Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




গর্ভপাত ও খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমন !

ABORTION AND THE SECOND COMING OF CHRIST!
(Bengali)

লেখক : ডঃ সি. এল. কেগান
by Dr. C. L. Cagan

২০১৬ সালের, ১৭ই জানুয়ারি, প্রভুর দিনের সকালবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Morning, January 17, 2016

‘‘আমার পিতার বাটীতে অনেক বাসস্থান আছে: যদি না থাকিত, তোমাদিগকে বলিতাম| কেননা আমি তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করিতে যাইতেছি| আর আমি যখন যাই ও তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করি, তখন পুনর্ব্বার আসিব, এবং আমার নিকটে তোমাদিগকে লইয়া যাইব; যেন আমি যেখানে থাকি, তোমরাও সেখানে থাক’’ (যোহন 14:2-3)|


চীন, আফ্রিকা, এবং তৃতীয় বিশ্বের অন্যান্য স্থানে, লক্ষাধিক লোক খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করে| স্বর্গ থেকে উদ্দীপনা ঢেলে দেওয়া হচ্ছে| কিন্তু আমেরিকা এবং পাশ্চাত্য দেশগুলিতে, মন্ডলীগুলি শীতল এবং সেখানে কোন উদ্দীপনা নাই|

ইউরোপ এবং আমেরিকাতে আমরা ঈশ্বরের দিক থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছি| 1973 সালে ইউনাইটেড স্টেটসের সুপ্রীম কোর্ট চাহিদা অনুসারে গর্ভপাতকে আইনসম্মত বলে ঘোষণা করেছে| গত তেতাল্লিশ বছর ধরে আমরা লক্ষ লক্ষ শিশুকে হত্যা করার অনুমোদন দিয়ে আসছি আমাদের হাত একবারের জন্য তুলে সেটা বন্ধ করার কোন চেষ্টা ছাড়াই| আটান্ন লক্ষ আমেরিকান শিশুকে তাদের মায়ের গর্ভেই গর্ভপাত করানোর দ্বারা হত্যা করা হয়েছে| আমাদের দেশ হিটলারের হত্যার চাইতে নয়্গুণেরও বেশি মানুষ হত্যা করেছে| এই জাতি ঈশ্বরের বিচারের অধীনে অবস্থান করছে| এমনকি সেই সমস্ত তথাকথিত রক্ষণশীলেরাও গর্ভপাতের বিরুদ্ধে কোন অবস্থান গ্রহণ করবে না| রিপাবলিকান কংগেস একটি বাজেটের অনুমোদন দিয়েছে যা আপনার প্রদত্ত করের টাকার একটা বড় অংশ পরিকল্পিত পিতৃত্বের প্রতি খরচ করতে দেয়, যারা শিশুদের দেহাংশ পরীক্ষামূলক কাজের জন্য ব্যবহার করে| ধিক্ রিপাবলিকানদের! ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানাই যে ফ্রাঙ্কলিন গ্রাহাম রিপাবলিকান পার্টি ছেড়ে চলে গেছেন! ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে তিনি বলেছিলেন, ‘‘আমেরিকার পক্ষে ভাল হয় তেমন কিছু করার জন্য রিপাবলিকান পার্টি, ডেমোক্র্যাটিক পার্টি, অথবা [সেই] চা পার্টির উপরে আমার কোন ভরসা নাই’’ (http://www.foxnews.com/politics/2015/12/22/ evangelist-franklin-graham-slams-quits-gop.html?intcmp=hppop)| এবং আমাকে স্পষ্ট করে বলতে দিন যে ডেমোক্র্যাটিক দল এমনকি রিপাবলিকান দলের চাইতেও খারাপ| সেখানে রিপাবলিকান দল, ডেমোক্র্যাটিক দল, অথবা যে কোন ধরনের রাজনীতির উপরে কোন ভরসা নেই| খ্রীষ্টেই একমাত্র প্রকৃত আশা আছে! খ্রীষ্ট বলেছিলেন, ‘‘আমি পুনর্ব্বার আসিব|’’ এবং আমাদের চারিদিকে তাঁর আগমনের অনেক চিহ্ন রয়েছে|

