Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




গেৎশিমানীতে খ্রীষ্টের নিদারুণ যন্ত্রণা

CHRIST’S AGONY IN GETHSEMANE
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2017 সালের, 19শে মার্চ, প্রভুর দিনের সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Evening, March 19, 2017

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরো একাগ্রভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|


কিছুদিন আগে আমার একটি প্রচারের বিষয় ছিল যীশুর অশ্রুধারা|” এটা পড়তে চাইলে এখানে ক্লিক্ করুন| ঐ প্রচারের শেষের ধাপটি ছিল, ‘‘গেৎশিমানী উদ্যানে যীশু ক্রন্দন করিয়াছিলেন|’’ আমি বলেছিলাম, ‘‘গেৎশিমানী উদ্যানে, ক্রুশারোপিত হইবার পূর্বরাত্রে, যীশু দুঃখভোগ করিয়াছিলেন এবং একাকী প্রার্থনা করিয়াছিলেন| গেৎশিমানীর অন্ধকারময় সেই সেইস্থানে পরিত্রাতা তাঁহার আত্মা উজার করিয়া ঈশ্বরের প্রতি প্রার্থনা করিয়াছিলেন| ইব্রীয় 5:7 পদ অনুসারে তিনি প্রার্থনা করিয়াছিলেন ‘প্রবল আর্ত্তনাদ ও অশ্রুপাত সহকারে তাঁহারই নিকটে প্রার্থনা ও বিনতি উৎসর্গ করিয়াছিলেন, যিনি মৃত্যু হইতে তাঁহাকে রক্ষা করিতে সমর্থ, এবং আপন ভক্তি প্রযুক্ত উত্তর পাইলেন’ (ইব্রীয় 5:7)| তিনি কিসের আশঙ্কা করিয়াছিলেন? যীশু আশঙ্কা করিয়াছিলেন যে ক্রুশে আমাদের পাপের প্রায়শ্চিত্ত স্বরূপ বলিদান হইবার পূর্বেই, তিনি সেই বাগানে মৃত্যুবরণ করিবেন|’’

ডাঃ জন আর. রাইস বলেছেন, ‘‘যীশু প্রার্থনা করিয়াছিলেন যেন সেই রাত্রে মৃত্যুর পেয়ালা তাঁহার নিকট হইতে দূরে সরিয়া যায় যাহাতে পরের দিনে ক্রুশে মৃত্যুবরণ করিবার জন্য তিনি জীবিত থাকেন|’’ ঈশ্বরতত্ত্ববিদ ডাঃ জে. অলিভার বুশওয়েলও বলেছিলেন যে যীশু ‘‘সেই বাগানে মৃত্যু হইতে মুক্তির জন্য প্রার্থনা করিয়াছিলেন যাহাতে ক্রুশের উপরে তিনি তাঁহার উদ্দেশ্য সাধন করিতে সক্ষম হন|’’ ডঃ জে. ভারন্ন ম্যাকগী এই একই কথা বলেছিলেন: ‘‘আমার বন্ধু, তিনি উত্তর পাইয়াছিলেন; তিনি গেৎশিমানী উদ্যানে মারা যান নাই|’’ যীশু নিদারুণ যন্ত্রণার মধ্যে ছিলেন যেহেতু আমাদের সমস্ত পাপের বোঝা ঈশ্বরের দ্বারা তাঁর উপরে চাপানো হয়েছিল|

যারা ঐ ধর্ম্মোপদেশটি পড়েছিলেন তাদের কেউ একজন আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন ক্রুশের উপরে যীশুর যাওয়ার প্রয়োজন কেন হয়েছিল| আমাদের পাপের জন্য তিনি ঐ বাগানে মৃত্যুবরণ করতে কেন পারেননি? আমি এই বলে তাকে উত্তর দিয়েছিলাম যে এটা সম্ভব ছিল না| বাইবেল বলছে,

