয়া দেন|’’ আপনাদের মধ্যে কেউ কেউ সুসমাচার প্রচারের কাজে বাইরে যাচ্ছেন, কিন্তু আপনারা অনেক নাম নিয়ে ফিরছেন না| আপনি অনেকগুলি নাম আনছেন না কারণ নাম পাওয়ার জন্য আপনি উপযুক্ত ‘‘শ্রম’’ করছেন না| সেখানে শত শত হারানো যুবক রয়েছেন| কিন্তু আপনি তাদের নাম আনার জন্য যথেষ্ট ‘‘শ্রম’’ দিচ্ছেন না! অনুবাদিত সেই শব্দ ‘‘শ্রমিক’’ এর অনুবাদ ‘‘কার্য্যকারী’’ করা যেতে পারত|

যখন আপনি সুসমাচার প্রচারের জন্য যান তখন আপনাকে এর প্রতি কাজ করতে হবে! আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে অথবা আপনি নামগুলি পাবেন না| অনেক নাম এবং ফোন নম্বর আনতে হলে আত্মা জয়ের প্রতি আপনাকে আরও কঠোর পরিশ্রম করতে হবে| আমি প্রার্থনা করছি পরের সপ্তাহটিতে আপনি এই কাজ করবেন! অলস হবেন না! বিক্ষিপ্ত চিত্ত হয়ে পড়বেন না! শুধুমাত্র মাঝে দাঁড়িয়ে থাকবেন না এবং সময় কাটানোর অপেক্ষা করবেন না! তাদের নামগুলি পাওয়ার জন্য আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে!

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

এই গানটি করুন!

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

গত রবিবার সকালে নোহ সাং একটি মহান ধর্ম্মোপদেশ প্রচার করেছিলেন| এটা তার মাত্র দ্বিতীয় ধর্ম্মোপদেশ| কিন্তু এটা খুব শক্তিশালী ছিল! নোহ সাং বলেছিলেন,

আজকের দিনে সর্ববৃহৎ যে সমস্যার সন্মুখীন যুবকেরা হইতেছেন তাহা হইল একাকীত্ব| আমি জানি উহা সত্য! আপনি জনতার ভীড়ের মধ্যে থাকিতে পারেন| কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আপনি সেই লোকদের প্রকৃতপক্ষে চিনেন না| আপনি একটি প্রাক্-বিবাহ সাক্ষাৎকারে যাইতে পারেন, কিন্তু আপনি জানেন যে ইহা দীর্ঘদিন স্থায়ী হইবে না| আপনি প্রেমে পড়িতে পারেন| কিন্তু শীঘ্রই উহা সমাপ্ত হইয়া যায়| আপনি একটি মলের মধ্য দিয়া হাঁটিতে পারেন, কিন্তু আপনাকে কেহই চিনিতেছে না অথবা আপনার বিষয়ে যত্নবান হইতেছে না| আপনি ফেসবুকে বিচরন করিতে পারেন, অথবা চ্যাট লাইনে থাকিতে পারেন - কিন্তু আপনি জানেন যে যাহাদের সহিত আপনি যোগাযোগ করিতেছেন তাহারা কেহই আপনার বিষয়ে গ্রাহ্য করে না| তাহারা কেবলমাত্র আপনার সাইবারবন্ধু - প্রকৃত বন্ধু নহে| ইহার উত্তরটি কি? ইহার উত্তর যথার্থই এই "নূতন" ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্লে! (Noah Song, “God Hates Loneliness!”) |

