Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




পাপীদের জন্য রুটির যাচ্ঞা - এক নতুন চিন্তাধারা !

ASKING BREAD FOR SINNERS – A NEW THOUGHT!
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2017 সালের, 22শে এপ্রিল, শনিবারের সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের ব্যাপটিষ্ট
ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Saturday Evening, April 22, 2017


মাত্র কয়েক মিনিট আগেই জন্ শ্যমূয়েল কেগান লূক 11:5-13 পদগুলি পাঠ করে শুনিয়েছেন| কিন্তু আমি চাই আপনারা সেগুলি আবার দেখুন| এটা স্কোফিল্ড স্টাডি বাইবেলের 1090 পৃষ্ঠাতে রয়েছে| এটা হচ্ছে সেই নাছোড়বান্দা বন্ধুর দৃষ্টান্ত| আজ রাত্রে আমি এই দৃষ্টান্ত থেকে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আপনাদের সামনে তুলে ধরছি|

প্রথমত, দৃষ্টান্তটিতে তিনজন লোক আছেন|

‘‘আর তিনি তাঁহাদিগকে কহিলেন, তোমাদের মধ্যে কাহারও যদি বন্ধু থাকে, আর সে যদি মধ্যরাত্রে তাহার নিকটে গিয়া বলে, ‘বন্ধু, আমাকে তিনখানা রুটী ধার দেও, কেননা আমার এক বন্ধু পথে যাইতে যাইতে আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’’ (লূক 11:5-6)|

সেই প্রথম ‘‘বন্ধু’’ হলেন এমন একজন যার কাছে প্রচুর পরিমানে রুটী আছে| তিনি হলেন পিতা ঈশ্বর| দ্বিতীয় বন্ধুটি হলেন সেই মানুষ যিনি রুটী ভিক্ষা করছেন| ইনি হলেন সেই খ্রীষ্ট বিশ্বাসী, যার সেই রুটীর প্রয়োজন রয়েছে| তৃতীয় বন্ধু হলেন সেই মানুষ যিনি খ্রীষ্ট বিশ্বাসীর কাছে আসেন| সে হল এক দিশাহারা মানুষ, একজন যিনি উদ্ধার প্রাপ্ত হননি| ইনিই হলেন সেই লোক যার রুটীর প্রয়োজন রয়েছে| আপনি এবং আমি যারা প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসী তারা ঈশ্বর এবং তাদের মাঝখানে দাঁড়িয়ে রয়েছি যারা এখনও দিশাহারা হয়ে আছেন| এই দৃষ্টান্তটিতে ‘‘রুটী’’ বলতে কি বোঝানো হয়েছে? এর আগে আমাদের মধ্যে কেউ কেউ ভাতেন যে রুটী মানে হল সেই পবিত্র আত্মা| কিন্তু এখন আমার মনে হয় যে সেটা ভুল| সত্যিই, 13 নং পদে বলা আছে যে প্রার্থনার উত্তরে, পবিত্র আত্মাকে প্রদান করা হয়ে থাকে,

‘‘অতএব তোমরা মন্দ হইয়াও যদি তোমাদের সন্তানদিগকে উত্তম উত্তম দ্রব্য দান করিতে জান, তবে ইহা কত অধিক নিশ্চয় যে, স্বর্গস্থ পিতা, যাহারা তাঁহার কাছে যাচ্ঞা করে, তাহাদিগকে পবিত্র আত্মা দান করিবেন’’ (লূক 11:13)|

আমি এখন দৃঢ়প্রত্যয়ী যে সেই ‘‘রুটী’’ পবিত্র আত্মা নয়| লূকের এই দৃষ্টান্তের উপরে ড: জন আর. রাইস বিশদভাবে লিখেছিলেন (Prayer: Asking and Receiving, Sword of the Lord, 1970, p. 70)| ‘‘রুটি’’ বিষয়ে, ড: রাইস বলেছেন যে এর অর্থ হল খ্রীষ্ট| ‘‘আমিই সেই জীবন-খাদ্য|’’ (যোহন 6:35)| এর আগে আমি ভাবতাম ‘‘রুটী’’ বলতে পবিত্র আত্মাকে বোঝাচ্ছে| কিন্তু আমি ভুল করতাম| রুটী মানে হচ্ছে স্বয়ং খ্রীষ্ট| নতুন নিয়মে এই বিষয়টি স্পষ্ট করে বলা আছে| ‘‘জীবন খাদ্য’’ হিসাবে যীশুর বিষয়ে সেখানে প্রায় একটা গোটা অধ্যায় লিখিত হয়েছে| যোহনের ষষ্ঠ অধ্যায়ে যীশু কি বলেছেন সেটা শুনুন:

‘‘কেননা ঈশ্বরীয় খাদ্য তাহাই, যাহা স্বর্গ হইতে নামিয়া আইসে, ও জগৎকে জীবন দান করে’’ (যোহন 6:33)|

‘‘আমিই সেই জীবন-খাদ্য’’ (যোহন 6:35)|

‘‘আমিই জীবন-খাদ্য’’ (যোহন 6:48)|

‘‘আমিই সেই জীবন্ত খাদ্য’’ (যোহন 6:51)|

‘‘আর আমি যে খাদ্য দিব, সে আমার মাংস’’ (যোহন 6:51)|

বারে বারে আমাদের বলে দেওয়া হয়েছে যে যীশু নিজেই হলেন ‘‘জীবন খাদ্য|’’

তাহলে লূক 11:6 পদে সেই খ্রীষ্ট বিশ্বাসী কেন বলেছেন যে, ‘‘কেননা আমার এক বন্ধু...আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’? এর কারণ যে তাদের ‘‘জীবন-খাদ্য’’ খেতে দেওয়ার জন্যে আমরা শক্তিহীন! আমাদের আত্মা জয়ের কাজ এবং প্রচারের কাজের মধ্যে, সাধারণভাবে তাদের জীবন খাদ্য দেওয়ার মত ক্ষমতা আমাদের নেই! আমরা সুসমাচার জানি, কিন্তু আমরা অনুভব করছি যে আমাদের কোন ক্ষমতা নেই, সুতরাং আমরা জানি, ‘‘কেননা আমার এক বন্ধু...আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’ (লূক 11:6)|

সেটা আমারও স্বীকারোক্তি - ‘‘তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই|’’ আজকের দিনে অনেক যুবকই এইরকম অনুভব করেন যখন তারা কোন একটি ব্যাপটিষ্ট মন্ডলী পরিদর্শন করেন| তারা অনুভব করেন যে তাদের যা কিছু দরকার সেগুলি মন্ডলী তাদের সামনে রাখতে পারছে না| আমাদের বেশীর ভাগ ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতেই, ‘‘শুধু কয়েকটি সমসাময়িক গান ছাড়া তাদের সামনে রাখার মতন আর কিছুই নেই|’’ কিভাবে আমি তাদের ঘৃণা করবো! তাদের সবকয়টিই শুনতে একরকম লাগে! সেগুলি হল সব ‘‘আরাধনা সঙ্গীত’’ - এবং সেগুলির মধ্যে এমন কিছুই নাই যাতে একজন পাপীকে তার জীবনে যীশুর প্রয়োজনের বিষয়ে ভাবতে বাধ্য করানো যায়! তাদের সামনে রাখার মতন আমার কাছে কিছুই নেই! কিছুই না! কিছুই না! কেবল একটি জীর্ণ ‘‘আরাধনা’’ সঙ্গীত ছাড়া আর কিছুই নেই! কিছুই না! কিছুই না! তাদের সামনে রাখার মতন কিছুই নেই! কিছুই না! কিছুই না! ধূলার মতন শুকনো, প্রাণহীন, বাইবেলের পদ অনুসরণকারী ব্যাখ্যা ছাড়া আর কিছুই নেই| মৃত ‘‘আরাধনা’’ সঙ্গীত এবং একটা নিস্তেজ ও বিরক্তিকর বাইবেল অধ্যয়ণ ছাড়া আর কিছু নেই| আপনি অন্য কোন এক রাত্রে সেটা শুনে থাকবেন! কোন স্বাস্থ্যবান, স্বাভাবিক যুবক এর দ্বারা সাহায্যপ্রাপ্ত হতে পারে না| একমাত্র প্রাণবন্ত বিষয় ছিল পল রেডারের বিখ্যাত, ‘‘Alive Again’’ (পুনর্জীবিত হউন) ইস্টার সঙ্গীতটি গাওয়া| একটা অর্ধ-মৃত সেবা দ্বারা আমরা এতটাই সম্মোহিত হয়েছিলাম যে আমাকে ঘামতে ও চিৎকার করে উঠতে হয়েছিল যাতে গানটি সঠিকভাবে গাইবার জন্যে সকলে যথেষ্ট সচেতন হয়! আমাদের মন্ডলী জগৎ থেকে দিশাহারা যুবকদের জয় করতে পারে না তাতে বিস্ময়ের কিছুই নেই! ইতিমধ্যে মন্ডলীতে অবস্থানকারী যুবকদের 90% কে আমরা হারিয়েছি তাতে বিস্ময়ের কিছু নেই! আমি যখন যুবক ছিলাম তখন আমার বেলাতেও যে তাই হয়েছিল তাতে বিস্ময়ের কিছুই নেই| আমার মন্ডলীতে এমন কিছুই ছিল না যা আমার মন স্পর্শ করতে পারত| সেটা ছিল মৃত এবং শুকনো আর বাসি| আমার প্রথম মন্ডলীতে আমাকে চ্যালেঞ্জ করার মতন কোন কিছুই ছিল না| প্রত্যেক সভাতে আমার মন অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যেত| আমার মন অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যেত কারণ সেখানে যীশু থাকতেন না| আমার কাছে মনে হত যেন সব সেবাকাজগুলি কেবল মন্ডলীর মেয়েদের খুশী রাখার জন্যে পরিকল্পিত হচ্ছে| আমার সামনে রাখার মতন তাদের কাছে কিছুই ছিল না! টিভিতে চার্লস স্ট্যানলী, অথবা ইন্টারনেটে পল চ্যাপেলের দিকে একবার তাকিয়ে দেখুন| তাদের পাপের, তাদের একাকীত্বের এবং তাদের অনন্ত নিয়তির উত্তর হিসাবে, যীশু খ্রীষ্টের সামনে কোন কিছু রাখার পক্ষে মৃত, নীরস, ও অচিত্তাকর্ষক| ‘‘কেননা আমার এক বন্ধু পথে যাইতে যাইতে আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই!’’ আমি রিক্ ওয়ারেনের মন্ডলীতে গিয়েছি| ডালাসের প্রথম ব্যাপটিষ্ট মন্ডলীতে আমি গিয়েছি| আমি আমাদের BBFI মন্ডলীতে গিয়েছি! সেগুলো মনে হয় এতটাই মাদকাসক্ত যে ‘‘তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’ বলে তারা মোটেও উপলব্ধি করে না|