‘‘শাস্ত্রানুসারে খ্রীষ্ট আমাদের পাপের জন্য মরিলেন’’ (I করিন্থীয় 15:3)|

‘‘শাস্ত্রানুসারে’’ খ্রীষ্টের মৃত্যু আবশ্যক ছিল - kata tas graphas | যদি তিনি গেৎশিমানী বাগানে মারা যেতেন তাহলে পুরানো নিয়মের শাস্ত্রে লিখিত ভাববাণী অনুসারে তিনি পরিত্রাতা হতেন না| তিনি ভাববাণীতে উল্লেখিত পরিত্রাতা না হয়ে, বরং হতেন একজন প্রতারক! ‘‘শাস্ত্রানুসারে’’ kata tas graphas মৃত্যুবরণ করতে তিনি বাধ্য ছিলেন| ‘‘শাস্ত্র’’ বলতে উল্লেখিত হচ্ছে পুরানো নিয়ম, কারণ তখনও পর্য্যন্ত নতুন নিয়ম লেখা হয়নি| গেৎশিমানীতে প্রবেশ করার ঠিক আগে যীশু বলেছিলেন, ‘‘এই যে বচন লিখিত আছে, ‘আর তিনি অধর্ম্মীদের সহিত গণিত হইলেন,’ তাহা আমাতে সিদ্ধ হইতে হইবে’’ (লূক 22:37)| তিনি যিশাইয় 53:12 পদটির উল্লেখ করে বলেছেন যে, দুইজন দস্যুর মাঝখানে ক্রুশারোপিত হয়ে তাঁকে ঐ পদটি কার্যকর করতে হবে| যদি তিনি গেৎশিমানীতে মৃত্যুবরণ করতেন তাহলে যিশাইয় 53:12 পদটি তিনি সার্থক করতে পারতেন না; তিনি kata tas graphas মারা যেতেন না, ‘‘শাস্ত্রানুসারে,’’ যিশাইয়ের বলা ভাববাণীর পরিত্রাতা হতেন না!

খ্রীষ্টের ক্রুশারোপনের বিষয়ে পুরানো নিয়মে যিশাইয় 53 অধ্যায়ে সম্পূর্ণ ভাববাণী উল্লিখিত হয়েছে| আসলে ইংরাজি বাইবেলে সেই অধ্যায় শুরু হয়েছে যিশাইয় 52:13 পদ থেকে এবং পরবর্তী 15টি পদ পর্য্যন্ত চলেছে| খ্রীষ্টের ক্রুশারোপনের বিষয়ে এখানে একটার পর একটা ভাববাণী দেওয়া হয়েছে| তাঁর ক্রুশারোপন বিষয়ক সেই ভাববাণীগুলির খুব কমই সম্পাদিত হত যদি যীশু গেৎশিমানীতে মারা যেতেন| যিশাইয় 50:6 পদ, যেখানে তাঁকে বেতের আঘাত, তাঁকে অপমান এবং তাঁর গায়ে থুথু ছেটানোর কথা বলা হয়েছে, পরিপূর্ণ হত না| গীতসংহিতা 22:16 পদ, যাতে তাঁর হাত এবং পায়ে পেরেক বিদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে, পরিপূর্ণ হত না, সম্পাদিত হত না সখরিয় 12:10 পদটি, ‘‘তাহাতে তাহারা যাঁহাকে বিদ্ধ করিয়াছে, সেই আমার প্রতি দৃষ্টিপাত করিবে|’’ যদি যীশু গেৎশিমানীতে মারা যেতেন তাহলে গীতসংহিতা 22 অধ্যায়ে যে একটার পর আরেকটা ভাববাণী করা হয়েছে সেগুলিও পরিপূর্ণ হত না| এবং পুরানো নিয়মের অন্য আরও অনেক শাস্ত্রবাক্য অপরিপূর্ণ থেকে যেত যদি যীশু সেই বাগানে মৃত্যুবরণ করতেন| আশ্চর্য্যের কিছুই নয় যে যীশু গেৎশিমানীতে প্রার্থনা করেছিলেন ‘‘প্রবল আর্ত্তনাদ এবং অশ্রুপাত সহকারে তাঁহারই নিকটে প্রার্থনা ও বিনতি উৎসর্গ করিয়াছিলেন, যিনি মৃত্যু হইতে তাঁহাকে রক্ষা করিতে সমর্থ, এবং আপন ভক্তি প্রযুক্ত উত্তর পাইলেন’’ (ইব্রীয় 5:7)| তিনি আশঙ্কা করেছিলেন যে সেই বাগানে তিনি মারা যাবেন, এবং পরের দিনটিতে তিনি ক্রুশের কাজগুলি সম্পন্ন করতে পারবেন না! ‘‘শাস্ত্রানুসারে’’ তিনি kata das graphas, ক্রুশে মারা যেতে বাধ্য ছিলেন| যখন খ্রীষ্ট ক্রুশারোপিত হয়েছিলেন তখন তিনি পুরানো নিয়মের ভবিষ্যবাণীগুলি অক্ষরে অক্ষরে পূর্ণ করেছিলেন| যদি তিনি গেৎশিমানীতে মারা যেতেন তাহলে এই সমস্ত ভবিষ্যবাণীর কোনটাই পরিপূর্ণ হত না - এবং খ্রীষ্ট হতেন একজন প্রতারক, অনেক আগে থেকেই শাস্ত্রে উল্লেখিত মানবজাতির পরিত্রাতা হতেন না| ‘‘শাস্ত্রানুসারে খ্রীষ্ট আমাদের পাপের জন্য মরিলেন’’ (I করিন্থীয় 15:3) সেটা আর হত না| আশ্চর্য্যের কিছু নেই যে গেৎশিমানীতে তিনি প্রার্থনা করেছিলেন, ‘‘পিতঃ, যদি তোমার অভিমত হয়, আমা হইতে এই পানপাত্র দূর কর’’ (লূক 22:42)|

