Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




লুথারের মন পরিবর্তন

LUTHER’S CONVERSION
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হাইমার্স, জুনিয়র|
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

২০১৫ সালের, ২৫শে অক্টোবর, রবিবারের সকালবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে পুনঃজাগরণের উপরে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached on Reformation Sunday Morning
at the Baptist Tabernacle of Los Angeles, October 25, 2015

“যেমন লেখা আছে, কিন্তু ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে” (রোমীয় ১:১৭)|


কেউ কেউ হয়ত জিজ্ঞাসা করবেন যে কেন আমি মার্টিন লুথারের (১৪৮৩-১৫৪৬) বিষয়ে বলছি| সূত্রপাত থেকেই এটা স্পষ্ট করা যাক যে আমি হচ্ছি একজন ব্যাপটিষ্ট, লুথারেন নই| মন্ডলীর প্রকৃতির দিক থেকে আমি একজন ব্যাপটিষ্ট, লুথারেন নই| ব্যাপ্তিষ্মের দিক থেকে দেখতে হলে আমি একজন ব্যাপটিষ্ট, লুথারেন নই| প্রভুর ভোজের বিষয়ে আমি একজন ব্যাপটিষ্ট, লুথারেন নই| ইস্রায়েল জাতি এবং যিহুদী লোকদের বিষয়ে আমি একজন ব্যাপটিষ্ট, লুথারেন নই| এগুলি খুব গুরুত্বপূর্ণ ধাপ - এবং এই ধাপগুলির প্রত্যেকটিতে আমি লুথার এর সঙ্গে একমত হচ্ছি না এবং ব্যাপটিষ্টদের পক্ষে দাঁড়াচ্ছি| তবুও গভীরভাবে, লুথারের কেবল খ্রীষ্টে বিশ্বাসের দ্বারা ধার্ম্মিক পরিগণিত হওয়ার সুস্পষ্ট বাইবেলীয় শিক্ষার আমি প্রশংসা করি| আমি সব আধুনিক লুথারেনদের কথা বলছি না| আমি বলছি স্বয়ং লুথারের বিষয়ে| তিনি ছিলেন সেই যুগব্যাপী মহান খ্রীষ্টবিশ্বাসীদের মধ্যে একজন|

ইতিহাসে লুথার একজন বিশিষ্ট মানবমূর্ত্তিরূপে বিবেচিত হয়েছিলেন, তার সময়ের একজন পূর্ণমানব হিসাবে, কখনো কখনো অভদ্র এবং একগুঁয়ে হিসাবে| তিনি সবসময়ে বিষয়গুলিকে স্বচ্ছভাবে দেখতেন না| তিনি বিশ্বাস করে চলতেন রোমান ক্যাথলিকদের "প্রতিস্থাপন মতবাদ" তত্ত্ব, যা হলো এই যে মন্ডলী সম্পূর্ণভাবে ইস্রায়েলীয়দের প্রতিস্থাপিত করে| তার জীবনের শেষ ধাপে, এই ক্যাথলিক মতবাদ, যিহুদীদের বিরুদ্ধে একটি কঠোর বিবৃতি দিতে তাকে পরিচালিত করেছিল| কিন্তু রিচার্ড উমব্রান্ড, একজন মন পরিবর্তনকারী যিহুদী যিনি একজন লুথারেন পালক হয়েছিলেন, একবার আমাকে বলেছিলেন, খুব সাধারনভাবে যে, "আমি তাকে ক্ষমা করেছিলাম|" পালক উমব্রান্ড জানতেন যে যেমন আমরা সবাই বর্তমানে যেমন আছি, তেমনিই লুথার তার সময়ের একজন মানুষ ছিলেন| পরবর্তীতে ইতিহাস দেখাবে যে আমাদের বর্তমানে অনেক অসম্পূর্ণতা রয়েছে - বিশেষতঃ "সিদ্ধান্তবাদ" এর আত্মা-নিন্দার ভ্রান্তির বিষয়ে, যা হল মধ্যযুগীয় ক্যাথলিক মতবাদের প্রতারণার মতনই নারকীয়|