আমি দৃঢ়নিশ্চিত যে যেসব পাপ আমরা আমাদের মন্ডলীতে এবং জাতির মধ্যে ঘটতে দেখছি সেগুলি হচ্ছে একটা চিহ্ন যে খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমন আসন্ন| কিন্তু এছাড়া সেখানে আরও একটি চিহ্ন আছে| যিহুদী লোকেরা নিজেদের দেশে ফিরে আসছেন| ঈশ্বর যিহুদী লোকদের বলেছিলেন ‘‘দেশসমূহ হইতে তোমাদিগকে সংগ্রহ করিব, ও তোমাদেরই দেশে তোমাদিগকে উপস্থিত করিব’’ (যিহিষ্কেল 36:24)| ঈশ্বর তাদের বলেছিলেন, ‘‘আমি...তোমাদিগকে ইস্রায়েল দেশে লইয়া যাইব’’ (যিহিষ্কেল 37:12)| সেই ভাববাণী পূর্ণ হতে শুরু করেছিল 1948 সাল থেকে যখন ইস্রায়েল দেশের প্রতিষ্ঠা হয়েছিল| যেহেতু ইস্রায়েল তাদের দেশে ফিরে আসছিল - আমরা জানি যে শেষ আসন্ন! আমরা আমাদের সারা জীবন ধরে এটা দেখছি| আমরা এখন জগতের শেষভাগে এবং খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমনের সময়ে বসবাস করছি|

আজকে আমি আরও বিশদভাবে খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমনের বিষয়টির প্রতি নজর দিতে চাই| বাইবেল বলছে যে তাঁর আগমন দুইটি ভাগে হবে| প্রথম, তিনি আকাশে আসবেন| পরে তিনি পৃথিবীতে আসবেন|

১| প্রথমত, যখন খ্রীষ্ট আকাশে আসেন তখন কি ঘটবে |

খ্রীষ্ট আকাশে আসবেন এবং খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের তাঁর সঙ্গে করে স্বর্গ পর্যন্ত নিয়ে যাবেন| বাইবেল বলছে,

‘‘কারণ প্রভু স্বয়ং আনন্দধ্বনি সহ, প্রধান দূতের রব সহ এবং ঈশ্বরের তূরীবাদ্য সহ, স্বর্গ হইতে নামিয়া আসিবেন: আর যাহারা খ্রীষ্টে মরিয়াছেন তাহারা প্রথমে উঠিবেন: পরে আমরা যাহারা জীবিত আছি যাহারা অবশিষ্ট থাকিব আমরা আকাশে প্রভুর সহিত সাক্ষাৎ করিবার নিমিত্ত, একসঙ্গে তাহাদের সহিত মেঘযোগে নীত হইব: আর এইরূপে সতত প্রভুর সঙ্গে থাকিব’’ (১ম থিষলনীকীয় 4:16-17)|

একে বলা হয় ‘‘উঠিয়া যাওয়া|’’ ইংরাজিতে এই ‘‘রাপচার’’ শব্দটি এসেছে একটি ল্যাটিন শব্দ থেকে যার অর্থ হল ‘‘বলপূর্বক লইয়া যাওয়া’’ অথবা ‘‘তাড়াতাড়ি তুলিয়া লওয়া|’’ বাইবেল বলছে ‘‘যাহারা খ্রীষ্টে মরিয়াছে তাহারা প্রথমে উঠিবে,’’ মৃত্যু থেকে পুনরুত্থিত হয়েছেন এবং খ্রীষ্টের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য উঠেছেন| এরপরে সেই সব খ্রীষ্ট বিশ্বাসী যারা পৃথিবীতে বেঁচে আছেন তারা ‘‘আকাশে প্রভুর সহিত সাক্ষাৎ করিবার নিমিত্ত, একসঙ্গে তাহাদের সহিত মেঘযোগে নীত হইবেন|’’ সমস্ত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা অক্ষয় পুনরুত্থিত দেহ ধারণ করবেন| বাইবেল বলছে,