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরো একাগ্রভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

গ্রীক শব্দে ‘‘agony’’ অনুবাদিত হয়েছে ‘‘agonia’’ বলে| এটি ‘‘তীব্র আবেগপূর্ণ মানসিক যন্ত্রণা এবং নিদারুণ শারীরিক যন্ত্রণার’’ কথা বলছে (Vine)| সেখানকার সেই অন্ধকারে যীশু চূড়ান্ত দুঃখভোগ, যন্ত্রণা এবং হৃদয় মোচড়ানো ব্যাথার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছিলেন| আজ রাত্রে কয়েক মিনিটের জন্য আসুন আমরা গেৎশিমানী বাগানে তাঁর মর্মবেদনার বিষয়ে চিন্তা করি|

I. প্রথমত, তাঁর মর্ম্মবেদনা বর্ণিত হয়েছে |

যীশু তার শিষ্যদের সঙ্গে নিস্তার পর্বের ভোজ খেয়েছিলেন| সেখানে তিনি তাদের সঙ্গে প্রভুর ভোজের উৎসব পালন করেছিলেন| যিহূদা সেই দল ছেড়ে চলে গেছিলেন এবং তাঁর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করার জন্যে প্রধান যাজকের কাছে গিয়েছিলেন| তাদের মধ্যে অবশিষ্ট যারা ছিলেন তারা গান গেয়েছিলেন এবং কিদ্রোন স্রোত অতিক্রম করে, জৈতুন পাহাড়ের ধার বরাবর হেঁটে, অন্ধকারময় গেৎশিমানী বাগানে গিয়েছিলেন| বাগানের প্রান্তে যীশু তাঁর আটজন শিষ্যকে ছেড়ে দিয়েছিলেন, এই বলে, ‘‘আমি যতক্ষণ প্রার্থনা করি, তোমরা এখানে বসিয়া থাক’’ (মার্ক 14:32)| তারপরে তিনি পিতর, যাকোব এবং যোহনকে সঙ্গে নিয়ে বাগানের আরও গভীরে প্রবেশ করলেন যেখানে তিনি ‘‘অত্যন্ত বিস্ময়াপন্ন ও উৎকন্ঠিত হইতে লাগিলেন| তিনি তাঁহাদিগকে কহিলেন, আমার প্রাণ মরণ পর্য্যন্ত দুঃখার্ত্ত হইয়াছে; তোমরা এখানে থাক, আর জাগিয়া থাক’’ (মার্ক 14:33-34)| যোষেফ হার্ট বলেছিলেন,