তথাপি কিছু "অস্পষ্ট দাগ" থাকা সত্ত্বেও লুথারের অস্বাভাবিক দান ছিল| স্পারজিয়ন ছিলেন সর্বকালের মহানতম ব্যাপটিষ্ট প্রচারক| তিনি লুথারের উচ্চ প্রশংসা করতেন এবং প্রায়ই তাকে উদ্ধৃত করতেন (লুথারের উপরে স্পারজিয়নের প্রচারিত দুটি বার্তা দেখুন, The Metropolitan Tabernacle Pulpit, volume XXIX, pp. 613-636)| স্পারজিয়ন বলেছিলেন, "আমাদের মহান পুনঃজাগরণের নেতার মূল সাক্ষ্য ছিল যীশু খ্রীষ্ট, এবং কেবল তাঁহাতেই বিশ্বাস দ্বারা একজন পাপী ধার্ম্মিক গণিত হন|" লুথার অনেকবার ঈশ্বরতাত্ত্বিক প্রশ্নগুলির গভীরে দেখেছিলেন - এবং তাঁর চিন্তাভাবনা অত্যন্ত মৌলিকতা এবং জোরের সঙ্গে প্রকাশ করেছিলেন|

আত্মপক্ষ সমর্থন হল পরিত্রাণের সব মতবাদের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ| আত্মপক্ষ সমর্থিত না হলে একজন মানুষ নরকের জন্য বিচারিত হয়! একজন মানুষ মন্ডলীতে সঠিক হতে পারেন, ব্যাপ্তিষ্মে সঠিক হতে পারেন, প্রভুর ভোজে সঠিক হতে পারেন, ইস্রায়েলে সঠিক হতে পারেন - এবং তবুও নরকে যান কারণ তিনি ধার্ম্মিক বলে গণিত হননি| অপরপক্ষে, লুথারের মতন একজন মানুষকে, যদিও সেইসব বিষয়ে এবং অন্যান্য অনেক বিষয়ে ভুল ছিলেন, উদ্ধার করা যেতে পারত যদি তিনি খ্রীষ্টের দ্বারা ধার্ম্মিক বলে গণিত হতেন| সেই কারণে স্পারজিয়ন ধার্ম্মিকতাকে বলেছিলেন "পুনঃজাগরণের রত্নমুকুট," কারণ ধার্ম্মিকতা হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি মতবাদ| কেবল বিশ্বাসের দ্বারাই ধার্ম্মিকতাকে লুথার বলেছেন "সেই মতবাদ যাহার দ্বারা মন্ডলীর উত্থান অথবা পতন হয়|" ধার্ম্মিকতা ব্যতীত কেউ উদ্ধার পেতে পারে না! সমস্ত মতবাদের মধ্যে, এই সন্ধিক্ষণকালীন মতবাদের জন্য আমি মহান সংষ্কার-সাধকদের পক্ষে দাঁড়াই| কেবল যীশু খ্রীষ্টের বিশ্বাসের দ্বারাই ধার্ম্মিক প্রতিপন্ন হওয়া যায় এমন বিশ্বাসের জন্যই আমি লুথারের পক্ষে থাকি! সেটাই ছিল লুথারের মূল বিষয় - এবং সম্পূর্ণভাবে এই বিষয়ে তার সঙ্গে সহমত!

"ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে" (রোমীয় ১:১৭)|

লুথার এই পাঠ্যাংশ কিভাবে বুঝতে পেরেছিলেন? স্পারজিয়ন লুথারের মন পরিবর্তনের বিষয়ে আমাদের বলেছিলেন,

