Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




‘‘নবলব্ধ’’ নতুন ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল !

THE “NEW” NEW BAPTIST TABERNACLE! (Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2017 সালের, 2রা জুলাই, প্রভুর দিনের সকালবেলা লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Morning, July 2, 2017

‘‘আহা তুমি আকাশমন্ডল বিদীর্ণ করিয়া নামিয়া আইস, পর্ব্বতগণ তোমার সাক্ষাতে কম্পিত হউক;’’ (যিশাইয় 64:1)|


ঈশ্বর যখন নেমে আসেন তখন ‘‘পর্ব্বতগণ তোমার [তাঁহার] সাক্ষাতে কম্পিত হউক|’’ তাঁর সাক্ষাতে পাহাড়প্রমান অবিশ্বাস কম্পিত হোক| তাঁর সাক্ষাতে সব সন্দেহর পাহাড় কম্পিত হোক| তাঁর সাক্ষাতে ভীতির পাহাড় কম্পিত হোক| তাঁর উপস্থিতিতে অহংকারের পাহাড় কম্পিত হোক| পাহাড়প্রমান হতাশা তাঁর সাক্ষাতে কম্পিত হোক| পাহাড়প্রমান স্বার্থপরতা তাঁর সাক্ষাতে কম্পিত হোক| সমস্ত শয়তানীয় অত্যাচার তাঁর সাক্ষাতে কম্পিত হোক| যখন ঈশ্বর উদ্দীপনায় নেমে আসেন তখন সমস্ত পর্ব্বত যা খ্রীষ্টের বিরুদ্ধে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল তা সবই কম্পিত হয়! ‘‘পর্ব্বতগণ তোমার সাক্ষাতে কম্পিত [একটি আগ্নেয়গিরি হইতে নির্গত গলিত লাভার ন্যায়] হউক!’’

প্রকৃত উদ্দীপনার প্রার্থনার অর্থ হল ঈশ্বরকে ধরে রাখা এবং তাঁকে যেতে না দেওয়া - যেমন যাকোব করেছিলেন যখন সারা রাত ধরে তিনি খ্রীষ্টের সঙ্গে প্রার্থনায় মল্লযুদ্ধ করেছিলেন - এবং বলেছিলেন, ‘‘আপনি আমাকে আশীর্ব্বাদ না করিলে আপনাকে ছাড়িব না’’ (আদিপুস্তক 32:26)| ড: লয়েড-জোনস বলেছিলেন যে উদ্দীপনার প্রার্থনা হল ‘‘ঈশ্বরকে ধরিয়া রাখা, তাঁহার নিকট সনির্বন্ধ মিনতি করা, তাঁহাকে যুক্তি প্রদর্শন করা, এমনকী সানুনয় আবেদন করা, এবং আমি বলিতেছি যে ইহা কেবলমাত্র তখনই হইবে যখন একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী এমন এক অবস্থাতে পৌঁছাইবেন যেস্থানে তিনি প্রকৃতভাবে প্রার্থনা করিতে শুরু করিবেন’’ উদ্দীপনার প্রার্থনা! (Lloyd-Jones, Revival, p. 305)|

কিন্তু উদ্দীপনার প্রার্থনা অবশ্যই আসতে হবে যিশাইয়’র মতন মানুষদের মধ্যে থেকে, সেইরকম একজন মানুষ যিনি সেই ভাববাদীর সঙ্গে একযোগে বলেছিলেন, ‘‘এই আমি, আমাকে পাঠাও’’ (যিশাইয় 6:8) - সেই ধরনের মানুষ যারা আমাদের ঈশ্বর ও তাঁর খ্রীষ্টের সেবাকাজের জন্যে স্বেচ্ছায় নিজেদের জীবন উৎসর্গ করতে প্রস্তুত! ড: এ. ডব্লিউ. টোজার বলেছিলেন,