‘‘আমরা সকলে নিদ্রাগত হইব না, কিন্তু সকলে রূপান্তরীকৃত হইব, এক মুহূর্তের মধ্যে, চক্ষুর পলকে, শেষ তূরীধ্বনিতে হইব: কেননা তূরী বাজিবে, তাহাতে মৃতেরা অক্ষয় হইয়া উত্থাপিত হইবে, এবং আমরা রূপান্তরীকৃত হইব’’ (১ম করিন্থীয় 15:51-52)|

‘‘এক মুহূর্তের মধ্যে, চক্ষুর পলকে’’ বিশ্বাসীরা দেহ ধারণ করবেন যা কখনও মৃত হবে না| আমরা আকাশে প্রভু যীশুর সঙ্গে মিলিত হব এবং তাঁর সঙ্গে স্বর্গে উঠে যাব|

এই ঘটনা কখন ঘটবে? সেই দিনটি কবে তা কেউ জানে না, কেননা খ্রীষ্ট বলেছিলেন, ‘‘সেই দিনের ও সেই দন্ডের তত্ত্ব কেহই জানে না’’ (মথি 24:36)| যে কেউ যিনি খ্রীষ্টের পুনরাগমনের একটি তারিখ বলে দেন তিনি হলেন একজন ভন্ড ভাববাদী! কিন্তু আমরা একটা সাধারন সময় কালের কথা জানতে পারি| চিহ্নের পর চিহ্ন পরিপূর্ণ হচ্ছে, সেটা দেখে আমরা জানছি যে আমরা শেষের দিনে বসবাস করছি|

আমেরিকানদের মধ্যে অনেকেই এই ধারণা পোষন করেন যে তারা তাদের অর্থ এবং আমোদপ্রমোদ এবং তিনদিনের সপ্তাহ-অন্তের সাহায্যে তাদের জীবন উপভোগ করবে - এবং আদৌ কোন ক্লেশ ভোগ ব্যতীত একদিন কোন সমুদ্রতীর থেকে বা কোন পর্বতের উপর থেকে তাদের উঠিয়ে নেওয়া হবে| উত্তর কোরিয়ার খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের কাছে এই ধরনের কথা খুবই বিস্ময়কর শোনায়, যেখানে যীশুকে বিশ্বাস করার জন্য তারা কারাদন্ড ভোগ করেন, অনাহারে থাকেন এবং মৃত্যুবরণ করেন| এই ধারণা ইরান এবং ইরাক এবং সিরিয়ার খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের হতভম্ব করে দেয়, যেখানে যদি তারা ঈশ্বরের পুত্রের উপরে বিশ্বাস স্থাপন করেন তাহলে মুসলমানেরা তাদের মুন্ডচ্ছেদ করে দেয়| সেখানে কেন খ্রীষ্টের আকাশে আগমনের আগে আমেরিকাতে দারিদ্র, তাড়না এবং মৃত্যু আসতে পারে না তার কোন কারণ নেই| অজাত শিশুদের হত্যা করে এমন একটি দেশের উপরে ঈশ্বরের বিচার যদি না নেমে আসে, তাহলে আমি খুব বিস্মিত হব|