         আমি লুথারের জীবনের কয়েকটি ঘটনার উল্লেখ করিবার দ্বারা এই শিক্ষার সারসংক্ষেপ এবং ব্যাখ্যা দিব| মহান সংষ্কারসাধকগণের উপরে সুসমাচারের আলোক খুব ধীরে ধীরে আপতিত হইয়াছিল| ইহা একটি মঠের মধ্যে হইয়াছিল যেখানে, স্তম্ভের সহিত শিকলে বাঁধা পুরাতন একটি বাইবেলের পাতা উল্টাইতে গিয়া, তিনি এই পদটি পাইয়াছিলেন - "ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে|" এই স্বর্গীয় বাক্যটি তাহাকে স্তম্ভিত করিয়াছিল: কিন্তু তিনি ইহার মর্ম খুব কমই বুঝিতে পারিয়াছিলেন| যাহা হউক, তিনি তাহার ধর্ম্মীয় বিশ্বাস এবং সন্নাসীসুলভ অভ্যাসের মধ্যে, শান্তি খুঁজিয়া পান নাই| উত্তমতর কোন কিছু না জানিয়া, তিনি এত অধিক মাত্রায় অনুশোচনায় অধ্যাবসায়ী হইয়াছিলেন, এবং শ্রমসাধ্য রিপুদমন করিয়াছিলেন যে, কোন কোন সময়ে তাহাকে চরম অবসাদে অজ্ঞান অবস্থায় দেখিতে পাওয়া যাইত| তিনি নিজেকে মৃত্যুর দুয়ারে লইয়া গিয়াছিলেন... এবং মনস্তাপের মধ্যেই বিচরণ করিতেছিলেন, বিশ্রাম অনুসন্ধান করিতেছিলেন, কিন্তু কিছু পাইতেছিলেন না...[পরবর্তী কালে] প্রভু তাহাকে মিথ্যা উপাসনা হইতে পূর্ণরূপে উদ্ধার করিয়া নির্মিত করেন, এবং তিনি দেখিয়াছিলেন যাজকের দ্বারা নয়, যাজকের কাজের দ্বারা নয়, কৃচ্ছ্সাধনের দ্বারা নয়, তিনি নিজে বাঁচিবার জন্য, যাহা করিতে পারিতেন তাহার দ্বারা নয়, কিন্তু উহার দ্বারা যে [খ্রীষ্টের উপরে] তাহার নিজের বিশ্বাসের দ্বারাই তাহাকে বাঁচিতে হইবে| আজকের [সকালে] এই পাঠ্যাংশ [ক্যাথলিক] সন্ন্যাসীদের স্বাধীনতা দিতেছে, এবং তাহার আত্মাকে প্রজ্জ্বলিত অগ্নিতে স্থাপন করিতেছে|

          ["ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে" (রোমীয় ১:১৭)|]

শেষ পর্যন্ত লুথার যখন এই পাঠ্যাংশ বুঝতে পেরেছিলেন তখন তিনি কেবল যীশুতে বিশ্বাস স্থাপন করেছিলেন| তিনি তার মাকে লিখেছিলেন, "আমি নিজেকে পুনঃজন্মপ্রাপ্ত বলিয়া এবং উন্মুক্ত দ্বারের মধ্য দিয়া পরমদেশে চলিয়া গিয়াছি বলিয়া অনুভব করিয়াছিলাম|" স্পারজিয়ন বলেছিলেন,

