Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




অসহায়দের জন্যে পরিত্রাণ

SALVATION FOR THE HELPLESS
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2017 সালের, 3রা জুন, শনিবার সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Saturday Evening, June 3, 2017


আসুন আমরা একসাথে উঠে দাঁড়াই আর অনুগ্রহ করে আপনার বাইবেলে আমাদের পাঠ্যাংশ, মার্ক লিখিত সুসমাচারটি দেখুন| মার্ক 9:26-27,

‘‘তখন সে চেঁচাইয়া তাহাকে অতিশয় মুচড়াইয়া দিয়া বাহির হইয়া গেল; তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে| কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল’’ (মার্ক 9:26-27)|

যীশু এই ছেলেটিকে দিয়াবলের কবল থেকে রক্ষা করেছিলেন| একটা কারণে এই গল্পটি বলা হয়েছিল| আজকের দিনে কিভাবে যীশু একজন দিশাহারা ও অসহায় আত্মাকে রক্ষা করতে পারেন তা দেখানোর জন্যে এই গল্পটি আমাদের বলা হয়েছিল| এই ধরনের অনেক গল্প, মথি, মার্ক, লূক এবং যোহন লিখিত, চারটি সুসমাচারের মধ্যে রয়েছে| সেগুলি দেখাচ্ছে যে কিভাবে অসহায় আত্মাগণ রক্ষা পেয়েছিলেন| এই গল্পগুলি আমাদের কাছে পরিত্রাণের বিভিন্ন উপায়গুলির কথা বলে| ঐগুলি পড়ে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারি|

এই ছেলেটি দিয়াবলবিষ্ট ছিল| তার মধ্যে একটি দিয়াবল বাস করছিল যা তাকে কালা এবং বোবা করে রেখেছিল| সে কানে শুনতে পেত না এবং কথা বলতে পারত না| পরিত্রাণ পাওয়ার আগে প্রত্যেকেই এইভাবে থাকেন| ঈশ্বর কি বলছেন সেটা পরিত্রাণ পাওয়ার আগে আপনি শুনতে পান না| আর আপনি এই বিষয়ে কোন কথাও বলতে পারেন না|

কিন্তু খ্রীষ্ট দিয়াবলকে বের করে দিয়েছিলেন| দিয়াবলের তুলনায় খ্রীষ্ট বেশি শক্তিশালী| সেই কারণে খ্রীষ্ট আপনাকে রক্ষা করতে পারেন! তিনি এই ছেলেটিকে রক্ষা করেছিলেন এবং তিনি আপনাকে রক্ষা করতে পারেন! এটা কোন ব্যাপার নয় যে তারা কতটা অসহায়, খ্রীষ্ট যে কাউকে রক্ষা করতে পারেন! এবং খ্রীষ্ট দিয়াবলের কবল থেকে আপনাকে মুক্ত করতে পারেন! এই গল্পটি থেকে আপনি পরিত্রাণের বিষয়ে তিনটি মহান সত্য শিখে নিতে পারেন|

I. প্রথমত, আপনি এমন একজনের মতন যিনি মৃত |

এই পাঠ্যাংশটি বলছে,

‘‘তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে’’ (মার্ক 9:26)|

যতক্ষণ না তাকে রক্ষা করা হচ্ছে প্রত্যেকের অবস্থা এই রকম| বাইবেল শিক্ষা দেয় যে সমগ্র মানবজাতি আত্মিকভাবে মৃত| আপনি আত্মিকভাবে মৃত! বাইবেল বলছে,

‘‘যেমন এক মনুষ্য দ্বারা পাপ, ও পাপ দ্বারা মৃত্যু জগতে প্রবেশ করিল; আর এই প্রকারে মৃত্যু সমুদয় মনুষ্যের কাছে উপস্থিত হইল, কেননা সকলেই পাপ করিল...’’ (রোমীয় 5:12)|

আমাদের আদি পিতামাতা ঈশ্বরের বিরুদ্ধে পাপ করেছিলেন - এবং তারা আত্মিকভাবে মৃত হয়েছিলেন| আত্মিকভাবে মৃত অবস্থাতে, আদমকে ঈশ্বর থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়েছিল| আর সেই আত্মিক মৃত্যু পরবর্তীতে মানব সমাজের প্রত্যেকটি সদস্যের কাছে নেমে এসেছে| সেখানে এতগুলি করে ধর্ম থাকার এই হচ্ছে কারণ| আধ্যাত্মিক অন্ধকার এবং মৃত্যু থাকার কারণে, মানবজাতি বহু রকম ধর্মের সৃষ্টি করেছে| কিন্তু মানবজাতি প্রকৃত এবং জীবন্ত ঈশ্বরকে খুঁজে পায়নি|