9 এবং 10 নং পদে এর উত্তর রয়েছে|

‘‘আর আমি তোমাদিগকে বলিতেছি, যাচ্ঞা কর, তোমাদিগকে দেওয়া যাইবে; অন্বেষণ কর, পাইবে; দ্বারে আঘাত কর, তোমাদের জন্য খুলিয়া দেওয়া যাইবে| কেননা যে কেহ যাচ্ঞা করে, সে গ্রহণ করে, এবং যে অন্বেষণ করে, সে পায়; আর যে দ্বারে আঘাত করে, তাহার জন্য খুলিয়া দেওয়া যাইবে| তোমাদের মধ্যে এমন পিতা কে, যাহার পুত্ত্র রুটী চাহিলে তাহাকে পাথর দিবে? কিম্বা মাছ চাহিলে মাছের পরিবর্ত্তে সাপ দিবে? কিম্বা ডিম চাহিলে তাহাকে বৃশ্চিক দিবে? অতএব তোমরা মন্দ হইয়াও যদি তোমাদের সন্তানদিগকে উত্তম উত্তম দ্রব্য দান করিতে জান, তবে ইহা কত অধিক নিশ্চয় যে, স্বর্গস্থ পিতা, যাহারা তাঁহার কাছে যাচ্ঞা করে, তাহাদিগকে পবিত্র আত্মা দান করিবেন?’’ (লূক 11:9-13)|

যীশু এই দৃষ্টান্তের সমাপ্তি টেনে আমাদের বলছেন অন্বেষণ করতে, ক্রমাগত দ্বারে আঘাত ও যাচ্ঞা করা চালিয়ে যেতে যতক্ষণ না আমাদের স্বর্গস্থ পিতা ‘‘যাহারা তাঁহার কাছে যাচ্ঞা করে, তাহাদিগকে পবিত্র আত্মা দান’’ করছেন (লূক 11:13)| ক্রমাগত যাচ্ঞা করতে থাকুন (গ্রীক ভাষায় তাই অর্থ হয়)| ক্রমাগত অন্বেষণ করে যান! ক্রমাগত দ্বারে আঘাত করতে থাকুন! ক্রমাগত যাচ্ঞা করতে থাকুন!