         যত শীঘ্র তিনি ইহা বিশ্বাস করিয়াছিলেন তাহার চাইতে শীঘ্র সক্রিয় হইবার অনুভূতির মধ্যে জীবনযাপন শুরু করিয়াছিলেন| টেটজেল নামক, এক ব্যক্তি [যাজক], জার্মানীর প্রায় সমস্ত জায়গায় যাইয়া নগদ অর্থের বিনিময়ে তাহাদের মধ্যে পাপের ক্ষমা বিক্রয় করিতেছিলেন| আপনার পাপ কি ধরনের তাহা কোন বিষয় নয়, যত শীঘ্র আপনার অর্থ [সংগ্রহ] বাক্সের তলদেশ স্পর্শ করে আপনার পাপ উধাও হইবে| লুথার ইহা শুনিলেন, তিনি রুষ্ট হইলেন, এবং চিৎকার করিয়া বলিলেন, "আমি তাহার ঢাকে ছিদ্র করিয়া দিব," যাহা নিশ্চিতভাবে তিনি তাহার, এবং অন্যান্য অনেকের ঢাকেই করিয়াছিলেন| প্রশ্রয়ের বাদ্য থামাইবার জন্য মন্ডলীর দ্বারে তাহার এই সমস্ত কীলক ঠুকিয়া দেওয়া নিশ্চিতরূপে একটি পথ ছিল| কোনরূপ অর্থ এবং মূল্য ব্যতীত লুথার পাপের ক্ষমা পাইবার পক্ষে প্রচার করিয়াছিলেন, এবং শীঘ্রই পোপের প্রশ্রয়দান একটি উপহাসের বিষয়বস্তু হইয়া পড়িয়াছিল| লুথার তাহার বিশ্বাসের দ্বারা জীবনযাপন করিতেন এবং সেই কারণে তিনি, যিনি পক্ষান্তরে নীরবে থাকিতে পারিতেন সেরূপ না থাকিয়া ক্ষিপ্ত হইয়া সিংহ যেরূপ শিকারের উপর গর্জন করিয়া ঝাঁপাইয়া পড়ে, ত্রুটির সমালোচনায় তিনিও সেইরূপ করিয়াছিলেন| তাহার মধ্যে থাকা সেই বিশ্বাস তাহার ঐকান্তিক জীবনকে পরিপূর্ণ করিয়াছিল, এবং তিনি শত্রুর সহিত যুদ্ধ করিতে নামিয়া পড়িয়াছিলেন| কিছুদিন পরেই তাহাকে আউস্বার্গে তলব করা হইয়াছিল, এবং তিনি আউস্বার্গে গিয়াছিলেন, যদিও তাহার বন্ধুগণ তাহাকে সেস্থানে যাইতে বারণ করিয়াছিলেন| প্রচলিত ধর্ম্মমতের বিরুদ্ধ মতাবলম্বী এক ব্যক্তি হিসাবে, ওয়র্মসের রাজকীয় সভায় [ইম্পিরিয়াল কাউন্সিল] তার উত্তরদানের জন্যে, তাহারা তাহাকে শমন পাঠাইয়াছিলেন, এবং প্রত্যেকে বলিয়াছিলেন [তাহাকে বলিয়াছিলেন] ইহা হইতে বিরত হইতে, কারণ তাহার জন্য নিশ্চিত ছিল [ঘুটাতে বাঁধিয়া] তাহাকে পুড়াইয়া মারা; কিন্তু তিনি প্রয়োজনীয়তা অনুভব করিয়াছিলেন যে এই সাক্ষ্য বহন করিতে হইবে, এবং সেইজন্য একটি মাল বহনকারী গাড়ী লইয়া গ্রামের পর গ্রাম এবং শহরের পর শহর পরিক্রমা করিতেন, প্রচার করিতেন, গরিব লোকেরা বাহির হইয়া আসিতেন তাহার সহিত করমর্দন করিবার জন্য যিনি নিজের জীবনের ঝুঁকির বিনিময়ে খ্রীষ্ট এবং সুসমাচারের পক্ষে দাঁড়াইয়াছিলেন| আপনি মনে করিয়া দেখুন কিভাবে তিনি অগাষ্ট সভার [ওয়র্মের] সন্মুখে দাঁড়াইয়াছিলেন, এবং যদিও তিনি জানিতেন যতদূর সম্ভব মানুষ ক্ষমতা পাইলে তাহার প্রতিরোধ তাহাকে নিজের জীবনের মূল্যে করিতে হইতে পারে, কারণ তিনিও, সম্ভবত, জন হাসের মতন [পুড়াইয়া মারা] হইবেন, তবুও তিনি প্রভু তার ঈশ্বরের জন্য [আচরণ করিয়াছিলেন] একজন মানুষের ন্যায়| সেইদিন জার্মান আইনসভায় [আদালতে] লুথার একটি কাজ করিয়াছিলেন যাহার জন্য দশ সহস্রবার দশ সহস্র মাতার সন্তানগণ তাহার নামের আশীর্ব্বাদ পাইয়াছিলেন, এবং তাহার ঈশ্বর প্রভুর নামে আরও অধিক আশীর্ব্বাদ পাইয়াছিল (C. H. Spurgeon, “A Luther Sermon at the Tabernacle,” The Metropolitan Tabernacle Pulpit, Pilgrim Publications, 1973 reprint, Volume XXIX, pp. 622-623)|

"ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে" (রোমীয় ১:১৭)|

১৯৫০ শতকের প্রথম দিকে একটি ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতে আমার লুথারের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ হয়েছিল| এক রবিবারের রাত্রে তারা লুথারের বিষয়ে একটি সাদা-কালো চলচ্চিত্র আমাকে দেখিয়েছিলেন| তাকে মনে হচ্ছিল যেন পুরাণ থেকে উঠে আসা একটি অপরিচিত চরিত্র, যার কাছে আমার আগ্রহ জাগানোর প্রতি কিছুই বলার ছিল না| চলচ্চিত্রটিকে খুব বিরক্তিকর এবং দীর্ঘ্য মনে হচ্ছিল| আমি বিস্মিত হয়েছিলাম যে কেন আমার পালক, ডঃ ওয়াল্টার এ. পেগ, এটা দেখানোর জন্য নূন্যতম বিব্রত বোধ করেছিলেন| আমার আজকে আরও বলা উচিৎ যে সেইদিন ঐ মহান ছবিটির বিষয়ে আমার ধারণা সম্পূর্ণ ভিন্ন ছিল| আমি এখন সেটা দেখতে ভালবাসি! ঐ ছবির একটি দৃশ্য দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন|