আথিনীতে একদল লোককে উদ্দেশ্যে করে বলার সময়ে, প্রেরিত পৌল বলেছিলেন,

‘‘কেননা বেড়াইবার সময়ে তোমাদের উপাস্য বস্তু সকল দেখিতে দেখিতে একটী বেদি দেখিলাম, যাহার উপরে লিখিত আছে, ‘অপরিচিত দেবের উদ্দেশ্যে|’ অতএব তোমরা যে অপরিচিতের ভজনা করিতেছ, তাঁহাকে আমি তোমাদের নিকটে প্রচার করি’’ (প্রেরিত 17:23)|

তাদের অনেক প্রতিমা ও অনেক দেবতা ছিল| কিন্তু প্রকৃত ঈশ্বর তাদের কাছে অপরিচিত ছিলেন| তারা তাঁকে বলতেন, ‘‘অপরিচিত দেবতা|’’

আর আজ রাত্রে ঈশ্বর আপনাদের কাছে অপরিচিত| তিনি হলেন আপনাদের, ‘‘অপরিচিত দেবতা|’’ ঈশ্বর মনে হয় আপনাদের কাছে প্রকৃত হননি| ঈশ্বরের বিষয়ের প্রতি আপনি মৃত| আপনি আত্মিকভাবে মৃত| আপনি আমাদের গল্পের সেই বালকটির মতন|

‘‘তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে’’ (মার্ক 9:26)|

বাইবেল বলছে,

‘‘তোমরা, তোমাদের পাপে মৃত’’ (কলষীয় 2:13)|

বাইবেল বলছে যে আপনি হলেন,

‘‘অপরাধে ও পাপে মৃত’’ (ইফিষীয় 2:1)|

অপব্যয়ী পুত্রের পিতা বলেছিলেন,

‘‘আমার এই পুত্ত্র মরিয়া গিয়াছিল’’ (লূক 15:24)|

তিনি অপব্যয়ী পুত্রের ভাইকে বলেছিলেন,

‘‘তোমার এই ভাই মরিয়া গিয়াছিল’’ (লূক 15:32)|

আজ রাত্রে এখানে উপস্থিত প্রত্যেকটি পরিত্রাণপ্রাপ্ত লোক একদা এইরকম ছিলেন| আমরা সকলেই পাপে মৃত ছিলাম| ঈশ্বর আমাদের কাছে অপরিচিত ছিলেন| আমরা ঈশ্বরের সম্বন্ধে সচেতন ছিলাম না| বাইবেল আমাদের কাছে রূপকথার গল্পের মতন ছিল, কারণ আমরা আত্মিকভাবে মৃত ছিলাম|

‘‘তাহারা চিত্তে অন্ধীভূত, ঈশ্বরের জীবনের বহির্ভূত হইয়াছে, আন্তরিক অজ্ঞানতা প্রযুক্ত, হৃদয়ের কঠিনতা প্রযুক্ত হইয়াছে’’ (ইফিষীয় 4:18)|

আমরা পরিত্রাণ পাওয়ার আগে আমাদের সকলের এটাই হচ্ছে বর্ণনা! এবং আপনাকে অবশ্যই যীশুর মাধ্যমে পরিত্রাণ লাভ করতে হবে| আত্মিক মৃত্যু থেকে একমাত্র যীশুই আপনাকে রক্ষা করতে পারেন|

II. দ্বিতীয়ত, আপনাকে যীশুর ‘‘হস্ত দ্বারা উঠানো হইয়াছে’’ |

আমাদের পাঠ্যাংশ বলছে,

‘‘তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে| কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল...’’ (মার্ক 9:26-27)|

এটা একটা বিস্ময়কর পদ! ‘‘কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে’’! এটা হচ্ছে জাগরণের একটা বর্ণনা| এটা প্রতিরোধমূলক অনুগ্রহের একটা চিত্র| এটা আমাদের পরিত্রাণের সেই কাহিনি| এ হল অসহায়দের জন্যে পরিত্রাণ!