আর আপনাদের মধ্যে অনেককেই পিছনে ফেলে দেওয়া হবে| খ্রীষ্ট দশ কুমারীর একটি গল্প বলেছিলেন| ‘‘কুমারী’’রা জাগতিকভাবে অবিশ্বাসী ছিলেন না, কিন্তু ধার্মিক লোক ছিলেন| তাদের মধ্যের পাঁচজনকে রক্ষা করা হয়েছিল, কিন্তু বাকি পাঁচজন হারিয়ে গিয়েছিলেন| তারপরে বর, যিনি হলেন খ্রীষ্ট, এসেছিলেন| ‘‘যাহারা প্রস্তুত ছিল তাহারা তাঁহার সহিত বিবাহবাটীতে প্রবেশ করিল: আর দ্বার রুদ্ধ হইল’’ (মথি 25:10)| সেই পাঁচজন যারা রক্ষা পেয়েছিলেন তারা খ্রীষ্টের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন| অন্য পাঁচজনকে পিছনে ছেড়ে যাওয়া হয়েছিল| ‘‘দ্বার রুদ্ধ হইল|’’ তারা কেঁদে উঠে বলেছিল, ‘‘প্রভু, প্রভু, আমাদিগকে দ্বার খুলিয়া দিউন’’ (মথি 25:11)| কিন্ত প্রভু উত্তর দিয়েছিলেন, ‘‘আমি তোমাদিগকে চিনি না’’ (মথি 25:12)|

খ্রীষ্ট আপনাকে চেনেন না কেন? কারণ আপনি তাঁকে চিনতে অস্বীকার করেছিলেন! আপনি তাঁকে বিশ্বাস করেননি! খ্রীষ্টের রক্তের দ্বারা আপনার পাপ ধৌত করা হয়নি| ক্রুশের উপরে তাঁর মৃত্যুবরণের দ্বারা আপনার পাপের দেনা শোধ করা হয়নি| তাঁর পুনরুত্থান থেকে আপনি জীবন লাভ করেননি| মিঃ প্রুধোম্মে শাস্ত্রের যে অংশ পাঠ করেছেন, সেখানে যীশু বলেছেন, ‘‘আমা দিয়া না আসিলে, কেহ পিতার নিকটে আইসে না’’ (যোহন 14:6)| আপনি যীশুকে বিশ্বাস করেননি, সুতরাং আপনি ঈশ্বরের সঙ্গে থাকতে পারেন না| যখন নিমেষে উঠিয়ে নেওয়া হবে, তখন আপনাকে পিছনে ফেলে দেওয়া হবে!

২| দ্বিতীয়ত, খ্রীষ্ট আকাশে আসার পরে কি ঘটবে |

রূপান্তরের সময়ে খ্রীষ্ট আকাশে আসবেন এবং খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের তাঁর সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য সেখানে ওঠানো হবে| খ্রীষ্ট তাঁর লোকদের স্বর্গে নিয়ে যাবেন| তখন তাদের কি হবে?

দশ কুমারীর গল্পে, খ্রীষ্ট নিজেকে বর বলে অভিহিত করেছেন| তিনি বলেছেন, ‘‘বর আসিলেন; এবং যাহারা প্রস্তুত ছিল তাহারা তাঁহার সহিত বিবাহবাটীতে প্রবেশ করিল’’ (মথি 25:10)| প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা হলেন খ্রীষ্টের কনে, এবং রূপান্তরের পরে তারা স্বর্গে গিয়ে খ্রীষ্টকে বিয়ে করবেন, মেষশাবকের বিয়েতে| বাইবেল ভবিষ্যবাণী করছে,

‘‘কারণ মেষশাবকের বিবাহ উপস্থিত হইল, এবং তাঁহার ভার্য্যা আপনাকে প্রস্তুত করিল| আর ইহাকে এই বর দত্ত হইল, যে সে উজ্জ্বল ও শুচী মসীনা বস্ত্রে আপনাকে সজ্জিত করে: কারণ সেই মসীনা বস্ত্র পবিত্রজনের ধর্ম্মাচরণ| পরে তিনি আমাকে কহিলেন, তুমি লিখ, ধন্য তাহারা যাহারা মেষশাবকের বিবাহভোজে নিমন্ত্রিত’’ (প্রকাশিত বাক্য 19:7-9)|