লুথারের সঙ্গে আমার দ্বিতীয় সাক্ষাৎ হয়েছিল অনেক পরে, আমার মন পরিবর্তনের পরে| আমি জন্ ওয়েস্লীর মন পরিবর্তনের বিষয়ে শুনেছি, যাতে ওয়েস্লী বলেছেন,

সন্ধ্যাকালে খুব অনিচ্ছাবশতঃ আমি অল্ডার্সগেট স্ট্রীটের একটি সোসাইটিতে গিয়াছিলাম, যেখানে একজন ব্যক্তি রোমীয় পত্রের উপরে লুথারের মন্তব্য পাঠ করিতেছিলেন| রাত্রি প্রায় পৌনে নয়টার সময়, যখন তিনি সেই পরিবর্তনের ব্যাখ্যা করিতেছিলেন যাহা খ্রীষ্টে বিশ্বাসের মাধ্যমে ঈশ্বর আমাদের হৃদয়ে করিয়া থাকেন, আমি অনুভব করিয়াছিলাম যে আমার হৃদয় অস্বাভাবিকভাবে উষ্ণ হইয়াছে| আমি অনুভব করিয়াছিলাম যে আমি খ্রীষ্টে বিশ্বাস করিয়াছি, আমার পরিত্রাণের জন্য কেবল খ্রীষ্টকেই; এবং আমাকে একটি নিশ্চয়তা দেওয়া হইয়াছে, যে তিনি আমার সমস্ত পাপ লইয়াছেন, এমনকী আমার, এবং আমাকে পাপ এবং মৃত্যুর বিধান হইতে উদ্ধার করিয়াছেন (John Wesley, The Works of John Wesley, third edition, Baker Book House, 1979 reprint, volume I, p. 103)|

এটা আমার উপরে প্রভাব বিস্তার করেছিল, কারণ আমি জানতাম যে প্রথম মহা জাগরণের সময়ে ওয়েস্লী সর্বাধিক শক্তিশালী প্রচারদের মধ্যে একজন হতে চলেছিলেন| ওয়েস্লী মন পরিবর্তন করেছিলেন যখন তিনি খ্রীষ্টে বিশ্বাসের দ্বারা ধার্ম্মিক গণিত হওয়া বিষয়ক বাক্যগুলি লুথারের কাছে শুনেছিলেন|

আরও পরে, আমি জেনেছিলাম যে জন্ ব্যনিয়ন, আমাদের ব্যাপটিষ্ট পূর্বপুরুষ, লুথারের রচনা পড়েছিলেন যখন তার অস্বাভাবিকভাবে মন পরিবর্তন হয়েছিল, "মার্টিন লুথারের রচনার সহিত তার শাস্ত্রের অধ্যয়ণের বিস্তার" (Pilgrim's Progress, Thomas Nelson, 1999 reprint, publisher's introduction, p. xii)| ব্যনিয়ন সর্বকালের জন্য ব্যপকহারে পঠিত ব্যাপটিষ্ট লেখকে পরিণত হয়েছিলেন!

জন্ ওয়েস্লী, সেই মেথডিষ্ট, লুথারের বাক্য শোনার পর মন পরিবর্তন করেছিলেন| লুথার যা লিখেছিলেন সেইগুলি পাঠের দ্বারা জন্ ব্যনিয়ান, সেই ব্যাপটিষ্টকে, তার মন পরিবর্তনের সংগ্রামে সাহায্য করা হয়েছিল| আমি ভেবেছিলাম যে পারতপক্ষে লুথারের মধ্যে অবশ্যই কিছু ভাল জিনিষ ছিল| আমি দেখেছিলাম যে লুথারের প্রচারের কেন্দ্রবিন্দু ছিল রোমীয় পুস্তক| লুথার বলেছিলেন,