অনেক দুঃখ তিনি সহ্য করিয়াছেন,
   অনেক প্রলোভিত যন্ত্রণার সহিত মিলিত
ধৈর্য্য, এবং যন্ত্রণা ছিল অভ্যস্থ:
   কিন্তু তথাপি ক্ষুদ্রতম পরীক্ষা
তোমাতেই বাঁচিয়া থাকিতে হইবে,
   ধোঁয়াশা, এবং দুঃখার্ত্ত গেৎশিমানী!
তোমাতেই বাঁচিয়া থাকিতে হইবে,
   ধোঁয়াশা, এবং দুঃখার্ত্ত গেৎশিমানী!
(“Many Woes He Had Endured” by Joseph Hart, 1712-1768;
      to the tune of “Come, Ye Sinners”) |

মথি বলেছিলেন যে তিনি ‘‘দুঃখার্ত্ত ও ব্যাকুল হইতে লাগিলেন’’ (মথি 26:37)| গ্রীক শব্দের অনুবাদে ‘‘ব্যাকুল’’ লেখার বিষয়ে, গুড্উইন বলেছিলেন যে যীশুর যন্ত্রণার মধ্যে বিশৃঙ্খলা অথবা বিহ্বলতা ছিল, যেহেতু সেই শব্দটিতে বোঝান হয়েছে ‘‘জনগণ হইতে বিচ্ছিন্ন করা - চিত্তবিক্ষেপযুক্ত মানুষদের, মানবজাতি হইতে বিচ্ছিন্ন হওয়া|’’ কি সুন্দর ভাবনা! যীশুর মর্ম্মবেদনার প্রাবল্যের দ্বারা, তাঁকে চিত্তবিক্ষেপের সীমারেখায় তাড়িত করা হয়েছিল, প্রায় উন্মাদ হওয়ার অবস্থাতে| মথির উদ্ধৃতিতে যেমন পরিত্রাতা বলেছিলেন, ‘‘আমার প্রাণ মরণ পর্য্যন্ত দুঃখার্ত্ত হইয়াছে’’ (মথি 26:38)| গ্রীক শব্দের অনুবাদে ‘‘দুঃখার্ত্ত’’ বলতে বোঝায় ‘‘চতুর্দিকে দুঃখপ্রাপ্ত, প্রবলভাবে দুঃখে ভারাক্রান্ত’’ (Strong), দুঃখে মগ্ন| গুড্উইন বলেছিলেন, ‘‘তিনি মস্তক এবং কর্ণ অবধি দুঃখে নিমজ্জিত হইয়াছিলেন এবং শ্বাস লইবার কোন ছিদ্র ছিল না|’’ রাইনকার বলেছিলেন তিনি ছিলেন ‘‘দুঃখ দ্বারা আবৃত, মর্মপীড়াতে আবিষ্ট|’’ যীশু গভীর বেদনা এবং দুঃখে নিমজ্জিত হয়েছিলেন| মার্ক আমাদের বলছেন যে তিনি ‘‘অত্যন্ত বিস্ময়াপন্ন ও উৎকন্ঠিত হইতে লাগিলেন’’ (মার্ক 14:33)| গ্রীক শব্দ অনুবাদিত হয়েছে ‘‘অত্যন্ত বিস্ময়াপন্ন’’ যার অর্থ বোঝায় ‘‘চরমভাবে বিস্ময়াপন্ন’’ (স্ট্রং), ‘‘শিহরণ জাগানো বিভীষিকার মুঠিতে বদ্ধ’’ (রাইনকার), ‘‘অতিশয় মর্ম্মপীড়াযুক্ত, সন্ত্রাসে...নিক্ষিপ্ত, পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে অধীর, আতঙ্কগ্রস্ত, বিভীষিকার দ্বারা আঘাতপ্রাপ্ত’’ (উয়েষ্ট)| যোষেফ হার্ট বলেছেন,

ঈশ্বরের মনোনীত সাধুগণ, আগাইয়া এস,
   যে শোচনকারী রক্তের জন্য আকাঙ্খিত,
এখন চিন্তাশীলতায় আমার সাহিত যোগ দাও,
   দুঃখার্ত্ত গেৎশিমানীর গান গাহিতে|

সেখানে জীবনের প্রভু প্রকাশিত হইয়াছিলেন,
   এবং দীর্ঘশ্বাস, এবং আর্তনাদ, এবং প্রার্থনা ও ভয় ছিল,
ঈশ্বর বহন করিতে পারেন তিনি রক্তমাংস সব বহিলেন,
   যথেষ্ট ক্ষমতায়, যাহা অন্য কেহ বহন করিতে পারে না|
(“Gethsemane, The Olive-Press!” by Joseph Hart, 1712-1768;
      “‘Tis Midnight, and on Olive’s Brow” এর সুরে) |