‘‘যদি খ্রীষ্টধর্ম্মকে জীবিত অবস্থায় থাকিতে হয় তাহা হইলে তাহাকে অবশ্যই পুনরায় মানুষ পাইতে হইবে; সঠিক চরিত্রের মানুষ| তাহাকে অবশ্যই সেই ভীরু ব্যক্তিদিগকে পরিত্যাগ করিতে হইবে যাহাদের কথা বলিবার সাহস নাই...তাহাকে অবশ্যই সেই ব্যক্তিগণের অন্বেষণ করিতে হইবে যাহারা সেই চরিত্রের হইবে যাহা দ্বারা আত্মবিশ্বাসী ভাববাদী এবং শহীদগণ গঠিত... তাহারা ঈশ্বরের মানুষ এবং সাহসী মানুষ হইবেন...তাহাদের প্রার্থনা এবং শ্রমের মাধ্যমে [ঈশ্বর] দীর্ঘ বিলম্বিত উদ্দীপনা প্রেরণ করিবেন’’ (Dr. A. W. Tozer, We Need Men of God Again)|

এই মুহূর্তে আমাদের মন্ডলীতে ঠিক এই জিনিষই দরকার - ‘‘ঈশ্বরের মানুষ, এবং সাহসী মানুষ’’| আমাদের সেই সব মানুষদের দরকার যারা এই জগতের অসারতা প্রত্যক্ষ করেছেন, সেই সব মানুষ যারা নিশ্চয়তার তুলনায় বরং ত্যাগস্বীকার করতে চান| পুরুষ এবং মহিলা যারা ভয় থেকে মুক্ত, পুরুষ এবং মহিলা যারা সেই ভাববাদীর সাথে একযোগে বলবেন, ‘‘এই আমি, আমাকে পাঠাও’’ (যিশাইয় 6:8), যুবক এবং যুবতী যারা তাদের আত্মার গভীর থেকে প্রার্থনা করবেন,

‘‘আহা তুমি আকাশমন্ডল বিদীর্ণ করিয়া নামিয়া আইস, পর্ব্বতগণ তোমার সাক্ষাতে কম্পিত হউক; যেমন অগ্নি ঝোপ প্রজ্জ্বলিত করে, যেমন অগ্নি জল ফুটায় [তদ্রূপ হউক]; তোমার বিপক্ষদিগকে তোমার নাম জ্ঞাত কর; তোমার সাক্ষাতে জাতিগণ কম্পমান হউক’’ (যিশাইয় 64:1-2)|

যুবক যুবতীরা, জাগ্রত হন আর আপনাদের ঠোঁট সেই প্রার্থনা করার জন্যে দিন, যে প্রার্থনা অতি আগ্রহ এবং ক্ষমতার সঙ্গে উচ্চারিত হবে| যুবক যুবতীরা জেগে উঠুন, এবং ঈশ্বর পুত্র যীশু খ্রীষ্টের জন্যে আপনার শান্তি, আপনার সাফল্য, আপনার নিজস্ব জীবন উৎসর্গ করুন! যুবক যুবতীগণ, জাগ্রত হন এবং প্রার্থনায় আপনার সমস্ত শক্তি নিয়ে শয়তান ও তার দিয়াবলের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু করুন, সেই প্রার্থনা ঈশ্বরের গৌরবের জন্য করুন যেন উদ্দীপনার শক্তিশালী ধারা আমাদের মন্ডলীতে নেমে আসে! ‘‘অগ্রসর হও, আজি খ্রীষ্ট সেনা সব|’’ গানের পাতাতে এটা এক নম্বর গান| এই গানটি করুন! উঠে দাঁড়ান আর গানটি করুন!

অগ্রসর হও, আজি, খ্রীষ্ট সেনা সব,
সবে মিলে আইস করি বিজয় রব:
কর, খ্রীষ্টের নামে, গৌরব সংঘোষণ;
দূত ও নরে, সবে মিলে কর সংকীর্ত্তন|
অগ্রসর হও, আজি, খ্রীষ্ট সেনা সব,
সবে মিলে আইস করি বিজয় রব|
   (“Onward, Christian Soldiers,” Sabine Baring-Gould, 1834-1924)|