খ্রীষ্ট হচ্ছেন ‘‘ঈশ্বরের মেষশাবক, যিনি জগতের পাপভার লইয়া যান’’ (যোহন 1:29)| সমস্ত যুগের খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা হলেন তাঁর ভার্য্যা, ‘‘সাধুদের ধার্ম্মিকতার’’ বস্ত্র পরিহিত| যীশু তাঁর বিয়ের জন্য অনেক সময় ধরে অপেক্ষা করেছেন| এবং কোন সময়ে এটা হবে! ‘‘ধন্য তাহারা যাহারা মেষশাবকের বিবাহভোজে নিমন্ত্রিত|’’

খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা তাদের প্রভুর সঙ্গে পৃথিবীতে ফিরে যাওয়ার আগে স্বর্গে অন্য কিছু একটা ঘটবে| সেটা হল বিশ্বাসীদের বিচার এবং পুরস্কার প্রদান| এটাকে বলা হয় ‘‘বীমা বিচার|’’ গ্রীক শব্দ ‘‘বীমা’’র অর্থ হল ‘‘বিচারাসন|’’ প্রেরিত পৌল লিখেছেন, ‘‘কারণ আমাদের সকলকেই খ্রীষ্ট বিচারাসনের [বীমা] সন্মুখে প্রত্যক্ষ হইতে হইবে; যেন সৎকার্য্য হউক কি, অসৎকার্য্য হউক, প্রত্যেকজন আপনার কৃতকার্য্য অনুসারে দেহ দ্বারা উপার্জনের ফল পায়’’ (২য় করিন্থীয় 5:10)|

এটাই অপরিত্রাণপ্রাপ্ত মৃতদের শেষ বিচার নয়, যখন অবিশ্বাসীরা তাদের কৃত পাপের জন্য বিচারিত হবে এবং অগ্নিহ্রদে নিক্ষিপ্ত হবে| এটা হচ্ছে খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা জগতে যা কিছু করেছেন তার বিচার| এটা শুধুমাত্র খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের জন্য, কারণ বাইবেল বলছে, ‘‘কেননা কেবল যাহা স্থাপিত হইয়াছে তাহা ব্যতীত অন্য ভিত্তিমূল কেহ স্থাপন করিতে পারে না, তিনি যীশু খ্রীষ্ট’’ (১ম করিন্থীয় 3:11)| খ্রীষ্টের ভিত্তি ব্যতীত, আপনি হারিয়ে যাচ্ছেন এবং নরকে চলে যাচ্ছেন| কিন্তু আপনার যদি খ্রীষ্ট থাকে, তাহলে তাঁর জন্য আপনি কি করেছেন তার ভিত্তিতে আপনি বিচারিত হবেন| বাইবেল বলছে, ‘‘কিন্তু এই ভিত্তিমূলের উপরে স্বর্ণ, রৌপ্য, বহুমূল্য প্রস্তর, কাষ্ঠ, খড়, নাড়া দিয়া যদি কেহ গাঁথে; তবে প্রত্যেক ব্যক্তির কর্ম সপ্রকাশ হইবে: কারণ সেই দিন তাহা ব্যক্ত করিবে’’ (১ম করিন্থীয় 3:12-13)| কোন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী যদি একটি জীবন গাঁথেন ‘‘স্বর্ণ, রৌপ্য, বহুমূল্য প্রস্তর দিয়া...তবে সে বেতন পাইবে’’ (১ম করিন্থীয় 3:12, 14)| কিন্তু যদি আপনি ‘‘কাষ্ঠ, খড়, নাড়া’’ দিয়ে আপনার সময় নষ্ট করেন, তবে আপনার ‘‘কর্ম্ম পুড়িয়া যাইবে’’ এবং আপনি তাঁর রাজ্যে কোন পুরস্কার পাবেন না (১ম করিন্থীয় 3:15)|