‘‘সেই সকলেতে তোমরা পূর্ব্বে চলিতে, এই জগতের যুগ অনুসারে, আকাশের কর্ত্তৃত্বাধিপতির অনুসারে, যে আত্মা এখন অবাধ্যতার সন্তানগণের মধ্যে কার্য্য করিতেছে, সেই আত্মার অধিপতির অনুসারে চলিতে| সেই লোকদের মধ্যে আমরাও সকলে পূর্ব্বে আপন আপন মাংসের অভিলাষ অনুসারে আচরণ করিতাম, মাংসের ও মনের বিবিধ ইচ্ছা পূর্ণ করিতাম, এবং অন্য সকলের ন্যায় স্বভাবত: ক্রোধের সন্তান ছিলাম| কিন্তু ঈশ্বর, দয়াধনে ধনবান্ বলিয়া, আপনার যে মহাপ্রেমে আমাদিগকে প্রেম করিলেন, তৎপ্রযুক্ত আমাদিগকে, এমন কি, অপরাধে মৃত আমাদিগকে, খ্রীষ্টের সহিত জীবিত করিলেন - অনুগ্রহেই তোমরা পরিত্রাণ পাইয়াছ - এবং তিনি খ্রীষ্ট যীশুতে আমাদিগকে তাঁহার সহিত উঠাইলেন ও তাঁহার সহিত স্বর্গীয় স্থানে বসাইলেন; উদ্দেশ্য এই, খ্রীষ্ট যীশুতে আমাদের প্রতি প্রদর্শিত তাঁহার মধুর ভাব দ্বারা যেন তিনি আগামী যুগপর্য্যায়ে আপনার অনুপম অনুগ্রহ-ধন প্রকাশ করেন| কেননা অনুগ্রহেই, বিশ্বাস দ্বারা তোমরা পরিত্রাণ পাইয়াছ; এবং ইহা তোমাদের হইতে হয় নাই, ঈশ্বরেরই দান; তাহা কর্মের ফল নয়, যেন কেহ শ্লাঘা না করে’’ (ইফিষীয় 2:2-9)|

সেটাই হচ্ছে অনুগ্রহের দ্বারা পরিত্রাণ! সেটাই হল খ্রীষ্টের দ্বারা পরিত্রাণ! সেটাই হল স্বর্গের পথ! এবং এই হল একমাত্র পথ!

‘‘তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে| কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল...’’ (মার্ক 9:26-27)|

যীশু আসার আগে, আপনি একটি নিরুদ্বেগ এবং অ-জাগরিত অবস্থার মধ্যে ছিলেন| আপনার আত্মার প্রতি কি হতে চলেছে সেই সম্বন্ধে আপনি কিছুমাত্র গ্রাহ্য করতেন না| আপনি হলেন মার্ক নয় পদের বালকটির মতন|

‘‘তাহাতে লোকদের মধ্যে একজন উত্তর করিল, হে গুরু, আমার পুত্রটিকে আপনার কাছে আনিয়াছিলাম, তাহাকে বোবা আত্মায় পাইয়াছে’’ (মার্ক 9:17)|

ঐ পথেই আমি ছিলাম| পাশের বাড়ির লোক আমাকে একটি ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতে নিয়ে গেছিলেন| তারা আমাকে মন্ডলীতে নিয়ে গেছিলেন, ঠিক যেমন এই মানুষটি তার ছেলেকে যীশুর কাছে নিয়ে গেছিলেন| কিন্তু আমি ঈশ্বরের সম্বন্ধে, খ্রীষ্টের সম্বন্ধে, বাইবেলের সম্বন্ধে কিছুই জানতাম না| আমি কখনো বাইবেল পড়িনি| আমি মথির সুসমাচার খুঁজে পাচ্ছিলাম না| আমি সেটা খুঁজতে, বাইবেলে আদিপুস্তকের অংশে আঙুল চালাতে শুরু করেছিলাম| যতক্ষণে আমি মথি খুঁজে পেলাম ততক্ষণে ধর্ম্মোপদেশ প্রায় শেষ হয়ে এসেছে! কিন্তু তারা আমাকে মন্ডলীর ভিতরে নিয়ে গেছিলেন| আপনার প্রতি সাক্ষ্য দিতে এবং আপনাকে খ্রীষ্টের প্রতি আকর্ষণ করতে ঈশ্বর খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের ব্যবহার করেন, যেমন এই মানুষটি করেছিলেন, যিনি তার ছেলেকে খ্রীষ্টের কাছে নিয়ে এসেছিলেন|