আপনারা বসতে পারেন|

যুবকগণ, আমিও যুবক ছিলাম, কিন্তু এখন আমি বৃদ্ধ হয়েছি| সেইরকম আমাদের নেতারাও বৃদ্ধ হয়েছেন| দীর্ঘ, ক্লান্তিকর মন্ডলী ভাঙ্গনের বছরগুলির মধ্যেও আমরা এই মন্ডলীকে পরিচালনা করেছি| এই মন্ডলীকে এখন যেমন দেখছেন, সেরকম করতে আমরা আমাদের সময়, আমাদের অর্থ এবং আমাদের যৌবনের বছরগুলি উৎসর্গ করেছি| আর এটা যথেষ্ট ভাল| আমরা এর মূল্য দিয়েছি| ইন্টারনেটে থাকা এই মন্ডলীর সারা পৃথিবীব্যাপী সেবাকাজের মূল্য আমরা দিয়েছি| কিন্তু আমাদের ভ্রু’এর উপরে আর যৌবনের শিশির পড়ে না| এই মন্ডলীকে পরবর্তী স্তরে নিয়ে যাওয়ার মত শক্তি বা অদম্য মানসিক উদ্যম আমাদের আর নেই| এই মন্ডলীকে এর উপরের ধাপের প্রতি পরিচালনা করার মত প্রাণশক্তি, জীবনীশক্তি বা ইচ্ছাশক্তি কোনটাই আমাদের আর নেই| এই মন্ডলীকে রক্ষা করার জন্যে আমরা আমাদের যৌবনের শক্তি ব্যয় করেছি, কিন্তু একটা ‘‘নবলব্ধ’’ নতুন ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাকল সৃষ্টি করার মত ক্ষমতা আমাদের আর নেই| আপনাদের নবীনদের অবশ্যই সেটা করতে হবে, অথবা এটা করা যাবে না| এটা করুন! এটা করুন! এটা করুন!

একদিন আমিও একজন অগ্নিগর্ভ যুবক পালক ছিলাম| বিদ্যুতসম ক্ষমতায় আমি রবিবারে তিনবার করে প্রচার করতে পারতাম| আমি 1,000 লোক সম্বলিত কোন সমাবেশের মনোযোগ ধরে রাখতে পারতাম, যাতে উপস্থিত লোকদের এক তৃতীয়াংশ প্রথমবারের জন্য সাক্ষাতে আসতেন| কিন্তু আমি এখন ছিয়াত্তর বছরের একজন ক্যানসার রোগাক্রান্ত জীবিত ব্যক্তি| কিন্তু আমি এখন সেই কাজের পক্ষে অতি বৃদ্ধ| দীর্ঘক্ষণ ধ্যান এবং প্রার্থনার পরে, আমি জানি যে আমরা আর অপেক্ষা করতে পারি না| আমি বলছি যে এখন আমার যুবকদের প্রতি নেতৃত্ব হস্তান্তরের কাজ শুরু করার প্রয়োজন হয়েছে - যখন এখানে থাকার এবং আপনাকে সাহায্য এবং পথপ্রদর্শন করার পক্ষে আমাদের হাতে এখনও অনেক সময় আছে| আগামি বসন্তে আমার এই সেবাকাজে থাকার ষাট বছর পূর্ণ হবে| ষাট বছর ধরে সেবাকাজ করার পরেও কয়েকজন প্রচারক এখনও পালক হয়েই আছেন| নিশ্চয়ই আমি অনুভব করি যে এখন আমার এক ধাপ নিচে নামার, এবং নেতৃত্বদানের চেয়ে বরং পথপ্রদর্শন করার সময় হয়েছে| অতএব, আমি প্রস্তাব করছি যে আমাদের মন্ডলীর উচিৎ জন শ্যমূয়েল কেগানকে এই সেবাকাজের প্রতি বৃত করা, এবং সেইসময়ে তিনি হবেন আমাদের মন্ডলীর পালক! সেই সময়ে, এমেরিটাস-পালক উপাধি নিয়ে আমি পিছিয়ে যাব এবং তার পথপ্রদর্শক হব| আমি আরও প্রস্তাব করছি যে সেই সময়ে এই সেবা কাজের প্রতি নোহ সং’কেও অনুমতি দেওয়া হোক, এবং এই মন্ডলীর ডিকন হিসাবে আরন ইয়ানসি, জ্যাক নেগানন, আবেল প্রুধোম্মে এবং ক্যু ডং লী’কে বৃত করা হোক, এবং যে আরন ইয়ানসি’কে স্থায়ীভাবে ‘‘ডিকনদের চেয়ারম্যান’’ খেতাব দেওয়া হোক| এই সুন্দর মানুষগুলির বেশ কয়েকজনকে পালাক্রমে আমাদের মন্ডলীর ‘‘কার্যকরী ডিকন’’ বানিয়ে, তখন আমরা একটা নতুন পদ্ধতি অবলম্বন করব| এই মুহূর্তটিকে বন্দী করার এবং আমাদের মন্ডলীর আলোকবর্ত্তিকা নবীনদের হাতে দেওয়ার এখনই হল উপযুক্ত সময়| ‘‘নবলব্ধ’’ নতুন ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাকলে পরিণত হতে তাদের অবশ্যই আমাদেরকে পরিচালনা করতে হবে| অগ্রসর হও, খ্রীষ্টসেনা সব! উঠে দাঁড়ান এবং দ্বিতীয় স্তবকটি গান এবং গলা মেলান|