খ্রীষ্ট কোন পুরস্কার দেবেন, এবং কেন? যীশু আপনাকে ভুলে যাননি| যদি আপনি তাঁর বিশ্বস্ত দাস হন, তাহলে তিনি তাঁর রাজ্যে আপনাকে একটি উচ্চ স্থান দেবেন| তিনি আপনাকে বলবেন, ‘‘বেশ, উত্তম ও বিশ্বস্ত দাস; তুমি অল্প বিষয়ে বিশ্বস্ত হইলে, আমি তোমাকে বহু বিষয়ের উপরে নিযুক্ত করিব: তুমি আপন প্রভুর আনন্দের সহভাগী হও’’ (মথি 25:21, 23)| একজনের প্রতি তিনি বলবেন, ‘‘তুমিও...পাঁচ নগরের কর্ত্তা হও’’ (লূক 19:19)| অন্য একজনকে তিনি বলবেন, ‘‘দশ নগরের উপরে কর্ত্তৃত্ব কর’’ (লূক 19:17)| তাঁর রাজ্যে বিশ্বস্ত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা খ্রীষ্টের সঙ্গে হাজার বছর ধরে জগতের উপরে রাজত্ব করবে|

খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা তাদের দুঃখভোগের জন্য পুরস্কৃত হবেন| বাইবেল বলছে, ‘‘যদি আমরা সহ্য করি, তবে তাঁহার সহিত রাজত্ব করিব’’ (২য় তীমথিয় 2:12)| সেই সমস্ত লোক যারা খ্রীষ্টের জন্য শহীদ হিসাবে মৃত্যুবরণ করেছেন তারা পুরস্কৃত হবেন| খ্রীষ্ট বলেছিলেন, ‘‘তুমি মরণ পর্য্যন্ত বিশ্বস্ত থাক, তাহাতে আমি তোমাকে জীবন-মুকুট দিব’’ (প্রকাশিত বাক্য 2:10)|

সেখানে সেই সমস্ত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা পুরস্কার পাবেন যারা আত্মা জয় করেন| বাইবেল বলছে, ‘‘আর যাহারা বুদ্ধিমান তাহারা বিতানের দীপ্তির ন্যায়; এবং যাহারা অনেককে ধার্ম্মিকতার প্রতি ফিরায় তাহারা তারাগনের ন্যায় অনন্তকাল দেদীপ্যমান হইবে’’ (দানিয়েল 12:3)| কোন ব্যক্তিকে ধার্ম্মিকতার প্রতি ফিরিয়ে আনার মানে কি? কেন, খ্রীষ্টের প্রতি একটি আত্মা জয় করতে হয়?

যখন আপনি খ্রীষ্টের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্যে স্বর্গে যান, তখন আপনার কোন ধরনের গাড়ী ছিল, বা আপনার কত অর্থ ছিল বা আপনাকে কতগুলি ধাপ অবলম্বন করতে হয়েছে, সেটা কোন ব্যাপার হয় না| কিন্তু যদি আপনি আত্মা জয় করে থাকেন তবে সেটা একটা বিষয় হয়ে পড়ে! একমাত্র যে জিনিষটি আপনি নিজের সঙ্গে করে স্বর্গে নিয়ে যেতে পারেন সেটা হল সেই আত্মা যা আপনি খ্রীষ্টের জন্যে জয় করেছেন! আত্মা জয়ের কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন! সুসমাচার প্রচারকের কাছ থেকে নাম সংগ্রহ করুন! সুসমাচার শোনার জন্য নিজে লোক সঙ্গে নিয়ে আসুন! খ্রীষ্ট যেন আপনাকে আত্মা-জয়ীর মুকুট দান করেন!