এই পত্র প্রকৃতভাবেই নতুন নিয়ম এবং পবিত্রতম সুসমাচারের মূল অংশ, এবং ইহা উপযোগী যে প্রত্যেক খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের ইহার বাক্যের পর বাক্য, হৃদয় দিয়া জানা উচিৎ, শুধুমাত্র এই কারণে নয়, কিন্তু প্রত্যেকদিন ইহার সহিত তাহাদের পরিব্যপ্ত থাকিতে হইবে আত্মার প্রতিদিনের মান্না হিসাবে| ইহাকে কখনই পাঠ করা বা অধিক মাত্রায় বিবেচনা করা যায় না, এবং যত বেশি করিয়া ইহার চর্চা করা যাইবে ততই ইহা আরও অধিক মূল্যবান হইবে, এবং আরও সুস্বাদু হইবে (Martin Luther, “Preface to the Epistle to the Romans,” Works of Martin Luther, Baker Book House, 1982 reprint, volume VI, page 447)|

কেন আমি চিন্তা করব যে লুথার আজকের দিনে খুব গুরুত্বপূর্ণ? প্রধানত এই কারণে যে তিনি আমাদের রোমীয় পুস্তকের দিকে ফিরিয়ে নিয়ে যান, এবং আমাদের খুব পরিষ্কারভাবে করে দেখিয়ে দেন যে রোমীয় হল "প্রকৃতভাবেই নতুন নিয়ম এবং পবিত্রতম সুসমাচারের মূল অংশ|" সেটাই হল বিষয় যা আমাদের পুনরায় শুনতে হয় "সিদ্ধান্তবাদের" এইসব মন্দ দিনগুলিতে| অন্য সব কিছুর তুলনায়, বেশি করে আমাদের প্রয়োজন রোমীয় পুস্তকে ফিরে যাওয়া! লুথারের দিনের ক্যাথলিকরা রোমীয় পুস্তকের প্রচারের কেন্দ্রবিন্দুকে ভুলে গিয়েছিলেন| আমাদের দিনের "সিদ্ধান্তবাদী"গণ ঠিক সেই জিনিষটিই করেছেন| তারা রোমীয় পাঠ করতে পারেন, কিন্তু এর থেকে তারা কোন লাভ করতে পারেন না| সেটাই হল কারণ যে "সিদ্ধান্তবাদ," বিভিন্ন উপায়ে, ক্যাথলিক মতবাদের সমরূপ হয়েছে| ক্যাথলিকরা বলেছেন, "ইহা কর এবং বাঁচিয়া থাক|" "সিদ্ধান্তবাদী"রা বলেন, "ইহা কর এবং বাঁচিয়া থাক|" কিন্তু রোমীয় ১:১৭ পদটি বলছে,

"ধার্ম্মিক ব্যক্তি বিশ্বাস হেতু বাঁচিবে" (রোমীয় ১:১৭)|

রোমীয় ৩:২০ পদটি লক্ষ্য করুন|

"যেহেতুক ব্যবস্থার কার্য্য দ্বারা [পাপীর প্রার্থনা বলা, আপনার হস্ত উত্তোলন করা, আগাইয়া যাওয়া, ক্ষমা যাচ্ঞা করা] কোন প্রাণী তাঁহার সাক্ষাতে ধার্ম্মিক গণিত হইবে না: কেননা ব্যবস্থা দ্বারা পাপের জ্ঞান জন্মে" (রোমীয় ৩:২০)|