প্রবল সেনা তুল্য খ্রীষ্টের মন্ডলী;
ত্রাতার পদচিহ্নে, সকলে চলি!
কেহ পৃথক নহি একাঙ্গ সকল;
একই আশা, একই সত্য, একই প্রেম সম্বল|
অগ্রসর হও, আজি, খ্রীষ্ট সেনা সব,
সবে মিলে আইস করি বিজয় রব|

তবুও আমার ষাট বছরের অভিজ্ঞতা থেকে আমি জানি যে কেবল আপনার যৌবন দিয়ে এই সব কাজ সম্পন্ন করা যাবে না| আমাদের অবশ্যই ঈশ্বরের আত্মার বিশুদ্ধ প্রবাহণ প্রয়োজন অথবা আপনি এটা করতে পারেন না|

ড: তিমথী লিন চীনা ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতে 24 বছর ধরে আমার পালক ছিলেন| ড: লিন একজন শক্তিশালী প্রার্থনার মানুষ ছিলেন| ড: লিন বলেছেন, ‘‘প্রার্থনার লক্ষ্য হইতেছে ঈশ্বরের উপস্থিতি অর্জন করা|’’ তিনি বলেছিলেন, ‘‘শেষের দিনের মন্ডলীকে অবশ্যই ঈশ্বরের উপস্থিতি অর্জন করিতে হইবে যদি উহা বিকশিত হইতে চায়| ঈশ্বরের উপস্থিতি ব্যাতীত সব প্রয়াস ব্যর্থ’’ এবং অকৃতকার্য্য হইবে| শয়তান জানে যে ঈশ্বরের উপস্থিতির ক্ষমতা ছাড়া আমরা বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হব না| ড: লিন বলেছিলেন যে আমরা খ্রীষ্টের দ্বিতীয় আগমনের যত কাছাকাছি হব, ‘‘প্রার্থনার বিরুদ্ধে শয়তান তত বেশি চাপ সৃষ্টি করিবে’’ (ড: লিনের লেখা বই, The Secret of Church Growth থেকে সব উদ্ধৃতি দেওয়া হয়েছে)| প্রেরিত পৌল বলেছিলেন, ‘‘কেননা রক্তমাংসের সহিত নয়’’...কিন্তু দুষ্টতার আত্মাগণের সহিত আমাদের মল্লযুদ্ধ হইতেছে (ইফিষীয় 6:12)| অন্ধকারের জগৎপতিদের বিরুদ্ধে আমরা কিভাবে মল্লযুদ্ধ করব? পৌল এর উত্তর দিয়েছিলেন| ‘‘সর্ব্ববিধ প্রার্থনা ও বিনতি সহকারে সর্ব্বসময়ে আত্মাতে প্রার্থনা কর‘‘ (ইফিষীয় 6:18)| যখন অন্য কেউ প্রার্থনা করছেন, তখন নেতা যেমন যেমন প্রার্থনা করে চলেছেন সেভাবে আপনার মনকে বাধ্য করুন তার প্রতিটি অনুরোধ শুনতে| প্রত্যেক অনুরোধ সমাপ্ত করার পরে, বলুন ‘‘আমেন|’’ সেটা নেতার প্রার্থনাকে আপনার নিজস্ব প্রার্থনায় পরিণত করাবে! সেটা আমাদের প্রার্থনাগুলিকে শয়তানের বিরুদ্ধে একটা শক্তিশালী বলে পরিণত করাবে! উঠে দাঁড়ান এবং দ্বিতীয় স্তবকটি আবার গান|