কিন্তু আপনার যদি মন পরিবর্তন না হয়, তাহলে আপনি এই বিচারের মধ্যে থাকবেন না| আপনি খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করবেন না, যিনি আপনার পাপের দেনা শোধ করার জন্যে মৃত্যুবরণ করেছিলেন| আপনি খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করবেন না, যিনি আপনাকে আপনার কৃত পাপ থেকে শুচী করতে তাঁর নিজের রক্ত ঝরিয়েছিলেন| সুতরাং মহা তাড়নার মধ্যে জ্বলন এবং দুঃখ এবং রক্ত এবং মৃত্যু ভোগ করার জন্যে আপনাকে জগতে ফেলে রাখা হবে| যখন আপনি মারা যান, তখন আপনি নরকে যাবেন| শেষ বিচারের সময়ে, আপনাকে অগ্নিহ্রদে নিক্ষেপ করা হবে| আপনার প্রতি এই রকমটাই হবে|

৩| তৃতীয়ত, যখন খ্রীষ্ট জগতে আসেন তখন কি ঘটবে |

প্রথমত, খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের তাঁর সঙ্গে করে স্বর্গে নিয়ে যাওয়ার জন্যে যীশু আকাশে আসবেন| তারপরে তিনি জগতে নেমে আসবেন খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের সঙ্গে নিয়ে তাঁর রাজ্য স্থাপন করতে| যিরুশালেম শহরের ঠিক পূর্বদিকে অবস্থিত, জৈতুন পর্ব্বতের চূড়া থেকে যীশু স্বর্গে আরোহন করেছিলেন| যখন শিষ্যেরা তাঁকে স্বর্গারোহন করতে দেখছিলেন, তখন দুইজন স্বর্গদূত তাদের বলেছিলেন,

‘‘এই যে যীশু, তোমাদের নিকট হইতে স্বর্গে উর্দ্ধে নীত হইলেন, উহাকে যেরূপে স্বর্গে গমন করিতে দেখিলে সেইরূপে উনি আগমন করিবেন’’ (প্রেরিত 1:11)|

যীশু জৈতুন পর্ব্বত থেকে উর্দ্ধে আরোহন করেছিলেন এবং তিনি সেই একইভাবে, স্বশরীরে, জৈতুন পর্ব্বত থেকে নেমে আসবেন - এবং খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরাও তাঁর সঙ্গে ফিরে আসবেন| বাইবেল বলছে, ‘‘আর সেই দিন তাঁহার চরণ সেই জৈতুন পর্ব্বতের উপরে দাঁড়াইবে... আর আমার ঈশ্বর সদাপ্রভু আসিবেন, তোমার সঙ্গে পবিত্রজন সকলেই আসিবেন’’ (সখরিয় 14:4-5)| রূপান্তরের সময়ে, খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের জন্য, খ্রীষ্ট আকাশে আসবেন | তারপরে তিনি খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের সঙ্গে নিয়ে, জগতে আসবেন | এইগুলি হচ্ছে তাঁর দ্বিতীয় আগমনের দুটি অংশ| যখন তিনি জগতে আসবেন, তখন খ্রীষ্ট তাঁর রাজ্য স্থাপন করবেন এবং হাজার বছর ধরে রাজত্ব করবেন| বাইবেল খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের বলছে ‘‘তাহারা জীবিত হইয়া সহস্র বৎসর খ্রীষ্টের সহিত রাজত্ব করিল’’ (প্রকাশিত বাক্য 20:4)|

কিন্তু যদি আপনি পরিত্রাণপ্রাপ্ত না হন, তাহলে এর কোন কিছুই আপনার জন্যে নয়! আপনি এইগুলি সব হারাবেন| আপনার প্রতি কি ঘটবে? বিচার, ব্যাথা, যন্ত্রণা, এবং অগ্নি! রূপান্তরের সময়ে আপনাকে পিছনে ছেড়ে যাওয়া হবে| ঈশ্বরের ক্রোধ আপনার উপরে ঢেলে দেওয়া হবে| মহা তাড়নার সময়ে আপনি ব্যাথার পর ব্যাথায় দুঃখভোগ করবেন| যখন আপনি মারা যাবেন তখন আপনাকে নরকে পাঠানো হবে এবং আপনি ‘‘অগ্নিশিখায়...যন্ত্রণা পাবেন’’ (লূক 16:24)| শেষ বিচারে, আপনাকে নরক থেকে টেনে বের করে আনা হবে, এবং ঈশ্বরের পুস্তক থেকে পাঠ করে আপনার পাপসকল আপনাকে শুনতে বাধ্য করা হবে| তারপরে অনন্তকাল ধরে পুড়ে চলার জন্য আপনাকে ‘‘অগ্নিহ্রদে নিক্ষেপ’’ করা হবে (প্রকাশিত বাক্য 20:15)|

