Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




হেরোদ এবং যোহন

HEROD AND JOHN
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2017 সালের, 12ই নভেম্বর, প্রভুর দিনের সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে প্রচারিত একটি ধর্ম্মোপদেশ
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Evening, November 12, 2017

‘‘কারণ হেরোদ যোহনকে ধার্ম্মিক ও পবিত্র লোক জানিয়া ভয় করিতেন ও তাঁহাকে রক্ষা করিতেন| আর তাঁহার কথা শুনিয়া তিনি অতিশয় উদ্বিগ্ন হইতেন, এবং তাঁহার কথা শুনিতে ভালবাসিতেন’’ (মার্ক 6:20)|


রাজা হেরোদ এবং যোহন বাপ্তাইজক এর কাহিনী বাইবেল এবং ইতিহাসের মহা দুঃখজনক ঘটনাগুলির মধ্যে একটি| যোহন বাপ্তাইজক ছিলেন একজন চমক দেওয়ার মতন সুসমাচার সম্প্রচারক| তিনি হেরোদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন - যিনি ছিলেন একজন অতি অস্থির প্রকৃতির, দুর্বল-চিত্ত সম্রাট| তিনি যোহনের বাধ্য থাকতে চেয়েছিলেন| তিনি ঈশ্বরকে নিয়ে শান্তি পেতে চেয়েছিলেন| কিন্তু তার দুর্বলতা এবং তার দ্বিধা তাকে ধ্বংস - এবং যোহন বাপ্তাইজকের হত্যার দিকে নিয়ে গিয়েছিল, কারণ সবশেষে রাজা হেরোদ যোহনের মুন্ডচ্ছেদ করেছিলেন!

যখন আমি রাজা হেরোদের সম্পর্কে পড়ি আমি সবসময়ে তার জন্যে দু:খ অনুভব করি| কিন্তু তারপরেই আমি তার উপরে ক্ষুব্ধ হই| তিনি এমনই একজন দুঃখী মূর্খ ছিলেন| তিনি পরিত্রাণ লাভের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিলেন| কিন্তু তাও তিনি তা কখনও লাভ করতে পারেননি| তিনি মন পরিবর্তনের এত কাছে এসেছিলেন| কিন্তু তাও তিনি নরকে গিয়েছিলেন| যখন আমি হেরোদের কথা চিন্তা করি তখন মিঃ গ্রিফিতের করা গানটি আমার আত্মাকে সর্বদা শীতল করে,

এখন প্রায় বিশ্বাস করতে রাজি হয়েছিলে;
খ্রীষ্টকে গ্রহণ করতে প্রায় রাজি হয়েছিলেন;
সহায়ক প্রায় হতে পারে না! প্রায় কিন্তু ব্যর্থ!
দু:খ, দুঃখ যা তিক্ত বিলাপ, প্রায় কিন্তু ব্যর্থ!
   (“Almost Persuaded” by Philip P. Bliss, 1838-1876) |

প্রায় রাজি হয়েছিলেন! দু:খ, দুঃখ যা তিক্ত বিলাপ -
প্রায় কিন্তু ব্যর্থ!