প্রবল সেনা তুল্য খ্রীষ্টের মন্ডলী;
ত্রাতার পদচিহ্নে, সকলে চলি!
কেহ পৃথক নহি একাঙ্গ সকল;
একই আশা, একই সত্য, একই প্রেম সম্বল|
অগ্রসর হও, আজি, খ্রীষ্ট সেনা সব,
সবে মিলে আইস করি বিজয় রব|

এবং আমাদের কাজে ঈশ্বরের নেমে আসার জন্যে - একটা শক্তিশালী উদ্দীপনায় ঈশ্বরের উপস্থিতি অবতরনের জন্যে প্রার্থনা করা আমাদের কাছে অবশ্যই মুখ্য হতে হবে!

‘‘আহা তুমি আকাশমন্ডল বিদীর্ণ করিয়া নামিয়া আইস, পর্ব্বতগণ তোমার সাক্ষাতে কম্পিত হউক’’ (যিশাইয় 64:1)|

ঈশ্বর যখন আমাদের মধ্যে নেমে আসেন তখন ‘‘পর্ব্বতগণ তোমার [তাঁহার] সাক্ষাতে কম্পিত হউক|’’ তাঁর সাক্ষাতে পাহাড়প্রমান অবিশ্বাস কম্পিত হোক! তাঁর সাক্ষাতে সব সন্দেহর পাহাড় কম্পিত হোক! তাঁর সাক্ষাতে সব ঈর্ষার পাহাড় কম্পিত হোক! তাঁর সাক্ষাতে যা আমাদের আলাদা করে রাখে পরস্পর থেকে সেই পর্বত কম্পিত হোক! এবং একে অন্যের জন্যে গভীর ভালবাসা তাঁর সাক্ষাতে কম্পিত হোক! সেই পর্বত যা আমাদের ঈশ্বর ও তাঁর খ্রীষ্টের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে তা আগ্নেয়গিরি থেকে নির্গত গলিত লাভার মতন গলে পড়ুক, আগুনের মত আমাদের প্রতি ধেয়ে আসুক, উদ্দীপনায় নেমে আসুক! একটা শক্তিশালী উদ্দীপনাতে আমাদের কাছে ঈশ্বরের উপস্থিতি নামিয়ে আনার জন্যে প্রতিদিন কঠোরভাবে প্রার্থনা করুন সেই আদেশ আমি আপনাদের দিচ্ছি! উদ্দীপনার প্রার্থনার অর্থ হল ঈশ্বরকে ধরে রাখা এবং যাকোবের মত করে প্রার্থনা করা, ‘‘আপনি আমাকে আশীর্ব্বাদ না করিলে আপনাকে ছাড়িব না|’’ যেমন ড: লয়েড-জোনস বলেছিলেন, ‘‘ঈশ্বরকে ধরিয়া রাখা, তাঁহার নিকট সনির্বন্ধ মিনতি করা, তাঁহাকে যুক্তি প্রদর্শন করা, এমনকী সানুনয় আবেদন করা... ইহা কেবলমাত্র তখনই হইবে যখন একজন খ্রীষ্ট বিশ্বাসী [উহার ন্যায় প্রার্থনা করেন, যেন তিনি উদ্দীপনার প্রার্থনার ন্যায় প্রার্থনা করিতেছেন],’’Revival, p. 305 |