আপনি দেখুন, সেবাকাজের মধ্যে পবিত্র আত্মাকে আমাদের অবশ্যই পেতে হবে| পবিত্র আত্মাকে আমাদের অবশ্যই পেতে হবে অথবা যীশুকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে হবে না - এবং এমনকী যীশু হয়তো উপস্থিতও হবেন না! আর একটি লোকও উদ্ধার পাবেন না! পরিত্রাতা 8 নং পদে বলছেন,

‘‘আমি তোমাদিগকে বলিতেছি, সে যদ্যপি বন্ধু বলিয়া উঠিয়া তাহা না দেয়, তথাপি উহার আগ্রহ প্রযুক্ত উঠিয়া উহার যত প্রয়োজন, তাহা দিবে’’ (লূক 11:8)|

KJV’র মধ্যে ‘‘নাছোড়বান্দা’’ বলে অনুবাদিত গ্রীক শব্দের অর্থ হল ‘‘লজ্জাহীনভাবে বিদ্যমান|’’ বিদ্যমানতা - এর মানে হল প্রত্যেক সেবাকাজের জন্য আমাদের পবিত্র আত্মার শক্তির জন্যে প্রার্থনা করতে হবে| প্রান্তরে ‘‘মান্না’’ পচে যেত যদি ইস্রায়েলীয়রা সেটা রাত্রিভোর পর্য্যন্ত রেখে দেওয়ার চেষ্টা করত| আজকের দিনেও এটা সেইরকমই| প্রার্থনা সভা এবং সেবাকাজ সবই ‘‘পচে’’ যাবে যদি আমরা প্রত্যেকটি প্রার্থনা সভা এবং প্রত্যেকটি সেবাকাজের প্রারম্ভে অনুষ্ঠিত প্রার্থনাতে ‘‘লজ্জাহীনভাবে বিদ্যমান’’ না থাকি!

আমাদের সভা থেকে আমরা যীশুকে বাইরে বের করে আটকে দিয়েছি - ঠিক যেমন করে লাওডিসিয়ার মন্ডলীতে তাঁকে প্রকাশিত পুস্তকের মধ্যে আটক রাখা হয়েছিল| এটা ছিল আগ্রহশূন্য| আগুন নয়! বজ্রপাত নয়! শক্তিশালী সঙ্গীত নয়! কোন প্রচার নয় - শুধু বাইবেলের পদ অনুসরণ করে তার প্রাণহীন ব্যাখ্যা! একটা প্রাণহীন ব্যাখ্যামূলক ধর্ম্মোপদেশ দেওয়ার জন্যে পবিত্র আত্মাকে আপনার প্রয়োজন হয় না! ব্যাখ্যামূলক প্রচারগুলি মস্তিষ্কের মধ্যে কথা বলে! সুসমাচার সংক্রান্ত প্রচার হৃদয়ে কথা বলে! হৃদয়ের প্রতি! হৃদয়ের প্রতি! ‘‘কারণ লোকে হৃদয়ে বিশ্বাস করে, ধার্ম্মিকতার জন্য’’ (রোমীয় 10:10)| হৃদয় দিয়ে বিশ্বাস করে - মস্তিষ্ক দিয়ে নয়! কেবলমাত্র মন দিয়ে নয়! খ্রীষ্টকে অবশ্যই কথা বলতে হবে হৃদয়ে নাহলে একজনও উদ্ধার পাবেন না - অথবা একজনও পুনরুজ্জীবিত হবেন না - অথবা একজনও জীবন খাদ্যের আস্বাদ পাবেন না! আমাদের আগ্রহহীন সুসমাচার সংক্রান্ত প্রচার এবং ব্যাপটিষ্ট সেবাকাজে যীশুকে বাইরে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে! বাইরে অবরুদ্ধ! বাইরে অবরুদ্ধ! বাইরে অবরুদ্ধ! যীশু বলছেন, ‘‘আমি দ্বারে দাঁড়াইয়া আছি, ও আঘাত করিতেছি’’ (প্রকাশিত বাক্য 3:20)| কেন তিনি মন্ডলীর বাইরে দাঁড়িয়ে দ্বারে আঘাত করছিলেন? কারণ আমরা তাঁকে বাইরে আটকে রেখেছি, সেইজন্যে| যদি আমরা আমাদের প্রত্যেকটি সেবাকাজে পবিত্র আত্মাকে অবতরন করার জন্য প্রার্থনা না জানাই, তাহলে ঐসব সেবাকাজে আমরা যীশুকে পাব না! পবিত্র আত্মা উপস্থিত থাকলে তবেই একমাত্র যীশু আসেন - আর পবিত্র আত্মা তখনই একমাত্র উপস্থিত হন যখন আমরা তাঁর অবতরনের জন্য প্রার্থনা করি! একমাত্র উপস্থিত হন যখন আমরা তাঁর অবতরনের জন্য প্রার্থনা করি! একমাত্র উপস্থিত হন যখন আমরা তাঁর অবতরনের জন্য প্রার্থনা করি! আমাদের অনেক সভাই এখন আর একটা ক্যাথলিকদের সমাবেশের তুলনায় বেশী প্রাণবন্ত নয়| আপনি সেটা দেখেছেন| আপনি সেটা দেখেছেন| বাস্তবিকপক্ষে, একটা ক্যাথলিক সমাবেশের তুলনায় এটা অনেক বেশী মৃতকল্প! আর আপনি জানেন যে আমি ঠিকই বলছি!