হেরোদ এবং যোহন বাপ্তাইজকের উপাখ্যান আমাদের একাধিক মহান খ্রীষ্টিয় সত্য দেখায়|

প্রথমত, পরিত্রাণ লাভের বাণী সর্বদা আপনাকে স্থির সিদ্ধান্ত নেওয়ার আহ্বান জানায়| আমাদের কাছে ‘‘সিদ্ধান্ত’’ শব্দটিকে খারাপ বলে মনে হয় - যেমন ‘‘সিদ্ধান্তবাদ’’ শব্দটিকে খারাপ বলে জানি| কিন্তু ‘‘সিদ্ধান্তবাদ’’ কেবলমাত্র খারাপ হওয়ার কারণ বেশির ভাগ লোক এর জন্যে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন! হেরোদ সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন| কিন্তু তার পরিবর্তে তিনি সামনে পিছনে দোদুল্যমান ছিলেন - এবং কখনও সেই সত্য সমর্থনের জন্যে সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি, যা যোহন বাপ্তাইজক তার কাছে প্রচার করেছিলেন| যোহনের প্রচারের সম্বন্ধে সবচেয়ে অসাধারণ বিষয়টি ছিল একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্যে তার আহ্বান| তিনি অনুতাপ করার কথা প্রচার করতেন এবং যারা তার প্রচার শুনেছেন তাদের থেকে একটা সিদ্ধান্তের দাবি জানাতেন| তিনি এমন ক্ষমতার সঙ্গে প্রচার চালাতেন যে লোকেরা কেঁদে ফেলতেন, ‘‘তবে আমাদের কি করিতে হইবে?’’ (লূক 3:10)| যখন খ্রীষ্ট এসেছিলেন তিনিও এইভাবেই প্রচার করেছিলেন| তিনি লোকদের সামনে মাত্র দুটি বিকল্প রেখেছিলেন| এটা ছিল স্বর্গ অথবা নরক, ধ্বংসপ্রাপ্ত হওয়ার প্রশস্ত পথ অথবা জীবন লাভের জন্যে সঙ্কীর্ণ পথ| বালুর উপরে নির্মিত বাড়ি অথবা পাথরের উপরে নির্মিত বাড়ি| ঈশ্বর অথবা ধনদৌলত| লোকদের যে কোন একটা পক্ষ অবলম্বন করতে হয়েছিল, হয় খ্রীষ্টের পক্ষ নয়তো তাঁর বিরুদ্ধ পক্ষ| খ্রীষ্টের সব প্রচার দাবি করত যে তারা তাঁর পক্ষে অথবা বিপক্ষে যাওয়ার যে কোন একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন| এটা সেই একইরকম পদ্ধতি ছিল যা অবলম্বনে পিতর পঞ্চসপ্তমীর দিনে প্রচার করেছিলেন| পিতর দাবি করতেন যে লোকেরা একটা কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন| এবং লোকেরা তাতে সাড়া দিয়েছিলেন, ‘‘আমরা কি করিব?’’ (প্রেরিত 2:37)| প্রেরিত’র সর্বশেষ অধ্যায়ে পৌলের প্রচার লোকদের দুটি দলে বিভক্ত করেছিল| ‘‘তাহাতে কেহ কেহ তাঁহার কথায় প্রত্যয় করিলেন, আর কেহ কেহ অবিশ্বাস করিলেন’’ (প্রেরিত 28:24)| তাদের একটা সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল! এবং খ্রীষ্ট বিশ্বাসের সমগ্র ইতিহাসের মধ্যস্থিত প্রত্যেক উদ্দীপনাতে ঈশ্বরের লোকেরা ঐভাবেই প্রচার করেছিলেন| যারা সেগুলি শুনেছিলেন তাদেরকে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল!

বর্তমানে আমরা বিভিন্ন ধরনের প্রচার শুনছি| কোন দাবি রাখা হচ্ছে না| কিছু প্রচারক মধুর স্বরে লোকদের আরোগ্য লাভের আহ্বান জানাচ্ছেন| কোন কোন প্রচারক লোকদের কোমল এবং সান্ত্বনাদানকারী সব গল্প শোনাচ্ছেন| আর অন্য প্রচারকরা লোকদের কাছে রক্তের প্রায়শ্চিত্ত ছাড়াই বাইবেলের নীরস ব্যাখ্যা করে চলেছেন| সেই অগ্নি কোথায়? যুদ্ধের সেই আহ্বান কোথায়? যুবকরা দলে দলে আমাদের মন্ডলী থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন তাতে আশ্চর্য্যের কিছুই নেই! অন্য একটি প্রসঙ্গে উপ-রাষ্ট্রপতি জন্ ন্যান্সী গার্‍নার (1933-1941) এর উদ্ধৃতি উল্লেখে বলা যায় - আজকের বেশির ভাগ প্রচারকের এক পাত্র উষ্ণ থুথুর মতন যোগ্যতাও নেই| হেরোদ এবং যোহন বাপ্তাইজকের কাহিনী আমাদের সেই ধরনের প্রচারের চরম অপদার্থতা দেখিয়ে দেয়| এটা আমাদের আবার মনে করায় যে খ্রীষ্ট একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণের আহ্বান জানান| প্রসঙ্গত বলছি, আপনি কি কোন সিদ্ধান্ত করেছেন? এটা কি আপনার জীবনকে প্রভাবিত করেছে? এটা কি আপনাকে পরিবর্তন করেছে?