আমরা আবার উদ্দীপনার জন্যে প্রার্থনা করি সেটা হয়তো আপনাদের মধ্যে কেউ কেউ চাইছেন না! আপনারা হয়তো এই ভাবছেন যে গত বছরের ‘‘উদ্দীপনার স্পর্শ’’ আমাদের জন্যে খুব একটা ভাল কিছু করেনি! কিন্তু আপনারা ভুল করছেন! গত বছরে আমরা উদ্দীপনার কেবলমাত্র একটুখানি ‘‘স্পর্শ’’ পেয়েছিলাম, কিন্তু দেখুন তার ফলস্বরূপ কি ঘটেছিল - জন কেগান প্রতিরোধ করা বন্ধ করেছিলেন এবং সুসমাচার প্রচারের কাজে আত্মসমর্পণ করেছেন! আমরা একজন নতুন পালক পেলাম - এবং তিনি সেই উদ্দীপনার ‘‘স্পর্শ’’ থেকে বেরিয়ে এলেন! গত বছরের উদ্দীপনার ‘‘স্পর্শ’’ থেকে আমরা আরন ইয়ানসি, নোহ সং, এবং জ্যাক নেগানন’কে পেয়েছি! যত লোককে আমরা এতদিন পর্যন্ত ব্যাপ্তাইজিত করার জন্যে পেয়েছি তার তুলনায় পরবর্তী ধাপে অন্তত তিনগুণ বেশি লোককে আমরা পাব! কোথা থেকে এত নতুন মনপরিবর্তনকারী আসছেন? তার আসছেন উদ্দীপনার সেই ছোট্ট ‘‘স্পর্শ’’ থেকে যা ঈশ্বর গত গ্রীষ্মে আমাদের কাছে পাঠিয়েছিলেন, সেইখান থেকেই তারা আসছেন! দ্বিতীয় স্তবকটি আবার গান! উঠে দাঁড়ান এবং গানটি করুন!

প্রবল সেনা তুল্য খ্রীষ্টের মন্ডলী;
ত্রাতার পদচিহ্নে, সকলে চলি!
কেহ পৃথক নহি একাঙ্গ সকল;
একই আশা, একই সত্য, একই প্রেম সম্বল|
অগ্রসর হও, আজি, খ্রীষ্ট সেনা সব,
সবে মিলে আইস করি বিজয় রব|

আপনারা বসতে পারেন|

গত বছরে যখন আমি উদ্দীপনা সেবা বন্ধ করেছিলাম তখন আমি আপনাদের বলেছিলাম যে আমরা শুধুমাত্র উদ্দীপনার একটু ‘‘স্পর্শ’’ পেয়েছি, কিন্তু এই বছরে ঈশ্বরের উপস্থিতির একটা বিরাট ধারাবর্ষণ আমরা ভালভাবে পেতে পারি| আমার ষাট বছরের অভিজ্ঞতা থেকে আমি জানি যে এরকম ঘটতে পারে| একটা সংকীর্ণ খানা পরিস্কারক ব্যক্তি পাওয়ার আগেই আপনি উদ্দীপনার ‘‘স্পর্শ’’ পেতে পারেন! চীনা মন্ডলীতে বাস্তবিক তাই ঘটেছিল| এইভাবে এটি এসেছিল| প্রথম - একটা স্পর্শ! দ্বিতীয় - একজন খানা পরিস্কারক! আমি আমার জীবনে তিনটি শক্তিশালী উদ্দীপনা প্রত্যক্ষ করেছি! আমি জানি এখানে আমাদের মন্ডলীতে ঈশ্বর আবার এটা করতে পারেন! এবং আমি জানি যে এই নবীন যুবকদের হাতে শুধু নেতৃত্বের ভার অর্পণ করে আমাদের মন্ডলী না হবে শক্তিশালী অথবা না পাব আমরা একটা ‘‘নবলব্ধ’’ নতুন ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাকল, যদি না আমরা ঈশ্বরের পবিত্র উপস্থিতির শক্তিশালী ক্ষমতা নিজেদের মধ্যে নামানোর জন্যে প্রার্থনা করি!