তখন আপনি জাগরণের অভিজ্ঞতা পেতে শুরু করবেন| এটা খুব দ্রুত, বা খুব দীর্ঘ সময় নিয়ে ঘটতে পারে| লোকেরা পৃথক পৃথক ধরনের হয়ে থাকে| কিন্তু জাগরণ হল একটি ভয়ানক জিনিষ| পৌলকে পৃথিবীতে নিক্ষেপ করা হয়েছিল| পঞ্চসপ্তমীতে লোকদের হৃদয় বিদ্ধ করা হয়েছিল| ক্রুশের উপরে দস্যু তার নিজের পাপ অনুভব করেছিলেন| এটা একটা ভয়ানক জিনিষ| জন কেগান বলেছিলেন, ‘‘আমি অনুভব করতাম যেন মারা যাচ্ছি| আমি হাসতে পারতাম না| আমি শান্তি খুঁজে পেতাম না| এত যাতনা অনুভব করা থেকে আমি বিরত থাকতে পারিনি| আমি আর এ জিনিষ বহন করতে পারছিলাম না|’’ পবিত্র আত্মা তাকে পাপের চেতনা দিতে আরম্ভ করেছিলেন| এমি জাবালাগা বলেছিলেন, ‘‘পবিত্র আত্মা আমাকে আমার পাপের চেতনা দিয়েছিলেন| আমি নিদারুণ বিরক্ত ও অতিশয় লজ্জিত ছিলাম| আমি জানতাম ঈশ্বর আমার সব পাপ দেখেছেন| শুচিকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীদের মধ্যে আমার নিজেকে এক কুষ্ঠ রোগীর মতন মনে হত|’’ জ্যাক নগানন্ বলেছিলেন, ‘‘াঅমি করেছি এমন পাপের কথা আমি স্পষ্টভাবে মনে করতে পারছিলাম - আমি এক ভয়ংকর পাপী ছিলাম|’’

‘‘তাহারা তাহাকে তাঁহার নিকটে আনিল; তাঁহাকে দেখিবামাত্র সেই আত্মা তাহাকে অতিশয় মুচড়াইয়া ধরিল, আর সে ভূমিতে পড়িয়া ফেনা ভাঙ্গিয়া গড়াগড়ি দিতে লাগিল’’ (মার্ক 9:20)|

একেবারে ঠিক একইরকম ঘটনার কথা জানা গেছে যা প্রথম মহা জাগরণের সময়ে এবং ল্যুইস দ্বীপপুঞ্জের উদ্দীপনার সময়ে অনেক লোকের ক্ষেত্রে হয়েছিল| পাপের চেতনার অধীনে এসে তাদের অনেকেই চিৎকার করে কাঁদছিলেন এবং মাটীতে পরে গড়াগড়ি দিচ্ছিলেন| আমেরিকাতেও আবার যে কোন দিনে এইরকম হয়তো হবে| এটা একটা ‘‘হাস্যকর ‘উদ্দীপনা’’’ হবে না! মার্ক নবম পদের বালকটি হাসছিল না ! প্রকৃত উদ্দীপনা পাপের চেতনা উৎপাদন করে, অট্টহাসি নয়!!! মহা উদ্দীপনাতে লোকেরা কখনো কখনো পাপের চেতনার অধীনস্ত হয়ে চিৎকার করে মাটীতে পড়ে যান| এই মুহূর্ত্তে ভারত এবং চীনদেশে এরকম ঘটনা প্রায়ই ঘটছে - তাদের পাওয়া উদ্দীপনাতে|

যারা জাগরিত হয়েছেন তারা প্রত্যেকেই নিজেদের পাপে নিজেরা দোষী বলে অনুভব করবেন| পবিত্র আত্মা আপনার পাপ আপনার সামনে প্রকাশ করে দেন|

‘‘আর তিনি আসিয়া পাপের সম্বন্ধে, ধার্ম্মিকতার সম্বন্ধে ও বিচারের সম্বন্ধে, জগৎকে দোষী করিবেন| পাপের সম্বন্ধে, কেননা তাহারা আমাতে বিশ্বাস করে না’’ (যোহন 16:8-9)|