হ্যা, নোহ ঠিক বলেছেন! শিশুরা বর্তমানে একাকী| শুধুমাত্র তাদের কেউ কেউ নয়| তাদের সকলেই একাকীত্ব অনুভব করছে| তাদের কাছে সরাসরি চলে যান| স্মিত হাসুন এবং তাদেরকে ‘‘হ্যাল্লো’’ বলুন| ভয় পাবেন না! জন কেগান আমাকে বলেছিলেন, ‘‘আমাদের মন্ডলীর পার্টিতে তাদের নিমন্ত্রণ করে আমরা তাদের উপকার করছি|’’ তিনি সঠিক বলেছেন! আমরা তাদের একটা বড় উপকার করছি কারণ তাদের যা প্রয়োজন আমরা তাদের সেটাই প্রদান করছি| তাদের একাকীত্বের প্রতিকার করতে তাদের কি প্রয়োজন হয়| উত্তমতর জীবন পেতে হলে তাদের কী প্রয়োজন হয়| যীশু খ্রীষ্টের মাধ্যমে ঈশ্বরের সান্নিধ্যে শান্তি পেতে হলে তাদের কী প্রয়োজন! আপনি কোন সেলসম্যানের মত করে তাদের সঙ্গে কথা বলছেন না, এক সেলসম্যানের মত যিনি তাদের কাছ থেকে কিছু পাওয়ার চেষ্টা করছেন! না! না! আপনি মোটেও একজন সেলসম্যান নন! আপনি সেখানে সুসমাচার প্রচারের জন্য গিয়েছেন, তাদের কাছ থেকে কোন কিছু নেওয়ার জন্য নয়! তাদের প্রতারণা করার জন্য নয়! তাদের প্রয়োজন নেই এমন কোন জিনিষ তাদের কাছে বিক্রি করার জন্য নয়! আপনি সেখানে আছেন তাদের কিছু দেওয়ার জন্য! তাদের নিদারুনভাবে প্রয়োজন এমন কোন জিনিষ তাদের দেওয়ার জন্য! আপনি সেখানে আছেন আমাদের মন্ডলীর পার্টিতে তাদের নিয়ে আসার জন্য| আপনি সেখানে আছেন ভাল বন্ধু পাওয়ার প্রতি তাদের নিয়ে আসার জন্য| আপনি সেখানে গেছেন তাদের বাড়ি থেকে এই মন্ডলীতে নিয়ে আসার জন্য যাতে করে তারা যীশু খ্রীষ্টের সম্বন্ধে শুনতে পারে - এবং বিনামূল্যে পরিত্রাণ ও তাঁর অনন্তকালীন ভালবাসার উপহার গ্রহণ করতে পারে!

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

এই গানটি করুন!

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

যখন আপনি সুসমাচার প্রচারে যান, তখন ভীত হবেন না! আমরা যা প্রদান করি সেটা তাদের প্রয়োজন| তাদের এটা নিদারুনভাবে প্রয়োজন! আপনি তাদের একটা উপকার করছেন| তাদের সাহায্য করার জন্য আপনি সেখানে আছেন| তাদের যা প্রয়োজন সেটা তাদের দেওয়ার জন্য| তাদের নামগুলি পাওয়ার জন্য যাতে আমরা তাদের ভিতরে আনতে পারি| সুতরাং আমরা তাদের ভালবাসা এবং বন্ধুত্ব প্রদান করতে পারি যেগুলি তারা কখনও পায়নি - ঈশ্বরের ভালবাসা, পিতা এবং পুত্র এবং পবিত্র আত্মার সেই আশ্চর্য্য প্রেম - ‘‘নূতন’’ ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্লের সেই বন্ধুত্ব, উষ্ণ আবেগ, সহভাগিতা এবং আনন্দ!

সংগ্রহের জন্য শষ্যক্ষেত্রগুলি হয়ে আছে শ্বেতবর্ণ! এবার পরের সপ্তাহে যান এবং সুসমাচারের ব্যক্তিগত প্রচারের দ্বারা অনেক নাম এবং ফোন নম্বর নিয়ে আসুন! বুধবার রাত্রে সুসমাচার প্রচারে আমাদের সঙ্গে চলুন! বৃহস্পতিবারের রাত্রে আমাদের সঙ্গে সুসমাচার প্রচারে চলুন! শনিবারের রাত্রে আবার যান! হ্যাঁ - আর রবিবারের বিকালে আবার যান! শুধু একটা বা দুটো নয়, দুহাত ভর্তি করে নাম নিয়ে আসুন| দুহাত ভর্তি করে নাম নিয়ে আসুন! আপনি এটা করতে পারেন! ভীত হবেন না| সেই যুবকদের যা নিদারুনভাবে প্রয়োজন আপনার কাছে তা আছে! যান এবং এটা করুন! যান এবং এটা করুন! যান এবং এটা করুন!

‘‘বাহির হইয়া রাজপথে রাজপথে ও বেড়ায় বেড়ায় যাও, এবং আসিবার জন্য লোকদিগকে পীড়াপীড়ি কর, যেন আমার গৃহ পরিপূর্ণ হয়’’ (লূক 14:23)|

অনুগ্রহ করে উঠে দাঁড়ান এবং 8 নং গানটি করুন| এটা হল ‘‘তাহাদের ভিতরে আন|’’ গানটি করুন, এটা হল আপনার গানের পাতার 8 নং গান| গানটি করুন, এবং তারপরে পরবর্তী সমস্ত সপ্তাহ ধরে এটা করুন!