লুথার বলেছিলেন যে আপনি অবশ্যই ভেবে নেবেন না যে ব্যবস্থা কি করতে বলে অথবা কি না করতে বলে| সেটাই হল পথ যেভাবে মানবজাতির বিধি ব্যবস্থা কাজ করে| মানবজাতির বিধি ব্যবস্থা ভাল কাজের দ্বারা পরিপূর্ণতা লাভ করে, এবং যদিও আপনার অন্তর হয়ত সায় দেয় না| কিন্তু আপনার হৃদয়ের গভীরে কি আছে তার দ্বারা ঈশ্বর আপনাদের বিচার করেন, এবং এই কারণেই ঈশ্বরের ব্যবস্থা মানবজাতির অন্তরস্থ হৃদয়ের চাহিদা করে, এবং ভাল কাজের দ্বারা সন্তুষ্ট হতে পারে না, বরং সেই কাজের নিন্দা করে, পক্ষান্তরে যা হৃদয়ের অন্তঃস্থল ছাড়া অন্য কোন স্থান থেকে, কেবলমাত্র ভন্ডামী এবং মিথ্যা হিসাবে করা হয়েছিল| গীতসংহিতা ১১৬:১১ পদে, সেইজন্যে সমস্ত মানুষকে বলা হয় মিথ্যাবাদী, কারণ কেউই নিজের হৃদয়ের অন্তঃস্থল থেকে ঈশ্বরের ব্যবস্থা পালন করতে পারে না, কারণ প্রত্যেকটি মানুষ যা ভাল সেটাকে অপছন্দ করে এবং যা কিছু মন্দ তাতে আনন্দ লাভ করে| যদি, তখন, সেখানে যা ভাল তার মধ্যে ইচ্ছাপূর্বক আনন্দ না থাকে, তাহলে আপনার অন্তরস্থ হৃদয় কোন ভাল কাজ করতে চাইবে না| এটা ঈশ্বরের ব্যবস্থাকে অপছন্দ করে এবং এর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে| তারপর সেখানে নিশ্চিতভাবে পাপ আছে, এবং ঈশ্বরের ক্রোধ এবং শাস্তি প্রাপ্য আছে, এমনকী যদিও, বাইরে থেকে মনে হয় যেন, আপনার অনেক ভাল কাজ আছে| প্রকৃতপক্ষে আপনি ঈশ্বরের ব্যবস্থা দ্বারা দন্ডপ্রাপ্ত, কারণ আপনার অন্তস্থঃ হৃদয় তার সমস্ত শক্তি দিয়ে তাঁর ব্যবস্থার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছে|

কিন্তু ঈশ্বরের ব্যবস্থা আপনাকে ধার্ম্মিক গণিত করা, অথবা আপনাকে উদ্ধার করার জন্য দেওয়া হয়নি| রোমীয় ৩:২০ পদটি আবার পাঠ করুন, উচ্চঃস্বরে|

"যেহেতুক ব্যবস্থার কার্য্য [অথবা কার্য্য] দ্বারা কোন প্রাণী তাঁহার সাক্ষাতে ধার্ম্মিক গণিত হইবে না: কেননা ব্যবস্থা দ্বারা পাপের জ্ঞান জন্মে" (রোমীয় ৩:২০)|

আপনি যতটা সম্ভব ভাল হওয়ার চেষ্টা করতে পারেন| কিন্তু ঈশ্বর আপনার বাহ্যিক কাজের দিকে তাকান না| তিনি আপনার হৃদয়ের দিকে তাকান| এবং সেখানে তিনি রাট্ল সাপ এবং বিষাক্ত মাকড়সা, এবং যথেষ্ট বিদ্রোহ আর পাপ দেখেন|

"যেহেতুক ব্যবস্থায় কার্য্য দ্বারা কোন প্রাণী তাঁহার সাক্ষাতে ধার্ম্মিক গণিত হইবে না..." (রোমীয় ৩:২০)|

পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য আপনি যত বেশি করে ব্যবস্থা পালন করার চেষ্টা করেন, ততই আরও বেশি করে খারাপ হতে থাকে| লুথারের মনপরিবর্তনের অভিজ্ঞতায়, ওয়েস্লী এবং ব্যনিয়ানের মন পরিবর্তনের অভিজ্ঞতাতেও এই কথা সত্য ছিল, যেহেতু তারা বেপরোয়াভাবে "ভাল হওয়ার" দ্বারা পরিত্রাণ লাভ করতে চেষ্টা করেছিলেন| কিন্তু ব্যবস্থা এর থেকেও বহুদূর অবধি বিস্তৃত| এটা সেই ভয়ঙ্কর বাস্তবতা দেখার জন্য আপনার হৃদয় পরীক্ষা করে যে আপনি এক পবিত্র ঈশ্বরের বিরুদ্ধে হৃদয়ে ও মনে পাপ করেছেন| রোমীয় ৩:২০ পদের শেষ বাক্যটি লক্ষ্য করুন,

"কেননা ব্যবস্থা দ্বারা পাপের জ্ঞান জন্মে" (রোমীয় ৩:২০)|

আপনাকে অবশ্যই নিজের প্রতি নিজেকেই নিদারুন "বিরক্ত" হতে হয় - আপনার হৃদয়ের পাপচারিতার জন্যে!