আপনার মধ্যে কি পাপের চেতনা আছে? আপনার পাপের জন্য আপনি দু:খিত হয়েছেন তা কি আপনি অনুভব করেন? আপনার পাপের জন্যে আপনার বিবেক কি বিব্রত হয়? আপনি কি অনুভব করেন যে যীশুর দ্বারা আপনার ক্ষমা পাওয়ার প্রয়োজন আছে? আরও বেশি চেতনা লাভের জন্যে অপেক্ষা করবেন না ! চেতনা আপনাকে রক্ষা করবে না! চেতনার কোন পরিমানই আপনাকে রক্ষা করবে না! এক্ষুনি ঈশ্বর পুত্রের কাছে আসুন ! এক্ষুনি আসুন ! পাপের চেতনার উচিৎ আপনাকে যীশুর প্রতি পরিচালিত করা| যীশুই হলেন একমাত্র সেই যিনি আপনার চেতনার উপশম করতে পারেন!

হে পতনের দ্বারা পরিশ্রান্ত, ভারাক্রান্ত, চূর্ণ ও ভগ্ন, আমার নিকটে আসুন;
যদি তুমি তোমার উত্তমের অপেক্ষা কর, তুমি কখনই আসতে পারবে না|
      (“Come, Ye Sinners, Poor and Wretched” by Joseph Hart, 1712-1768) |

এখন আসুন এবং যীশুতে বিশ্বাস স্থাপন করুন, এমনকী যদি মনে করেন আপনি এখনও যথেষ্ট চেতনাপ্রাপ্ত হননি তবুও আসুন - আর তিনি আপনাকে রক্ষা করবেন! ‘‘যদি তুমি তোমার উত্তমের অপেক্ষা কর, তুমি কখনই আসতে পারবে না|’’ এখনই আসুন! ঈশ্বরের পুত্র, যীশুকে বিশ্বাস করুন! তিনি আপনাকে এখনই উদ্ধার করবেন!

আপনার পাপের দেনা শোধ করতে যীশু ক্রুশের উপরে মৃত্যুবরণ করেছিলেন| তাঁর রক্ত আপনার পাপ ধুয়ে দূরে সরিয়ে দিতে পারে| মৃত্যু থেকে খ্রীষ্ট পুনরুত্থিত হয়েছিলেন| উপরে স্বর্গে - খ্রীষ্ট ঈশ্বরের ডানদিকে বসে রয়েছেন| খ্রীষ্টের কাছে আসুন! খ্রীষ্টের কাছে আসুন! খ্রীষ্টের কাছে আসুন! খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করুন! খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করুন! খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করুন এবং আপনাকে উদ্ধার করা হবে!

III. তৃতীয়ত, খ্রীষ্টের সম্মুখীন হওয়ার জন্যে আপনি উঠেছেন |

‘‘কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল’’ (মার্ক 9:27)|

যীশুর কাছে কিভাবে আসতে হয় তা জানার দরকার আপনার তার তুলনায় বেশি নেই - যতটা এই বালকটির প্রয়োজন হয়েছিল জানার যে কিভাবে উঠতে হবে| ‘‘যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল|’’ যদি আপনি খ্রীষ্টের কাছে আসতে চান, তবে আপনাকে খ্রীষ্টের কাছে আনা হবে সেই একই শক্তির দ্বারা যা বালকটিকে মাটী থেকে তুলেছিল| যীশু এই কথা বলেছেন! যীশু বলেছিলেন,

‘‘পিতা যে সমস্ত আমাকে দেন, সে সমস্ত আমারই কাছে আসিবে; এবং যে আমার কাছে আসিবে, তাহাকে আমি কোনমতে বাহিরে ফেলিয়া দিব না’’ (যোহন 6:37)|

কেউ হয়তো বলতে পারেন, ‘‘আমি নিশ্চিত নই যে ঈশ্বর আমাকে খ্রীষ্টের কাছে এনেছিলেন কি না|’’ সেটা একটা বোকার মতন চিন্তাভাবনা| আপনি ঐটা জানতে পারেন না, কারণ একমাত্র ঈশ্বর সেটা জানেন| এই ধরনের ঈশ্বরতত্ত্বমূলক অনুমান নিয়ে বসে থেকে আপনার সময় নষ্ট করবেন না| যখন অন্যেরা ঈশ্বরতত্ত্ব নিয়ে তর্কবিতর্ক করছেন, আপনি সেইসময়ে খ্রীষ্টের কাছে চলে আসুন! তাদের তর্ক চলাকালীন আপনাকে উদ্ধার করা হবে! যীশু বলেছিলেন,