‘‘কেননা আমার এক বন্ধু...আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’ (লূক 11:6)|

আর সেই ‘‘রুটী’’ জিনিষটি কি যা সেই মাঝরাতে গিয়ে লোকটিকে চাইতে হয়েছিল? প্রতিবেশীর দরজাতে আঘাত করার সময়ে তিনি কি চেয়েছিলেন? যে খাদ্যের জন্যে তিনি ডেকেছিলেন, এবং যে খাদ্যের জন্যে তিনি দুয়ারে আঘাত করেছিলেন ও যে খাদ্য তিনি যাচ্ঞা করেছিলেন, তা ছিল স্বয়ং খ্রীষ্ট| তা ছাড়া সেই পাপীর আর কি প্রয়োজন হতে পারত? 13 নং পদের শেষে, যীশু বলেছিলেন, ‘‘তবে ইহা কত অধিক নিশ্চয় যে, স্বর্গস্থ পিতা, যাহারা তাঁহার কাছে যাচ্ঞা করে, তাহাদিগকে পবিত্র আত্মা দান করিবেন?’’ (লূক 11:13)| স্কোফিল্ডের টীকা এই জায়গার বিষয়টি ভুল করে বাদ দিয়েছে| প্রার্থনার যোদ্ধা নিজেদের জন্যে পবিত্র আত্মার অবতরনের প্রার্থনা জানাচ্ছেন না| তিনি পবিত্র আত্মার আগমনের প্রার্থনা করছেন তার বন্ধুর জন্যে যিনি কখনও যীশুকে বিশ্বাস করবেন না যদি না পবিত্র আত্মা তার হৃদয় উন্মুক্ত করেন এবং তাকে যীশুর প্রতি আকর্ষণ করেন!

‘‘কেননা আমার এক বন্ধু পথে যাইতে যাইতে আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই|’’

সত্যিই, আপনার প্রার্থনার উত্তর হিসাবে, ঈশ্বর যদি পবিত্র আত্মা না দেন, তবে দিশাহারা পাপীদের সামনে রাখার মতন কোন কিছু আপনার কাছে থাকে না! ড: জন্ আর. রাইস এই বিষয়টি ভাল করে বলেছেন|

         যীশু সঠিক শব্দ প্রয়োগ করেন নাই যতক্ষণ না...প্রার্থনা বিষয়ক এই শিক্ষা সমাপ্ত হইয়াছিল, যাহাতে তিনি শিষ্যদের পবিত্র আত্মার জন্যে প্রার্থনা করিবার শিক্ষা দিতেছিলেন... প্রকৃতপক্ষে যাহা উদ্দীপনা আনয়ন করে, পাপীদের দোষী সাব্যস্ত করে এবং তাহাদের মন পরিবর্তন করে, যাহা ঈশ্বরের মনুষ্যের প্রতি ইচ্ছা এবং শক্তি এবং নেতৃত্ব প্রদান করে! যখন আমরা পাপীদের জন্য রূটী যাচ্ঞা করিতেছি, বাস্তবিকেই আমরা বুঝাইতে চাহিতেছি যে আমাদের প্রয়োজন...ঈশ্বরের সেই পবিত্র আত্মার (রাইস্, আইবিড., পৃ. 96)|