হেরোদ ‘‘তাহাকে অচঞ্চলিতভাবে শুনেছিলেন|’’ হেরোদ সেই প্রচারককে পছন্দ করেছিলেন| এমনকী তার প্রচার শুনেও হেরোদ সেটা উপভোগ করতেন| কিন্তু তার উপরে সেই প্রচারের কোন প্রভাব ছিল না| আমি কখনও শুনতে পছন্দ করি না যে লোকেরা আমাকে বলছে যে আমি কি অসামান্য এক প্রচার করেছিলাম| তা থেকে আমি মোটেও বিশাল কোন আনন্দ পাই না| একমাত্র আমি আনন্দিত হই যখন দেখি যে কেউ কেউ তাদের পাপের জন্যে অনুতাপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং যীশুর অনুগ্রহে নিজেদের সমর্পণ করেছেন| একমাত্র বিষয় যা আমাকে আনন্দিত করে তা হল যখন প্রকৃত মন পরিবর্তন এবং জীবনের পরিবর্তনে কেউ কেউ যীশুতে বিশ্বাস স্থাপনের একটা নির্দ্দিষ্ট সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন| আমার প্রচার ঈশ্বরের দ্বারা আশীর্বাদ প্রাপ্ত কি না তা বোঝার সেই হল পরীক্ষা! আপনারা সেই প্রচার উপভোগ করলেন কি না সেটা নয়| আপনারা সেই প্রচারের দ্বারা বিচলিত হলেন কি না এমনকী সেটাও নয়, অথবা আপনারা আমাকে পছন্দ করেন কি না এবং আমার প্রচারে সন্তুষ্ট হয়েছেন কি না তাও নয়| সেই পরীক্ষা হল - এটা কি আপনাকে একটা সিদ্ধান্তের প্রতি, আপনার সমগ্র হৃদয় এবং আপনার সমগ্র জীবন সমর্পণ করে খ্রীষ্টের উপরে বিশ্বাস স্থাপনের নির্দ্দিষ্ট কার্যকলাপের প্রতি চালিত করেছে? এক ব্যক্তি বলেছিলেন, ‘‘তারা এর বেশি আর কি চায়?’’ খ্রীষ্ট দাবি করেন আপনার সমগ্র জীবন - এর সব কিছু!