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরও একাগ্র ভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

II. দ্বিতীয়ত, তাঁর মর্ম্মবেদনার কারণ |

সেই বাগানে খ্রীষ্টের দুঃখের কারণ কি ছিল? আমি ভাবতাম যে তাঁর মর্ম্মবেদনা শয়তানের দ্বারা কৃত একটি আক্রমনের থেকে হয়েছিল| কিন্তু আমি তা এখন আর বিশ্বাস করি না| গেৎশিমানীতে তাঁর মর্ম্মবেদনার কোন বর্ণনাতেই দিয়াবলের উল্লেখ করা হয়নি| তাঁর সেবাকাজের একেবারে শুরুতেই তিনি দিয়াবলের দ্বারা প্রবলভাবে প্রলোভিত হয়েছিলেন| প্রান্তরে তিনবার ‘‘পরীক্ষক তাঁহার নিকটে আসিয়াছিলেন’’ (মথি 4:3)| কিন্তু আমরা কখনও পড়িনি যে প্রলোভিত হওয়ার সেই সময়ে যীশু ‘‘অত্যন্ত বিস্ময়াপন্ন এবং উৎকন্ঠিত’’ ছিলেন| গেৎশিমানীতে তাঁর রক্ত ঘামের মতন করে অন্য আর কোন কিছুরই উল্লেখ নেই| প্রান্তরে প্রলোভনের সময়ে ঈশ্বরের বাক্যের উদ্ধৃতি দিয়ে যীশু তুলনামূলকভাবে সহজে শয়তানের উপরে বিজয়লাভ করেছিলেন| কিন্তু গেৎশিমানীতে তাঁর মর্ম্মবেদনা এত বেশি ছিল যে এটা তাঁকে মৃত্যুর কিনারায় এনে ফেলেছিল| ডঃ ম্যাকগী বলেছিলেন, ‘‘যখন তিনি উদ্যানে প্রার্থনা করিতেছিলেন, ‘আমা হইতে এই পানপাত্র দূর কর’ (লূক 22:42), সেই ‘পানপাত্র’ ছিল মৃত্যু| গেৎশিমানীর উদ্যানে তিনি মৃত্যুবরণ করিতে চাহেন নাই’’ (J. Vernon McGee, Th.D., Thru the Bible, থমাস নেলসন পাবলিশার্স, সংস্করণ V, পৃষ্ঠা 540; ইব্রীয় 5:7 পদের টীকা)|

গেৎশিমানীর তিক্ত মর্ম্মবেদনা পিতা ঈশ্বরের থেকে এসেছিল| আমি বিশ্বাস করি যে, সেই বাগানে,

‘‘সদাপ্রভু...আমাদের সকলকার অপরাধ তাঁহার উপরে বর্ত্তাইয়াছেন’’ (যিশাইয় 53:6)|

স্পারজিয়ন বলেছিলেন, যে গেৎশিমানীতে, পিতা ঈশ্বর ‘‘যিনি পাপ জানেন নাই, তাঁহাকে আমাদের পক্ষে পাপস্বরূপ করিলেন’’ (II করিন্থীয় 5:21)| ‘‘তাঁহাকে এখন...অভিশাপ বহন করিতে হইতেছে যাহা পাপীদের জন্য বরাদ্দ ছিল, কারণ পাপীদের স্থলে তিনি দাঁড়াইয়াছেন এবং অবশ্যই পাপীদের পরিবর্তে দুঃখভোগ করিতেছেন...তিনি এখন, সম্ভবত প্রথমবার, উপলব্ধি করিতেছেন যে একজন পাপ বহনকারী হইতে কিরূপ বোধ হয়...কারণ ইহার সমস্তই তাঁহার উপরে অর্পিত হইয়াছিল’’ (C. H. Spurgeon, “The Agony in Gethsemane,’’ The Metropolitan Tabernacle Pulpit, পিলগ্রিম প্রকাশনা, 1971, সংস্করণ XX, পৃষ্ঠা 593)|