আমি এখন আপনাদের মধ্যে তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যারা এখনও দিশাহারা হয়ে আছেন| দৃষ্টান্তটিতে যীশু খ্রীষ্ট হলেন সেই রুটী| অন্য যে কোন কিছুর তুলনায় যা আপনার সবথেকে বেশী দরকার তা হলেন প্রভু যীশু খ্রীষ্ট! আমাদের মন্ডলীর সেবাকাজে যদি না পবিত্র আত্মা আপনার কাছে নেমে আসেন তাহলে আপনি কখনও আপনার পাপের জন্য দোষী সাব্যস্ত হবেন না| যীশু বলেছিলেন,

‘‘তিনি আসিয়া জগৎকে দোষী করিবেন’’ (যোহন 16:8)|

আপনার মতন দিশাহারা একজন পাপীর ভয়াবহ পাপ আপনার নিজের হৃদয়ে অনুভব করাতে, আপনার কঠিন হৃদয়ের গভীর পাপপূর্ণতা আপনাকে অনুভব করাতে পবিত্র আত্মার অবতরনের জন্য আমরা প্রার্থনা করছি| পবিত্র আত্মা যদি এইগুলির যে কোনটির অনুভূতি আপনার মধ্যে কখনো না এনে দেন তবে খ্রীষ্টের প্রকৃত প্রয়োজন আপনি কখনও অনুভব করবেন না|

তারপর, এছাড়াও, আমরা অবশ্যই প্রার্থনা করি ঈশ্বরের আত্মা আপনার পূর্ণ মুক্তির জন্য আপনাকে যেন খ্রীষ্টের প্রতি আকর্ষণ করেন| কারণ পরিত্রাতা বলেছেন,

‘‘পিতা, যিনি আমাকে পাঠাইয়াছেন, তিনি আকর্ষণ না করিলে কেহ আমার কাছে আসিতে পারে না’’ (যোহন 6:44)|

কাজেই, যীশুর প্রতি আপনাকে আকর্ষণ করাতে আমাদের অবশ্যই ঈশ্বরের আত্মার জন্য প্রার্থনা করতে হবে, কারণ একমাত্র যীশুই পারেন আপনাকে পাপ এবং নরক থেকে উদ্ধার করতে|

এতক্ষণ অবধি আপনি কেবল সুসমাচার শুনে এসেছেন| আপনি কেবল শুনেছেন যে আপনার পাপের দেনা শোধ করার জন্য যীশু ক্রুশের উপরে মৃত্যুবরণ করেছিলেন| আপনি কেবল শুনেছেন যে যীশুর রক্ত আপনার পাপ ধুয়ে দূরে সরিয়ে দিতে পারে এবং ঈশ্বরের দৃষ্টিতে আপনার ন্যায্যতা প্রতিপাদন করতে পারে| আপনি কেবল শুনেছেন যে যীশু মৃত্যু থেকে পুনরুত্থিত হয়েছিলেন| এবং আপনি কেবল শুনেছেন যে তিনি স্বর্গে জীবিত আছেন, আপনার জন্যে প্রার্থনা করছেন| আপনি এই সত্যের কথা খালি শুনেই গেছেন, কিন্তু কখনও নিজের জীবনে এইগুলির অভিজ্ঞতা লাভ করেননি| আর আপনি এই বিস্ময়কর সত্যগুলির অভিজ্ঞতা কখনো লাভ করতে পারেন না যদি আপনি মন্ডলীতে রবিবারের পর রবিবার ধরে শুধু বসেই থাকেন, আর বার বার সেগুলির বিষয়ে শুনতে থাকেন| ঐ সত্যগুলি শোনার অতিরিক্ত কিছু একটা অবশ্যই আপনার জীবনে ঘটতে হয় নাহলে আপনি কখনই উদ্ধার পেতে পারেন না!