কিন্তু সেখানে হেরোদের মতন লোকদের জন্যে দুঃখজনক কিছু একটা রয়েছে| তিনি প্রায় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন| খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করতে এবং একজন প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হয়ে উঠতে তাকে প্রায় প্ররোচিত করে ফেলা হয়েছিল| হেরোদের মতন লোকেরা কত দুঃখী এবং করুণা উদ্রেককারী| আপনি মন্ডলীতে আসছেন| আপনি আমাদের প্রচার করতে শুনছেন| এবং আপনি আবেগপূর্ণভাবে চালিত হচ্ছেন| আপনি অনুভব করেন যে আপনার যীশুকে বিশ্বাস করা উচিৎ| আপনি বলছেন আপনি তাঁকে বিশ্বাস করতে চান| কিন্তু আপনি কখনও তা করছেন না| যীশুকে বিশ্বাস করার পরিবর্তে আপনি তাঁকে বিশ্বাস করেছেন তা প্রমাণ করতে গিয়ে আপনি একটা অনুভূতির অন্বেষণ করছেন| এটা কখনও হবে না! কখনও না! কখনও না! কেন হবে না? তাঁকে বিশ্বাস করার আগে কিভাবে সম্ভব আপনার একটা ‘‘অনুভূতি’’ হওয়া যে আপনি তাঁকে বিশ্বাস করেছেন? এর কোন অর্থ হয় না! একমাত্র যে পথে আপনি যীশুকে বিশ্বাস করতে পারেন তা হল একটা অনুভূতির পরিবর্তে তাঁকে বিশ্বাস করার দ্বারা| যীশুকে বিশ্বাস করা থেকে আপনি ঠিক একধাপ দূরে আছেন| কিন্তু আপনি কখনও তা করছেন না| কি ধরনের অদ্ভূত লোক আপনি| রবিবারে রবিবারে আপনি আসছেন| কিন্তু পরিত্রাতাকে বিশ্বাস করতে আপনি অস্বীকার করছেন| এমনকী সেবার কাজ শেষ হওয়ার পরেও আপনি আমাদের সঙ্গে দেখা করতে আসছেন - কিন্তু তাঁকে বিশ্বাস করার কোন ইচ্ছাই আপনার নেই| আমি আপনাকে জিজ্ঞাসা করছি, ‘‘আপনি কি তাঁকে বিশ্বাস করেছেন?’’ আপনি বলছেন, ‘‘না|’’ আপনি বেশ জোর দিয়ে ‘‘না’’ বলছেন - যেন আপনি খুব নিশ্চিত আছেন যে আপনি বিশ্বাস করেননি| আপনি কেন এতটা নিশ্চিত হচ্ছেন? এটা হতে হয়েছে তার কারণ আপনি একটা অনুভূতি বা অন্য একটা কিছুর অন্বেষণ করছেন! সেটাই কারণ হতে হয়েছে! কিন্তু আমাকে আপনার কাছে নির্মমভাবে সৎ হতে দিন| যে ‘‘অনুভূতি’’ আপনি চাইছেন তা হল একটা শয়তান! দিয়াবল আপনার মনের সামনে সেই শয়তানকে ঝুলিয়ে রেখেছে| ‘‘আমাকে সেই অনুভূতি অবশ্যই পেতে হবে! আমি অতি জরুরীভাবে এটা চাইছি! সেই অনুভূতির শয়তান ছাড়া আমি কখনও সন্তুষ্ট হব না!’’ দিয়াবল যখন আপনাকে তার নিজের সম্মোহনের অধীনস্থ করে ফেলে, এবং আপনি তার দ্বারা আকৃষ্ট হলে - তখন সে আপনাকে একটি অনুভূতি দেবে! আপনি তখন এর দ্বারা এতটাই বশীভূত এবং আকৃষ্ট হবেন যে আপনি আর কখনও উদ্ধার লাভ করবেন না! সেই ‘‘অনুভূতি’’র দিয়াবল হবেন আপনার প্রণয়ী, আপনার প্রেমিক, আপনার উপাস্য বস্তু| যখন সেটা হয় তখন আপনি এমন একটা শক্তিশালী, সম্মোহনমূলক প্রভাবের অধীনে থাকেন যে যিনি আপনাকে রক্ষা করতে ক্রুশের উপরে প্রাণত্যাগ করেছিলেন, সেই প্রকৃত যীশুকে বিশ্বাস করতে আপনি আর কখনও সক্ষম হবেন না! এবং ‘‘অনুভূতির’’ সেই শয়তান আপনাকে আকৃষ্ট করে, বন্দী করে, তার ক্রীতদাসে পরিণত করে, আপনাকে টেনে নরকের সেই পাত্রের অভ্যন্তরে নামিয়ে আনবে| আমি প্রায় শুনতে পাচ্ছি যে সেই ‘‘অনুভূতির’’ শয়তান আপনার প্রতি হাসছে! ‘‘এবার তোমাকে পেয়েছি! এবার তোমাকে পেয়েছি! এখন থেকে চিরকালের জন্যে নরকে তুমি হলে আমার ক্রীতদাস!’’ হাসবেন না| লক্ষ লক্ষ লোক ভাবেন যে তারা পবিত্র আত্মাকে পেয়েছেন - যেখানে প্রকৃতভাবে তারা যা পেয়েছেন তা হল এক শয়তান| আত্মা-পরিপূর্ণ হওয়ার পরিবর্তে, তারা হলেন অশুচি আত্মাবিষ্ট! আপনাদের মধ্যে যারা একটা অনুভূতির অন্বেষণ করছেন এই প্রমাণ করতে যে তিনি উদ্ধারলাভ করেছেন তাদের সবাইকে আমি সাবধান করে দিচ্ছি - আমি আপনাকে সাবধান করছি! আপনারা গূঢ় বিষয় নিয়ে খেলা করছেন! আপনারা আগুন নিয়ে খেলছেন! ‘‘অনুভূতির’’ শয়তানের হাত থেকে নিজেকে মুক্ত করুন এবং ঈশ্বরের পুত্র, যীশুর কাছে নিজেকে সমর্পণ করুন, আপনাকে উদ্ধার করতে একমাত্র যিনি ক্রুশের উপরে রক্ত ঝরিয়েছিলেন এবং মৃত্যুবরণ করেছিলেন!

সেখানে নির্দ্দিষ্ট কয়েকজন প্রচারক আছেন যারা দাসত্ববন্ধনের উৎসে পরিণত হয়েছেন| আমার জানা কয়েকজন প্রচারক রয়েছেন যারা লোকদের নিজেদের প্রতি আকৃষ্ট করতেন, এবং তাদের মুক্তির প্রতিশ্রুতি দিতেন, যেখানে তারা যা করছিলেন সেটা সম্পূর্ণ শয়তানিক ক্রিয়াকর্ম| তারা তাদের অনুসরণকারীদের খ্রীষ্টের পরিবর্তে নিজেদের সঙ্গে বেঁধে ফেলছিলেন| কোন পরিস্থিতিতেই আমি যোহন বাপ্তাইজককে এই শ্রেণীর অন্তর্ভূক্ত করছি না|