‘‘যে আমার কাছে আসিবে, তাহাকে আমি কোনমতে বাহিরে ফেলিয়া দিব না’’ (যোহন 6:37)|

খ্রীষ্ট আপনাকে বাইরে ফেলে দেবেন না| খ্রীষ্ট আপনাকে মৃত্যুর মাঝে ছেড়ে দেবেন না আর নরকেও যেতে দেবেন না| খ্রীষ্ট আপনার পাপ ক্ষমা করবেন এবং আপনাকে রক্ষা করবেন, ঠিক যেভাবে তিনি সেই গল্পের বালকটিকে রক্ষা করেছিলেন| আমি আপনার কাছে সনির্বন্ধ মিনতি করছি| আমি আপনাকে উদ্বুদ্ধ করছি| আমি আপনাকে উৎসাহিত করছি| আমি আপনাকে অনুরোধ করছি| আমি আপনাকে আদেশ দিচ্ছি| আপনার চিরন্তন আত্মার স্বার্থে, খ্রীষ্টের কাছে আসুন! শান্তিপূর্ণভাবে থাকতে হলে এছাড়া আর কোন পথ নেই! একমাত্র যীশুই আপনাকে শান্তি দিতে এবং আপনার পাপ ক্ষমা করতে পারেন! নোহ সং বলেছিলেন,

‘‘খ্রীষ্ট ছাড়া আমি ছিলাম এক আশাহীন পাপী, উলঙ্গ এবং অন্ধ| আমি তাঁহাকে প্রেম করি কারণ তিনি প্রথম আমাকে প্রেম করিয়াছিলেন...আমার পাপের দেনা শোধ করিতে, আমার জন্যে ক্রুশের উপরে যীশুর রক্তক্ষরণ এবং আমার জন্যে তাঁহার প্রেম, আমি সর্বদা স্মরণে রাখিব| পাপের স্রোত হইতে তিনি আমাকে উদ্ধার করিয়াছেন|’’

আমার বন্ধন, এবং রাত্রি হইতে, যীশু, আমি আসিয়াছি, যীশু, আমি আসিয়াছি;
তোমার মুক্তিতে, আনন্দে, এবং জ্যোতিতে, যীশু, আমি তোমার নিকট আসিয়াছি;
আমার রোগ হইতে তোমার স্বাস্থ্যে, আমার চাওয়া হইতে তোমার সম্পদে,
আমার পাপ হইতে এবং তোমাতে, যীশু, আমি তোমার নিকট আসিয়াছি|
      (“Jesus, I Come” by William T. Sleeper, 1819-1904) |

যীশু খ্রীষ্টের দ্বারা আপনার মুক্তি হওয়ার বিষয়ে আমরা আপনার সঙ্গে কথা বলতে চাই| এক মিনিটের মধ্যে, আপনি চলে আসুন এবং প্রথম দুটি সারিতে রাখা চেয়ারের একটিতে বসুন| আমেন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ নোহ সং: মার্ক 9:17-27 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“Yes, I Know!” (by Anna W. Waterman, 1920) |


খসড়া চিত্র

অসহায়দের জন্যে পরিত্রাণ

SALVATION FOR THE HELPLESS

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র|

‘‘তখন সে চেঁচাইয়া তাহাকে অতিশয় মুচড়াইয়া দিয়া বাহির হইয়া গেল; তাহাতে বালকটী মরার মতন হইয়া পড়িল, এমন কি অধিকাংশ লোক বলিল, সে মরিয়া গিয়াছে| কিন্তু যীশু তাহার হাত ধরিয়া তাহাকে তুলিলে সে উঠিল’’ (মার্ক 9:26-27)|

I. প্রথমত, আপনি এমন একজনের মতন যিনি মৃত, মার্ক 9:26; রোমীয় 5:12;
প্রেরিত 17:23; কলসীয় 2:13; ইফিষীয় 2:1; লূক 15:24, 32; ইফিষীয় 4:18 |

II. দ্বিতীয়ত, আপনাকে যীশুর ‘‘হস্ত দ্বারা উঠানো হইয়াছে’’, মার্ক 9:27a;
ইফিষীয় 2:2-9; মার্ক 9:17, 20; যোহন 16:8-9 |

III. তৃতীয়ত, খ্রীষ্টের সম্মুখীন হওয়ার জন্যে আপনি উঠেছেন, মার্ক 9:27b;
যোহন 6:37 |