যদি আপনি পরিত্রাণপ্রাপ্ত না হন, তাহলে সেখানে আপনার জন্যে কোন রূপান্তর থাকবে না, পুরস্কার থাকবে না, স্বর্গ থাকবে না, এবং কোন রাজ্য থাকবে না! আপনি খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করতে অস্বীকার করেছেন| তাঁর মৃত্যুর দ্বারা আপনার পাপের দেনা শোধ হয়নি| তাঁর রক্তের দ্বারা আপনি আপনার কৃত পাপ থেকে নিজেকে শুচী করেননি! সুতরাং আপনাকে অবশ্যই আপনার নিজের পাপের জন্য দুঃখভোগ করতে হবে| আপনার জন্য সেখানে ‘‘পাপার্থক আর কোন যজ্ঞ অবশিষ্ট থাকিবে না’’ (ইব্রীয় 10:26), কিন্তু একটি ‘‘বিচারের ভয়ঙ্কর প্রতীক্ষা থাকিবে’’ (ইব্রীয় 10:27)| বিচার! নরকের অগ্নি! আপনার জন্য, আপনার জন্য, আপনার জন্য! ওহ, যেন এইরকম না হয়| যীশুর নামে, আমেন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ আবেল প্রুধোম্মে: যোহন 14:|-6 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিস জুলি সিভিলে:
“In Times Like These” (Ruth Caye Jones, 1902-1972) |


খসড়া চিত্র

গর্ভপাত ও খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমন !

ABORTION AND THE SECOND COMING OF CHRIST!

লেখক : ডঃ সি. এল. কেগান

‘‘আমার পিতার বাটীতে অনেক বাসস্থান আছে: যদি না থাকিত, তোমাদিগকে বলিতাম| কেননা আমি তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করিতে যাইতেছি| আর আমি যখন যাই ও তোমাদের জন্য স্থান প্রস্তুত করি, তখন পুনর্ব্বার আসিব, এবং আমার নিকটে তোমাদিগকে লইয়া যাইব; যেন আমি যেখানে থাকি, তোমরাও সেখানে থাক’’ (যোহন 14:2-3)|

(যিহিষ্কেল 36:24; 37:12)

১| প্রথমত, যখন খ্রীষ্ট আকাশে আসেন তখন কি ঘটবে,
১ম থিষলনীকীয় 4:16-17; ১ম করিন্থীয় 15:51-52;
মথি 24:36; মথি 25:10, 11, 12; যোহন 14:6 |

২| দ্বিতীয়ত, খ্রীষ্ট আকাশে আসার পরে কি ঘটবে, মথি 25:10;
প্রকাশিত বাক্য 19:7-9; যোহন 1:29; ২য় করিন্থীয় 5:10;
১ম করিন্থীয় 3:11-15; মথি 25:21, 23; লূক 19:19, 17;
২য় তিমথীয় 2:12; প্রকাশিত বাক্য 2:10; দানিয়েল 12:3 |

৩| তৃতীয়ত, যখন খ্রীষ্ট জগতে আসেন তখন কি ঘটবে, প্রেরিত 1:11;
সখরিয় 14:4-5; প্রকাশিত বাক্য 20:4; লূক 16:24;
প্রকাশিত বাক্য 20:15; ইব্রীয় 10:26, 27 |