হেরোদ যোহনকে কারাগারে বন্দী করেছিলেন, কারণ তার স্ত্রী হেরোদিয়াসকে ব্যাভিচারিণী বলার জন্যে হেরোদিয়াস যোহনকে ঘৃণা করতেন| বাইবেল বলছে যে, ‘‘হেরোদ যোহনকে ধার্ম্মিক ও পবিত্র লোক জানিয়া ভয় করিতেন|’’ তিনি যোহনকে একজন পবিত্র মানুষ হিসাবে দেখেছিলেন| সেইজন্যে হেরোদ যোহনকে দেখতে বারে বারে কারাগারে যেতেন| পাঠ্যাংশটি বলছে তিনি ‘‘তাঁহাকে রক্ষা করিতেন|’’ তার অর্থ হেরোদ ‘‘তাঁকে নিরাপদে রেখেছিলেন|’’ হেরোদ জানতেন যে সেখানে যোহনের সম্পর্কে কিছু পবিত্র এবং পৃথক বিষয় রয়েছে| হেরোদ ‘‘তাঁহার [যোহন] কথা শুনিতে ভালবাসিতেন|’’ তিনি এমন অনেক মানুষের মতন ছিলেন যারা একজন সাধুর আরাধনা করতেন| তারা জানতেন যে সাধু হলেন একজন ধার্মিক ব্যক্তি, যেমন সাধু অগাস্টিন| তারা সাধুর মুখের বাক্য অনুসারে হয়তো পাঠ করেছেন বা ধ্যান করেছেন, কিন্তু তারা কখনও খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করেননি, এমনকী অগাস্টিনের মত মানুষ তাদেরকে সেরকম করতে বলার পরেও| আমি মনে করি ক্যাথলিকরা সাধুদের যে চোখে দেখতেন সেইভাবেই হেরোদ যোহনকে দেখেছিলেন| ‘‘তিনি তাঁহার কথা শুনিতে ভালবাসিতেন|’’ কিন্তু এটা তাকে কোন সাহায্য করেনি!

হেরোদ যোহনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে নীচে কারাগারে যেতেন| তিনি জানতেন যে এতে তার স্ত্রী অসন্তুষ্ট হচ্ছেন| তাও তিনি যাওয়া চালিয়ে যেতেন| তিনি সেখানে যাওয়ার জন্যে আকর্ষণ অনুভব করতেন| তিনি অনুভব করতেন যেন কিছু একটা তাকে সেখানে টানছে, অপ্রতিরোধ্য কিছু একটা| যখন তিনি যোহনের কথা শুনতে যেতেন, তিনি ‘‘তাঁহার কথা শুনিতে ভালবাসিতেন|’’ পবিত্র আত্মা তাকে সেই ভাববাদীর কথা শুনতে আকর্ষণ করেছিলেন| সেখানে বহু মানুষ আছেন যারা এই একই কারণে মন্ডলীতে আসেন| তারা মন্ডলীতে থাকতে ভালবাসেন, এমনকী যদিও ধর্ম্মোপদেশ তাদের দোষী সাব্যস্ত করে| কিন্তু তারা খ্রীষ্টের প্রতি নিজেদের সমর্পণ করেন না| হেরোদ মন পরিবর্তনের প্রায় দোড়গোড়ায় পৌঁছে গিয়েছিলেন| কিন্তু তিনি কখনও মন পরিবর্তন করেননি| আর পরবর্তীতে হেরোদ কেন যোহন বাপ্তাইজকের মুন্ডচ্ছেদ করেছিলেন? এই মানুষ, হেরোদকে কিভাবে আমরা বুঝতে পারি?