কিন্তু ঈশ্বর আত্মার জন্য একটি আরোগ্য দিয়েছেন যা হল পরিত্রাণ পাওয়ার চেষ্টা করা| যতই বেশি করে তারা পাপ অতিক্রম করার জন্য সংগ্রাম চালায়, ততই তারা পাপের মধ্যে বেশি করে আকর্ষিত হয়| আপনার অবস্থাও কী সেইরকম হয়নি? পাপ না করার জন্য আপনি যত কঠোরতর চেষ্টা করে যাচ্ছেন, ততই আরও বেশি করে আপনি অন্তর থেকে মন্দতম পাপী হয়ে পড়ছেন - পাপের জন্য খ্রীষ্টের দেওয়া বিস্ময়কর আরোগ্য দূরে ঠেলে সরিয়ে দিচ্ছেন, এবং আপনার জীবন "পুনঃউৎসর্গ" করার দ্বারা, "আগাইয়া যাওয়া"র দ্বারা, "পাপীর প্রার্থনা" বলার দ্বারা, পরিত্রাণ বিষয়ে আরও বেশি করে জানার দ্বারা, এবং ব্যবস্থার অন্যান্য অনেক কাজ করার দ্বারা আপনার ধার্ম্মিকতা প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করে চলেছেন| কিন্তু আপনি যা শিখছেন, বা বলছেন, বা করছেন, বা অনুভব করছে তার কোন কিছুই আপনাকে ঈশ্বরে সঙ্গে শান্তি দিতে পারে না, যিনি আপনার হৃদয় এবং মনের দুরাচারের বিষয়ে সব কিছু জানেন|

ব্যবস্থা আপনার জন্য যা করতে পারে না, অনুগ্রহ, খ্রীষ্টের রক্তের উপরে "বিশ্বাসে"র মাধ্যমে আপনার জন্য সেটা করতে পারে | কেবলমাত্র খ্রীষ্টের রক্তের মধ্যে আপনি খুঁজে পেতে পারেন আপনার পাপের থেকে আপনার মুক্তি এবং ঈশ্বরের ক্রোধ থেকে ক্ষমা লাভের উপায়| আপনার পরিবর্তে তিনি মৃত হয়েছিলেন, আপনার পাপের দেনা শোধ করার জন্য, এবং তাঁর রক্ত আপনাকে আপনার কৃত সমস্ত পাপ থেকে শুচি করতে পারে! খ্রীষ্ট যীশু আপনাদের সকলের পাপের পূর্ণমূল্য ক্রুশের উপরে প্রদান করেছেন|

তাহলে আপনার করার জন্য আর কী পরে থাকলো? এর উত্তর রোমীয় ৩:২৬ পদে দেওয়া হয়েছে,

"তিনি [ঈশ্বর] নিজে ধার্ম্মিক থাকেন এবং যে কেহ যীশুতে বিশ্বাস করে, তাহাকেও ধার্ম্মিক গণনা করেন" (রোমীয় ৩:২৬)|

যীশুতে বিশ্বাস স্থাপন| এটাই হচ্ছে কোন এক হারানো মানুষের সংগ্রাম, "ব্যবস্থা"র পালনের দ্বারা উন্নততর জীবনযাপনে সচেষ্ট থাকা, এবং বিভিন্ন "সিদ্ধান্ত" গ্রহণ করার প্রতি পূর্ণ উত্তর| আপনার করা ভাল কাজ এবং "সিদ্ধান্ত," এবং মানসিক আত্ম-বিশ্লেষণ ছুঁড়ে ফেলে দিন, এবং অন্যদের চাইতে আপনি উন্নততর এই অহংকার ত্যাগ করুন| আপনি কেবল সেই পথে পরিত্রাত হতে পারেন না|

"যে কেহ যীশুতে বিশ্বাস করে [ঈশ্বর] তাহাকেও ধার্ম্মিক গণনা করেন" (রোমীয় ৩:২৬)|

খ্রীষ্টের রক্তে বিশ্বাস করুন, যা আপনার জন্য ক্রুশের উপরে প্রবাহিত হয়েছে, এখন সেটা স্বর্গে স্থানান্তরিত করা হয়েছে, যেখানে এটা চিরকাল বিশুদ্ধ, সমস্ত পাপ শুচি করতে সক্ষম| বিশ্বাস রাখুন সেই রক্তে, এমনকী খ্রীষ্টের রক্তে, এবং আপনি পরিত্রাত হবেন! ডঃ চান, অনুগ্রহ করে আমাদের প্রার্থনায় পরিচালনা করুন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ আবেল প্রুধোম্মে: রোমীয় ৩:২০-২৬ |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“For All My Sin” (by Norman Clayton, 1943) |