প্রায়শ্চিত্তের দিনগুলিতে এরন দ্বারা সেখানে দুটি ছাগল ব্যবহৃত হয়েছিল| বাগানে খ্রীষ্টকে দ্বিতীয় ছাগলটির প্রতিরূপের দ্বারা দেখান হয়েছে| দ্বিতীয় ছাগলটি গভীর বেদনার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছিল যখন তাকে পাপের জন্য উৎসর্গ করা হয়েছিল| যে পরিমান ভয় এবং বেদনা এই পশুটি অনুভব করেছিল তা হল খ্রীষ্টের মর্ম্মবেদনার একটি ছোট চিত্র অথবা প্রতীক| বাগানে যীশুর মর্ম্মবেদনা হল সেই মূল আদর্শের অবিকল অনুরূপ আকার, সেই পরিপূরক|

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরও একাগ্র ভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

ভাববাদী যিশাইয় বলেছিলেন,

‘‘তথাপি তাঁহাকে চূর্ণ করিতে সদাপ্রভুরই মনোরথ ছিল; তিনি তাঁহাকে যাতনাগ্রস্ত করিলেন [প্রভু তাঁহার উপরে অভিশাপ বর্ত্তেছিলেন, তাঁহার উপর দুঃখ অর্পন করেছিলেন, NASV], তাঁহার প্রাণ যখন দোষার্থক বলি উৎসর্গ করিবে...’’ (যিশাইয় 53:10)|

নিশ্চিতভাবে তা গেৎশিমানী বাগানে শুরু হয়েছিল!

এই মধ্যরাত্রি; আর অন্য সকলের অপরাধ,
&nbs
p;  যাতনার মানুষ রক্তে ক্রন্দনরত;
তথাপি তিনি যাতনায় নতজানু ছিলেন
   ইহা কি তাঁহার ঈশ্বর দ্বারা পরিত্যক্ত নয়|
(“‘Tis Midnight, and on Olive’s Brow” by William B. Tappan, 1794-1849) |

‘‘এই মধ্যরাত্রি; আর অন্য সকলের অপরাধ, যাতনার মানুষ রক্তে ক্রন্দনরত|’’ ডঃ জন্ গিল বলেছিলেন, ‘‘এখন তিনি চূর্ণ, এবং তাঁহার পিতার দ্বারা যাতনায় পতিত; তাঁহার দুঃখগুলি এখন শুরু হইয়াছে, কারণ সেগুলি এখানে নয়, কিন্তু ক্রুশে সমাপ্ত হয়...তিনি তাঁহার লোকদের পাপের ভারের, এবং স্বর্গীয় ক্রোধের অনুভূতির সহিত ‘উৎকন্ঠিত হইতে’ লাগিলেন, যাহাতে তিনি এতটাই পীড়নপ্রাপ্ত এবং বিস্ময়াবিষ্ট ছিলেন যে...তিনি মূর্ছিত হইতে, নিমজ্জিত হইতে এবং মৃত্যুবরণ করিতেও প্রস্তুত ছিলেন...তিনি মৃত্যুর ধূলায় আনীত হইয়াছিলেন; তাঁহার দুঃখগুলি তাঁহাকে ত্যাগ করিতেছিল না...যতক্ষণ না তাহার আত্মা এবং দেহের একটিকে অপরটি হইতে বিচ্ছিন্ন করা হইয়াছিল’’ ক্রুশের উপরে (John Gill, D.D., An Exposition of the New Testament, The Baptist Standard Bearer, পুনর্মুদ্রণ 1989, সংস্করণ I, p. 334)|

সেটা হয়েছিল গেৎশিমানীতে যে ‘‘সদাপ্রভু...আমাদের সকলকার অপরাধ তাঁহার উপরে বর্ত্তাইয়াছেন’’ (যিশাইয় 53:6)| যোষেফ হার্ট বলেছিলেন,