‘‘আহা তুমি আকাশমন্ডল বিদীর্ণ করিয়া নামিয়া আইস, পর্ব্বতগণ তোমার সাক্ষাতে কম্পিত হউক’’ (যিশাইয় 64:1)|

অনুগ্রহ করে উঠে দাঁড়ান এবং 3 নম্বর গানটি করুন, পল রাডের, 1879-1938 এর লেখা ‘‘প্রাচীন-কালের শক্তি’’ গানটি|

তোমার আশীষের জন্য আমরা একত্রিত, আমরা আমাদের ঈশ্বরের অপেক্ষা করি;
যিনি আমাদের প্রেম করেন, ও তাঁর রক্তে কিনেছেন তাঁকে আমরা বিশ্বাস করি|
হে আত্মা, এখন বিগলিত হও আর আমাদের সমস্ত হৃদয়ে প্রবাহিত হও,
প্রাচীন সময়ের শক্তিসহ উপর হইতে আমাদের প্রতি প্রবাহিত হও|

আমরা তাঁর শক্তিতে গৌরব করব, আশ্চর্য্য অনুগ্রহে আমরা গাইব;
তোমার প্রতিজ্ঞানুসারে, আমাদের মাঝে, আস, ওহ আস, আর তোমার স্থান নাও|
হে আত্মা, এখন বিগলিত হও আর আমাদের সমস্ত হৃদয়ে প্রবাহিত হও,
প্রাচীন সময়ের শক্তিসহ উপর হইতে আমাদের প্রতি প্রবাহিত হও|

তোমার সামনে আমাদের নত কর, আর বিশ্বাসে আমাদের আত্মায় প্রেরণা দাও,
যতদিন দাবি করি, বিশ্বাসে, পবিত্র আত্মা ও অগ্নির সেই প্রতিজ্ঞা|
হে আত্মা, এখন বিগলিত হও আর আমাদের সমস্ত হৃদয়ে প্রবাহিত হও,
প্রাচীন সময়ের শক্তিসহ উপর হইতে আমাদের প্রতি প্রবাহিত হও|
   (“Old-Time Power,” Paul Rader, 1879-1938) |

আমার প্রিয় বন্ধু, আপনার পাপের দেনা শোধ করতে যীশু খ্রীষ্ট ক্রুশের উপরে মৃত্যুবরণ করেছিলেন| আপনার সমস্ত পাপ ধুয়ে দিতে যীশু খ্রীষ্ট সেই ক্রুশের উপরে রক্ত ঝরিয়েছিলেন| যীশু খ্রীষ্ট মৃত্যু থেকে পুনরুত্থিত হয়েছেন| আপনার জন্যে প্রার্থনারত থেকে, তিনি স্বর্গে বিরাজ করছেন| শুধুমাত্র তাঁকেই বিশ্বাস করুন| শুধুমাত্র তাঁকেই বিশ্বাস করুন| এখন শুধুমাত্র তাঁকেই বিশ্বাস করুন| তিনি আপনাকে উদ্ধার করবেন| তিনি আপনাকে উদ্ধার করবেন| তিনি আপনাকে এখনই উদ্ধার করবেন!

এক পাপী স্ত্রীলোক ফরীশী শিমোনের বাড়িতে যীশুর কাছে এসেছিলেন| বাইবেল বলছে,

‘‘আর দেখ, সেই নগরে এক পাপিষ্ঠা স্ত্রীলোক ছিল; সে যখন জানিতে পাইল, তিনি সেই ফরীশীর বাটীতে ভোজনে বসিয়াছেন, তখন একটি শ্বেত প্রস্তরের পাত্রে সুগন্ধি তৈল লইয়া আসিল, এবং পশ্চাৎ দিকে তাঁহার চরণের নিকটে দাঁড়াইয়া রোদন করিতে করিতে চক্ষের জলে তাঁহার চরণ ভিজাইতে লাগিল, এবং আপনার মাথার চুল দিয়া তাহা মুছাইয়া দিল, আর তাঁহার চরণ চুম্বন করিতে করিতে সেই সুগন্ধি তৈল মাখাইতে লাগিল’’ (লূক 7:37-38)|

এই স্ত্রীলোকটি একজন পাপী বলে নগরে পরিচিত ছিলেন| লোকেরা জানতেন যে তিনি একজন অতি পাপীষ্ঠা স্ত্রীলোক| তার খুব বদনাম ছিল| যখন যীশু আহার করছিলেন সেইসময়ে তিনি গিয়ে যীশুর পিছনদিকে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন এবং চোখের জলে তাঁর পা ভিজিয়ে দিয়েছিলেন, এবং তাঁর পায়ে চুমু খেয়েছিলেন| তিনি যীশুর কাছে এসেছিলেন|