যোহনের প্রচারের অধীনে হেরোদ ঈশ্বরের উপস্থিতি এবং ক্ষমতা উপলব্ধি করেছিলেন| তিনি জানতেন যে যোহন ঠিক কথা বলছিলেন| কিন্তু তবুও তিনি খ্রীষ্টের প্রতি নিজেকে সমর্পণ করেননি| তিনি বুঝেছিলেন যে যোহন তার কাছে কি প্রচার করছেন| কিন্তু তিনি খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করেননি| তিনি শিক্ষার পর শিক্ষা নিয়ে চলেছিলেন, কিন্তু খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করার জন্যে তিনি কখনও নির্দ্দিষ্টভাবে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেননি| তিনি তার জীবনে কোন পরিবর্তন আনতে চাননি| তাকে সেই মন্দ মহিলা হেরোদিয়াসের থেকে আলাদা হয়ে যেতে হত| তাকে তার জীবনের বিষয়গুলির পরিবর্তন করতে হত| প্রাচ্য জগতের অনেক যুবকই সেইরকমের| তাদের পিতামাতা তাদেরকে আমাদের মন্ডলীতে আসতে দেন, কিন্তু আমরা যা প্রচার করি সেই সম্বন্ধে তারা সম্পূর্ণভাবে সহমত হননা| তারা ভাবেন যে আমরা অতি কঠোর বা নিয়ন্ত্রিত| তাদের ছেলেমেয়েরা আমাদের মন্ডলীতে আসে - কিন্তু তাদের টেনে আনা হয়| এটা কি আপনার জন্যেও সত্যি? আপনার পিতামাতাও কি মনে করেন যে আমরা অতি কঠোর? তারা আপনাকে আসতে দিচ্ছেন, কিন্তু যখন তারা আপনার সঙ্গে কথা বলেন তখন আমাদের সমালোচনা করেন| তারা আপনাকে মন্ডলীতে বেশি সময় ব্যয় না করার কথা বলেন| তারা এইরকম বলেন, ‘‘তোমাকে কি এতটা সময় ধরে এখানে থাকতেই হবে?’’ কাজেই এই মন্ডলী এবং আপনার পিতামাতার টানাপোড়েনের মাঝে আপনি ছিন্নভিন্ন হয়ে যাচ্ছেন| আপনি জানেন যে আমরা সঠিক, কিন্তু আপনি আপনার পিতামাতাকেও সন্তুষ্ট করতে চাইছেন| আপনার অ-খ্রীষ্টিয় পিতামাতার বিরুদ্ধে গিয়ে, আমাদের পক্ষ অবলম্বনে আমাদের সঙ্গে দাঁড়াতে আপনি ভয় পাচ্ছেন| তারা ভুলে গিয়েছেন যীশুর সেই বাক্য, ‘‘যে কেহ পিতা কি মাতাকে আমা হইতে অধিক ভালবাসে, সে আমার যোগ্য নয়’’ (মথি 10:37)| হেরোদ একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সেইসঙ্গে তিনি হেরোদিয়াসকেও সন্তুষ্ট করতে চেয়েছিলেন| বাইবেল বলছে, ‘‘দ্বিমনা লোক, আপনার সকল পথে অস্থির’’ (যাকোব 1:8)| ডঃ চার্লস সি. রেইরী বলেছিলেন, ‘‘একজন দ্বিমনা ব্যক্তি [হইতেছেন] এমন এক ব্যক্তি যিনি বশ্যতা বিভক্ত করেন’’ (রেইরী স্টাডি বাইবেল)| হেরোদের যেখানে ভুল হয়েছিল সেটা কি এইরকমই নয়? তিনি একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হতে চেয়েছিলেন, তা সত্বেও তিনি হেরোদিয়াসকে সন্তুষ্ট করতে চেয়েছিলেন| তিনি দ্বিমনা ছিলেন| সেইজন্যে তিনি একজন প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসী হতে পারেননি|

অতি সম্প্রতি আমরা সেইরকম একটি প্রাচ্যদেশীয় মেয়েকে পেয়েছি| তিনি তার অ-খ্রীষ্টিয় পিতামাতাকে সন্তুষ্ট করতে চেয়েছিলেন| কিন্তু একইসঙ্গে তিনি খ্রীষ্ট বিশ্বাসীও হতে চেয়েছিলেন| তিনি দুইভাগে বিভক্ত হয়ে যাচ্ছিলেন যতক্ষণে তিনি পরিশেষে দেখেন যে তাকে অবশ্যই সম্পূর্ণভাবে যীশুর কাছে আসতে হবে| তিনি তার পিতামাতার বিরুদ্ধে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিলেন এবং সম্পূর্ণভাবে যীশুর কাছে এসেছিলেন| যে মুহূর্তে তিনি তা করলেন সেই মুহূর্তে তিনি রীতিমতো মন পরিবর্তন করেছিলেন| যীশুকে তিনি তার জীবনের প্রভু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিলেন| সমস্ত বিভ্রান্তি চলে গিয়েছিল এবং তিনি এখন হয়েছেন একজন মনোরম খ্রীষ্ট বিশ্বাসী| কিন্তু যোহন বাপ্তাইজক এবং হেরোদিয়াসের মধ্যে হেরোদ কার পক্ষে আছেন সেটা স্থির করেননি| সেইজন্যে তিনি কখনও প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীতে পরিণত হননি| তিনি মারা গিয়েছিলেন এবং নরকে গিয়েছিলেন| বাইবেল বলছে, ‘‘যাহার সেবা করিবে, তাহাকে অদ্য মনোনীত কর’’ (যিহোশূয় 24:15)| আপনার দিশাহারা পিতামাতা এবং খ্রীষ্ট এই দুইয়ের মধ্যে একজনকে আপনাকে অবশ্যই মনোনীত করতে হবে| আপনার দিশাহারা সব বন্ধু এবং খ্রীষ্টের মধ্যে আপনাকে অবশ্যই একটা বেছে নিতে হবে| পরিত্রাণ লাভ করার জন্যে এবং খ্রীষ্টের জন্যে স্পষ্ট সাক্ষ্য পেতে সেখানে আর কোন পথ নেই| হেরোদের মতন আগু-পিছু করবেন না| খ্রীষ্ট এবং মন্ডলীকে মনোনীত করুন| একটা স্পষ্ট সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন, ‘‘যাহার সেবা করিবে, তাহাকে অদ্য মনোনীত কর|’’ ‘‘দ্বিমনা লোক, আপনার সকল পথে অস্থির’’ (যাকোব 1:8)| যীশু বলেছিলেন, ‘‘যে কেহ পিতা কি মাতাকে আমা হইতে অধিক ভালবাসে, সে আমার যোগ্য নয়’’ (মথি 10:37)|