সেখানে [ঈশ্বর পুত্র] আমার সব অপরাধ বহন করিয়াছিলেন;
   ইহা অনুগ্রহে বিশ্বাস করা যাইতে পারে;
কিন্তু যে ভয়ঙ্করতা তিনি অনুভব করিয়াছিলেন
   ধারণ করিবার পক্ষে হইতেছে খুব বিশাল|
কেহই তাঁহাকে বিদীর্ণ করিতে পারে না,
   ধোঁয়াশা এবং অন্ধকারময় গেৎশিমানী!
কেহই তাঁহাকে বিদীর্ণ করিতে পারে না,
   ধোঁয়াশা এবং অন্ধকারময় গেৎশিমানী!
(“Many Woes He Had Endured” by Joseph Hart, 1712-1768;
      to the tune of “Come, Ye Sinners”) |

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরও একাগ্র ভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

ঈশ্বর পুত্রের দুঃখভোগ দেখ,
   হৃদ্স্পন্দন, আর্ত্তনাদ, ঘর্ম্মাক্ত রক্ত!
সীমাহীন গভীর ঐশ্বরিক [অনুগ্রহ] ভালবাসা!
   যীশু, তোমার এ কি ভালবাসা ছিল!
(“Thine Unknown Sufferings” by Joseph Hart, 1712-1768;
      to the tune of “‘Tis Midnight, and on Olive’s Brow”) |

‘‘আর সদাপ্রভু আমাদের সকলকার অপরাধ তাঁহার উপরে বর্ত্তাইয়াছেন’’ (যিশাইয় 53:6)|

গেৎশিমানী বাগানে খ্রীষ্ট আমাদের সমস্ত পাপ নিজের দায়িত্বে নিয়েছিলেন, এবং আমাদের সমস্ত পাপ ‘‘তাঁর নিজের দেহে’’ ক্রুশের প্রতি বহন করেছিলেন, যেখানে তিনি পরের দিন মৃত্যুবরণ করেন| আমাদের পাপ হল সেই যা তাঁকে চূর্ণ করেছিল যতক্ষণ না তিনি রক্ত ঘাম ঝরিয়েছিলেন!

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরও একাগ্র ভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

হ্যাঁ, তিনি ক্রুশের প্রতি আপনার সমস্ত পাপ নিজ দেহে বহন করে নিয়ে গেছিলেন|

‘‘তিনি আমাদের ‘‘পাপভার তুলিয়া লইয়া’’ আপনি নিজ দেহে কাষ্ঠের উপরে [ক্রুশের উপরে] বহন করিলেন’’ (I পিতর 2:24)|

সেই গেৎশিমানী বাগানে যান এবং দেখুন আপনার এবং আমার জন্য যীশু কি করেছেন| আপনার পাপের জন্য আপনার নরকে যাওয়া উচিৎ ছিল| কিন্তু যীশু সেই সমস্ত পাপ নিজের দেহে তুলে নিয়েছিলেন, এবং আপনার কৃত অন্যায়ের সম্পূর্ণ দেনা শোধ করতে, সেই বাগানে এক জীবন্ত নরক ও ক্রুশের মধ্যে দিয়ে গিয়েছিলেন|

প্রত্যেক খ্রীষ্ট বিশ্বাসীর উচিৎ গেৎশিমানী এবং ক্রুশের উপরে গভীরভাবে বিবেচনা করা| গেৎশিমানী এবং ক্রুশ হল অবিচ্ছেদ্য| ‘‘কিন্তু পরিত্রাণ পাইতেছি যে আমরা, আমাদের কাছে তাহা [সেই ক্রুশ] ঈশ্বরের পরাক্রমস্বরূপ’’ (I করিন্থীয় 1:18)| গেৎশিমানীতে এবং ক্রুশের উপরে খ্রীষ্টের কৃত কাজের দ্বারা আমরা ঈশ্বরের জন্য বেঁচে থাকার নিমিত্ত আমাদের ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে! খ্রীষ্টের মর্ম্মবেদনার কথা চিন্তা করে আমরা তাঁর জন্য বেঁচে থাকতে অনুপ্রাণিত হচ্ছি! জীবনের পরীক্ষাগুলি যখন আমাদের হতাশ করে ফেলে, তখন প্রকৃত খ্রীষ্ট বিশ্বাসীরা শান্তি খুঁজে পাবেন এবং স্মরণ করবেন যে ক্রুশের উপরে ও গেৎশিমানীতে যীশু আমাদের পাপের সম্পূর্ণ দেনা শোধ করেছেন! যখন আমরা চিন্তা করি যে মৃত্যু থেকে পুনরুত্থিত হয়ে যীশু মৃত্যুকে জয় করেছিলেন তখন আমরা শান্তি খুঁজে পাই!