‘‘পরে তিনি সেই সেই স্ত্রীলোককে কহিলেন, তোমার পাপ সকল ক্ষমা হইয়াছে| তখন যাহারা তাঁহার সঙ্গে ভোজনে বসিয়াছিল, তাহারা মনে মনে বলিতে লাগিল, এ কে যে পাপক্ষমাও করে? কিন্তু তিনি সেই স্ত্রীলোককে কহিলেন, তোমার বিশ্বাস তোমাকে পরিত্রাণ করিয়াছে; শান্তিতে প্রস্থান কর’’ (লূক 7:48-50)|

তিনি অতি পাপিষ্ঠা ছিলেন| কিন্তু তিনি কোনভাবে যীশুর কাছে এসেছিলেন| তিনি তাঁর কাছে এসেছিলেন এবং তাঁর পায়ে চুমু খেয়েছিলেন| এবং যীশু তাকে বলেছিলেন, ‘‘তোমার পাপ সকল ক্ষমা হইয়াছে|’’ একমাত্র তিনি যা করেছিলেন তা হল তিনি যীশুর কাছে এসেছিলেন| কিন্তু সেটাই যথেষ্ট ছিল! স্ত্রীলোকটির সমস্ত পাপ ক্ষমা করা হয়েছিল আর তিনি উদ্ধার পেয়েছিলেন!

উদ্ধার পাওয়ার জন্যে যা কিছু সমস্ত আপনাকে করতে হবে সেই সব হচ্ছে এই একই জিনিষ যা স্ত্রীলোকটি করেছিলেন| সহজভাবে যীশুর কাছে আসার দ্বারা তিনি পরিত্রাণ পেয়েছিলেন| আর যীশু আপনাদের বলছেন,

‘‘...আমার নিকটে আইস, আমি তোমাদিগকে বিশ্রাম দিব’’ (মথি 11:28)|

যদি আপনি এক্ষুনি যীশুর কাছে আসেন, আজ সকালেই, তিনি আপনার সমস্ত পাপ ক্ষমা করবেন এবং আপনার আত্মাকে উদ্ধার করবেন, ঠিক যেমন বাইবেলের সময়ে তিনি লোকদের উদ্ধার করেছিলেন সেইভাবে| যদি আপনি তাঁর কাছে আসেন তবে তিনি আপনাকে উদ্ধার করবেন| যে রক্ত তিনি ক্রুশের উপরে ঝরিয়েছিলেন তা দিয়ে তিনি আপনার সমস্ত পাপ ধুয়ে দেবেন| তিনি আপনাকে তাঁর ধার্ম্মিকতার বস্ত্র পরিধান করাবেন| তিনি আপনাকে উদ্ধার করবেন| আপনাকে সর্বসাকুল্যে যা করতে হবে তা হল তাঁর কাছে আসতে হবে| স্বর্গে, ঈশ্বরে দক্ষিণে, তিনি এই মুহূর্তে বিরাজমান| আপনি কি তাঁর কাছে আসবেন? একটা পুরানো গানে বলছে,

আমার বন্ধন, দু:খ ও অন্ধকার থেকে,
   যীশু, আমি আসি, যীশু, আমি আসি;
তোমার স্বাধীনতায়, আনন্দে ও জ্যোতিতে,
   যীশু, আমি তোমার নিকট আসি -
আমি স্বয়ং ব্যাতিরেকে তোমার প্রেমে বাস করিতে,
   হতাশা ব্যাতিরেকে উর্দ্ধে মহাউল্লাসে,
কপোতের ন্যায় চিরকাল উর্দ্ধে উড্ডয়ন,
   যীশু, আমি তোমার নিকট আসি|
(“Jesus, I Come,” William T. Sleeper, 1819-1904) |


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ নোহ সং: যিশাইয় 64:1-4 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“Revive Thy Work, O Lord” (Albert Midlane, 1825-1909) |