হেরোদ যোহনের প্রচার শুনতে যেতেন এবং ‘‘তাঁহার কথা শুনিয়া তিনি অনেক কিছু করিতেন|’’ হ্যাঁ, তিনি অনেক কিছু করেছিলেন| হ্যাঁ, সবকিছু করেছিলেন কিন্তু একটা কাজ বাদে যা হল অতি গুরুত্বপূর্ণ| কোন সন্দেহ নেই যে তিনি কয়েকটি পাপ কাজ বর্জন করেছিলেন| হ্যাঁ, ‘‘তিনি অনেক কিছু করিতেন,’’ কিন্তু তিনি কখনও সেই কাজটি করেননি যা যোহন তাকে করতে বলেছিলেন| তিনি কখনও খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করেননি! এটাই কি সেই কারণ নয় যে আপনি একজন প্রায় খ্রীষ্ট বিশ্বাসী? প্রায়, কিন্তু এখনও দিশাহারা! ‘‘অনেক কিছু’’ যথেষ্ট হয় না| এক যুবতী মহিলা বলেছিলেন, ‘‘তারা এর বেশি আর কি চান?’’ তার বলা উচিৎ ছিল, ‘‘ঈশ্বর এর বেশি আর কি চান?’’ আসলে ডাঃ মার্টিন লয়েড-জোন্স এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচার করেছিলেন, যা আমি গ্রহণ করেছি| ডাঃ লয়েড-জোন্স বলেছিলেন, ‘‘উহা কি যাহা আপনাকে পশ্চাৎ হইতে ধরিয়া রাখিতেছে? নিজেকে পরীক্ষা করুন| জ্ঞানী হউন এবং ইহাকে টানিতে দিন! ‘অনেক কিছু’ [যথেষ্ট] হয় না| ঈশ্বর চাহিতেছেন আপনার সম্পূর্ণ সমর্পণ, [শুধুমাত্র] কিছু নির্দ্দিষ্ট পাপ ত্যাগ করা নহে কিন্তু আপনার সমগ্র ইচ্ছা,’’ আপনার সমগ্র জীবন অবশ্যই খ্রীষ্টের প্রতি সমর্পণ করতে হবে! (D. Martyn Lloyd-Jones, M.D., “Missing the Mark”) |

আর মাত্র অন্য একটা বিষয়ে আমি বলতে চাইছি| 24 নং পদে, হেরোদিয়াস তার মেয়েকে যোহন বাপ্তাইজকের মস্তক যাচ্ঞা করতে বলেছিলেন| হেরোদ খুব দুঃখিত হয়েছিলেন, কিন্তু ‘‘যাহারা ভোজে বসিয়াছিল, তাহাদের ভয়ে, তাহাকে ফিরাইয়া দিতে চাহিলেন না’’ (মার্ক 6:26)| ওহ, এটা এইরকম হয়েছিল - তার নিজের সুখ্যাতি রক্ষা এবং অন্যদের উত্তম মতামত মান্য করার জন্যে| তার অন্তরে তিনি জানতেন যে এইসব লোক ভুল বলছে| অন্যদিকে, তিনি যোহনকে শ্রদ্ধা করতেন এবং জানতেন যে তিনি ঠিক কথা বলেছেন| তা সত্ত্বেও তিনি পাপীদের পক্ষ গ্রহণ এবং যোহনের প্রচার প্রত্যাখ্যান করেছিলেন| তিনি সেই অনন্তকালীন মুক্তি ত্যাগ করেছিলেন এবং নরকে গিয়েছিলেন কেবলমাত্র এইসব লোকেরা তার সম্বন্ধে কি ভাববে সেই ভয়ে ভীত থাকার কারণে| ওহ, কি উন্মত্ততা! যদিও সমগ্র জগৎ হয়তো আপনার প্রতি হাসছে এবং আপনাকে নিয়ে মজা করছে, যদিও আপনার গোটা পরিবার সহমত হচ্ছে যে আপনি একজন অন্ধবিশ্বাসী ধার্মিকে পরিণত হয়েছেন, যদিও সবাই আপনাকে বোকা বলছে, তাতে কি পার্থক্য তৈরী হয় - যতক্ষণ আপনি ঈশ্বরের দ্বারা গৃহীত হয়েছেন? কারণ তিনি একাই হলেন বিচারক!