শুন! আমি শুনি ইহা মেষপালকের রব,
   অন্ধকারাচ্ছন্ন প্রান্তর ও বিষন্নতার মধ্যে,
বিপথগামী মেষকে আহ্বান করিতেছেন
   মেষপালকের খোঁয়ার হইতে বহুদূরে|
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

দয়ালু মেষপালকের ন্যায় কে যাইবে এবং সাহায্য করিবে,
   একদা পথভ্রষ্টকে খুঁজিতে তাঁহাকে সাহায্য করিতে?
একদা হারানোকে কে খোঁয়ারে আনিবে,
   শীতলতা হইতে কোথায় তাহাদের আশ্রয় হইবে?
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

প্রান্তরের বাহিরে তাহাদের ক্রন্দন শুনি,
   পর্ব্বতের বাহিরে হিংস্র ও উচ্চ;
শুন! ইনি প্রভু তোমাদের বলিতেছেন,
   "যাও দেখ কোথায় আমার মেষ|"
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|
(“Bring Them In,” Alexcenah Thomas, 19th century) |

এই ধর্ম্মোপদেশ কি আপনাকে আরও বেশী করে নাম আনতে অনুপ্রাণিত করছে? আপনি কি আজ রাত্রে এর প্রয়োজন দেখতে পাচ্ছেন? আপনি কি বলবেন, ‘‘হ্যাঁ, ডঃ হেইমার্স, পরের সপ্তাহে, আমি অনেক বেশী কাজ করব|’’ যদি সেটাই আপনার ইচ্ছা হয়, তাহলে নিজের আসন ত্যাগ করুন এবং এখানে সকলের সামনে আসুন| সোজা মঞ্চের উপরে উঠে আসুন, সেইসঙ্গে নীচেও থাকুন! আপনাদের আসার সময়ে এমি ‘‘তাহাদের ভিতরে আন’’ গানের সুরটি বাজাবেন| (তারা আসলেন)|

জন শ্যামূয়েল কেগান, অনুগ্রহ করে প্রার্থনা করুন ঈশ্বর যেন পরের সপ্তাহে তাদের প্রত্যেককে আরও বেশী সংখ্যক নাম নিয়ে আনতে সাহায্য করেন| (জন কেগান প্রার্থনা করলেন)| এবার নোহ সাং প্রার্থনা করুন| (তিনি প্রার্থনা করলেন)| যখন এমি কোরাসের সুরটি বাজাচ্ছেন, তখন নিজের আসনে ফিরে যেতে যেতে গানটি করুন|

তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   পাপের ক্ষেত্র হইতে তাহাদের ভিতরে আন;
তাহাদের ভিতরে আন, তাহাদের ভিতরে আন,
   একদা বিপথগামীকে যীশুর প্রতি আন|

আপনারা বসতে পারেন| যীশু খ্রীষ্টের প্রধান কাজ ছিল হারানো আত্মাদের পরিত্রাণ করা| যীশু বলেছিলেন যে তিনি এসেছিলেন ‘‘যাহা হারাইয়া গিয়াছিল তাহার অন্বেষণ ও পরিত্রাণ করিতে’’ (লূক 19:10)|

যদি আপনি এখনও পরিত্রাণ না পেয়ে থাকেন, আমি এখানে রয়েছি আপনাকে বলার জন্য যে যীশু আপনাকে রক্ষা করতে পারেন| আপনার জীবনের সমস্ত পাপ থেকে ফিরে আসুন এবং যীশু খ্রীষ্টের ‘‘সন্মুখাসন্মুখী’’ চলে আসুন - যেমন নোহ সাং করেছিলেন| যীশু ক্রুশের উপরে দুঃখভোগ ও মৃত্যুবরণ করেছিলেন| আপনার পাপের দেনা শোধ করার জন্য, আপনার পরিবর্তে তিনি মৃত্যুবরণ করেছিলেন| আপনাকে সমস্ত পাপ থেকে শুচি করার জন্য তিনি সেই ক্রুশের উপরে তাঁর রক্ত ঝরিয়েছিলেন| আপনি যদি যীশুকে বিশ্বাস করতে চান, অনুগ্রহ করে আজ রাত্রে ডঃ কেগানের সঙ্গে দেখা করুন, অথবা তার বাড়িতে অবস্থিত দপ্তরে ফোন করুন, এবং ডঃ কেগানের সঙ্গে একটি সাক্ষাৎকারের ব্যবস্থা করুন, যাতে পরিত্রাত হওয়ার বিষয়ে তিনি আপনাকে পরামর্শ দিতে পারেন| ঈশ্বর আপনাদের সকলকে আশীর্ব্বাদ করুন! আমেন|


যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হেইমার্সকে একটি ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সর্বদা সেটা লিখবেন| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হেইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হেইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015. আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ আবেল প্রুধোম্মে: লূক 14:16-23 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“Bring Them In” (Alexcenah Thomas, 19th century) |