ক্রুশের কাছে রহিলাম, ঈশ্বরের মেষশাবক,
   দেখাও শোভা আমায়;
রাখ তাবৎ পথে নাথ,
   তাঁর ছায়াতে আমায়|
ক্রুশেতে, ক্রুশেতে,
   চির শ্লাঘা আমায়;
তারই গুণে নির্ভয়ে
   যাব নদীর ওপারে|
(“Near the Cross” by Fanny J. Crosby, 1820-1915) |

আর আপনারা যারা এখনও পরিত্রাণ পাননি তাদের প্রতি আমি বলি, গেৎশিমানীর সেই অন্ধকারে, আপনার জন্য দুঃখভোগরত, পীড়ন ও রক্তের মধ্যে অবস্থিত তাঁর সম্বন্ধে আপনি কিভাবে চিন্তা করতে পারেন, এবং তবুও তাঁর থেকে মুখ ঘুরিয়ে রয়েছেন? আপনার পাপের জন্য তিনি দুঃখভোগ করছেন! কিভাবে আপনি তাঁকে অস্বীকার করতে পারেন, এবং এমন একরকম ভালবাসা প্রত্যাখ্যান করতে পারেন?

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরও একাগ্র ভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

ঈশ্বর পুত্রের দুঃখভোগ দেখ,
   হৃদ্স্পন্দন, আর্ত্তনাদ, ঘর্ম্মাক্ত রক্ত!
সীমাহীন গভীর ঐশ্বরিক [অনুগ্রহ] ভালবাসা!
   যীশু, তোমার এ কি ভালবাসা ছিল!

গেৎশিমানীতে যীশু আপনার কৃত সমস্ত পাপ নিজের দেহে নিয়েছিলেন কারণ তিনি আপনাকে ভালবাসেন! আপনার পাপের দেনা তিনি ক্রুশের উপরে মিটিয়ে দিয়েছেন কারণ তিনি আপনাকে ভালবাসেন!

আজ রাত্রে আপনি কি তাঁকে বিশ্বাস করবেন? আপনি কি তাঁর কাছে আসবেন যিনি অনন্তকালীন ভালবাসা নিয়ে আপনাকে ভালবাসেন? সেই মর্ম্মবেদনাগ্রস্ত ত্রাণকর্তাকে বিশ্বাস করুন! এখন তাঁকে বিশ্বাস করুন! আপনার সমস্ত পাপ তাঁর দ্বারা ক্ষমাপ্রাপ্ত হবে, এবং অনন্তকালীন জীবনের অধিকারী হবেন! আমেন|


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন ডঃ ক্রেইগ্টন এল. চান: মার্ক 14:32-41 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
( “‘Many Woes He Had Endured” by Joseph Hart, 1712-1768;
to the tune of “Come, Ye Sinners”) |


খসড়া চিত্র

গেৎশিমানীতে খ্রীষ্টের নিদারুণ যন্ত্রণা

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র|
CHRIST’S AGONY IN GETHSEMANE

‘‘পরে তিনি মর্ম্মভেদী দুঃখে মগ্ন হইয়া আরো একাগ্রভাবে প্রার্থনা করিলেন; আর তাঁহার ঘর্ম্ম যেন রক্তের ঘনীভূত বড় বড় ফোঁটা হইয়া ভূমিতে পড়িতে লাগিল’’ (লূক 22:44)|

(ইব্রীয় 5:7; I করিন্থীয় 15:3; লূক 22:37; যিশাইয় 53:12;
যিশাইয় 50:6; গীতসংহিতা 22:16;
সখরিয় 12:10; লূক 22:42)

I.    প্রথমত, তাঁর মর্ম্মবেদনা বর্ণিত হয়েছে, মার্ক 14:32, 33-34;
মথি 26:37-38 |

II.   দ্বিতীয়ত, তাঁর মর্ম্মবেদনার কারণ, মথি 4:3; যিশাইয় 53:6;
II করিন্থীয় 5:21; যিশাইয় 53:10; I পিতর 2:24; I করিন্থীয় 1:18 |