ঈশ্বর আপনাকে যা বলছেন তাই করুন| তাঁর পুত্র যীশুকে বিশ্বাস করুন| এবং আপনার পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের, সমগ্র জগতকে, দেখিয়ে দিন যে আপনি এই নীচ জগৎ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন - এবং আপনি আপনার এই জীবন সম্পূর্ণভাবে যীশু খ্রীষ্টের প্রতি সমর্পণ করছেন!

খ্রীষ্ট সঠিক এবং সত্য তা একবার জেনে নিলে আপনি আর শান্তি পাবেন না যতক্ষণে আপনি নিজেকে তাঁর কাছে সম্পূর্ণভাবে সমর্পণ না করছেন| হতভাগ্য হেরোদ! যোহনের শিরচ্ছেদ করার পরে তার জীবন কি ভয়ানক ছিল! হেরোদের জীবনকে যোহন ভুতুড়ে এবং যন্ত্রণাদায়ক করে তুলেছিলেন| যখন হেরোদ খ্রীষ্টের সম্বন্ধে শুনলেন, তিনি তাকে যোহন বলে ভেবে নিলেন, মৃত্যু থেকে উঠে আসা যোহন| রাত্রিবেলা হেরোদের স্বপ্নকে যোহন ভুতুড়ে এবং যন্ত্রণাদায়ক করে তুলতেন! তিনি তার দিকে এগিয়ে আসা সেই প্লেটের স্বপ্ন দেখতেন যার উপরে যোহনের কাটা মুন্ডটি রাখা থাকত| যদিও আপনি সত্যকে অস্বীকার করেন তাও আপনি এর মাধ্যমে নয়| এটা আপনাকে তাড়া করে বেড়াবে এবং চিরকালের জন্যে যন্ত্রণা দেবে| এটা আপনাকে বিশ্রাম অথবা শান্তি দেবে না| যোহনের সম্বন্ধে হেরোদ প্রচন্ড দুঃস্বপ্ন দেখতেন - ‘‘ওহ, যোহন, কেন আমি আপনার কথা শুনি নাই? ওহ, যোহন, কেন আমি আমার আত্মাকে দূরে নিক্ষেপ করিয়াছিলাম? ওহ, যোহন, তাহারা আমাকে কি ভাবিবে সেই কারণে আমি কেন এত ভীত হইয়াছিলাম? ওহ, যোহন, আমি কত মূর্খ ছিলাম|’’

হেরোদ যোহনের শিরচ্ছেদ করার পরে তার জীবনের ছবিটি দেখুন| সেইরকমই হবে আপনার জীবন এবং এমনকী হতে পারে আরও ভয়ানক, যদি আপনি জগৎ ত্যাগ করার, এবং যীশু খ্রীষ্টে বিশ্বাস স্থাপন করার, এবং নিজেকে তাঁর প্রতি সমপর্ণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করেন| আপনাকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করার জন্যে অভিযুক্ত হওয়ার ভয়ে আমি ভীত নই| আমি নিশ্চিতভাবে আপনাকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করছি| যদি যীশু খ্রীষ্টের বিস্ময়কর ভালবাসা আপনাকে আকর্ষণ না করে তো একটা খ্রীষ্টবিহীন অনন্তকালের বিভীষিকার সাহায্য নিয়ে আমার সর্বশক্তি দিয়ে আমি আপনাকে ভয় দেখাব| অনন্ত অপরাধ, অনন্ত দুঃখ, অনির্বচনীয় যন্ত্রণা| এটাই আপনাদের সকলের জন্যে অপেক্ষা করে আছে যারা সবকিছু ত্যাগ করতে এবং খ্রীষ্টকে মনপ্রাণ দিয়ে আলিঙ্গন করতে অসমর্থ হয়েছেন| খ্রীষ্ট আপনাকে পাপ থেকে রক্ষা করুন, যেমন করার জন্যে তিনি অপেক্ষা করে আছেন| বিশ্বাসে খ্রীষ্টের কাছে আসুন এবং কোন বিষয় নয় শুধু তাঁকে বিশ্বাস করুন - এবং আপনি উদ্ধার লাভ করবেন| সেখানে আর কোন পথ নেই| আমেন| জন্ কেগান, অনুগ্রহ করে আসুন এবং যীশুর প্রতি কাউকে তার সমগ্র জীবন সমপর্ণ করানোর জন্যে আমাদের প্রার্থনায় পরিচালনা করুন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“Almost Persuaded” (Philip P. Bliss, 1838-1876) |