পবিত্র আত্মা অবশ্যই নেমে আসুন এবং আপনাকে পাপপূর্ণতার অনুভূতি দিন| পবিত্র আত্মা অবশ্যই নেমে আসুন এবং আপনাকে যীশুর প্রতি আকর্ষণ করুন| পবিত্র আত্মা অবশ্যই নেমে আসুন এবং জীবন্ত খ্রীষ্টের সঙ্গে আপনার ঐশ্বরিক-মানব সম্মুখাসম্মুখির অভিজ্ঞতা দিন| পরিত্রাতার দিকে আকর্ষিত হওয়াটি আপনার জন্যে একটা অলৌকিক কাজ করার মতন হবে| নূতন জন্ম গ্রহণ করার বিষয়টিও আপনার জন্যে একটা অলৌকিক কাজ করার মতনই হবে| আর একমাত্র ঈশ্বরের আত্মা সেই অলৌকিক কাজ আপনার জীবনে সম্পন্ন করাতে পারেন| আপনার আত্মিক চাহিদা পূরণের জন্য যদি পবিত্র আত্মা উপস্থিত না থাকেন, আমাদের সেবাকাজে যদি পবিত্র আত্মা না থাকেন, যদি তিনি অনুপস্থিত হন তবে আমরা শুধু বলতে পারি,

‘‘কেননা আমার এক বন্ধু...আমার কাছে আসিয়াছেন, তাঁহার সম্মুখে রাখিবার আমার কিছুই নাই’’ (লূক 11:6)|

সেই কারণেই আমরা আপনার মুক্তির জন্যে প্রার্থনা করেছি| সেই কারনে আমরা ক্রমাগত যাচ্ঞা করে চলেছি| সেই কারণে আমরা ক্রমাগত অন্বেষণ করে চলেছি| সেই কারণে আমরা ক্রমাগত দুয়ারে আঘাত করে চলেছি - আর আমরা সেটা করে যাব যতক্ষণ না ঈশ্বর স্বর্গদুয়ার খুলে দেন এবং আপনার মন পরিবর্তন করাতে, আপনার মধ্যে পরিবর্তন নিয়ে আনতে ও আপনাকে অনন্ত জীবন দান করতে তাঁর আত্মাকে অবতরন করান! যীশু বলেছিলেন যে সেই ‘‘স্বর্গস্থ পিতা, যাহারা তাঁহার কাছে যাচ্ঞা করে, তাহাদিগকে পবিত্র আত্মা দান করিবেন’’ (লূক 11:13)| আর আমরা আপনার জন্য প্রার্থনা করে যাচ্ছি| আমরা যাচ্ঞা করে চলেছি, আপনাকে পাপের চেতনা দিতে ও একটি অলৌকিক মন পরিবর্তনের অভিজ্ঞতা লাভ করার মাধ্যমে আপনাকে যীশুর কাছে আকর্ষণ করাতে ঈশ্বর যেন তাঁর আত্মাকে প্রেরণ করেন! তাঁর রক্তের দ্বারা খ্রীষ্ট আপনার সমস্ত পাপ ধুয়ে দূরে সরিয়ে দেবেন| খ্রীষ্ট তাঁর ধার্মিকতার বস্ত্র আপনাকে পরিধান করাবেন এবং আপনাকে একটি হৃদয় দান করবেন যা ঈশ্বরকে ভালবাসে আর পাপকে ঘৃণা করে| তিনি আপনার প্রস্তরবৎ হৃদয় দূর করবেন এবং আপনাকে একটি মাংসিক হৃদয় দেবেন! ‘‘আপনার জন্য আমি প্রার্থনা করি|’’ সমবেতভাবে গানটি করুন!

আপনার জন্য আমি প্রার্থনা করি, আপনার জন্য আমি প্রার্থনা করি,
   আপনার জন্য আমি প্রার্থনা করি,
আমি প্রার্থনা করি আপনার জন্য|
   (“I Am Praying For You” by S. O’Malley Clough, 1837-1910) |

গত রবিবারের রাত্রে আমরা পবিত্র আত্মার জন্যে প্রার্থনা করেছিলাম| সবাই চলে গিয়েছিলেন আর আমি ড: কেগানের সঙ্গে বসেছিলাম| তখন টম জিৎয়া এসেছিলেন এবং পরিত্রাণ পেয়েছিলেন - কারণ সেই পবিত্র আত্মা প্রার্থনায় নেমে এসেছিলেন| আমেন এবং আমেন!


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মি: জন্ শ্যমূয়েল কেগান: লূক 11:5-13 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
          “I Am Praying For You” (by S. O’Malley Clough, 1837-1910) |