Print Sermon

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন প্রতি মাসে 215টিরও বেশি দেশের প্রায় 116,000 কম্প্যুটারে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়| আরও শত শত লোক ইউ টিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু খুব শীঘ্রই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান, কারণ প্রত্যেকটি ভিডিও প্রচার তাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটের দিকে পরিচালিত করে| ইউটিউব আমাদের ওয়েব সাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 34টি ভাষায় প্রচারিত হয় হাজার হাজার লোকের কাছে| প্রচারের এই সব পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখন আপনি ডঃ হেইমার্সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




আদম, তুমি কোথায়?

(আদিপুস্তকের উপরে 89তম ধর্ম্মোপদেশ)
ADAM, WHERE ART THOU?
(SERMON #89 ON THE BOOK OF GENESIS)
(Bengali)

লেখক : ডঃ আর. এল. হেইমার্স, জুনিয়র
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

2016 সালের, 27শে নভেম্বর, প্রভুর দিনের সন্ধ্যাবেলায় লস্ এঞ্জেল্সের
ব্যাপটিষ্ট ট্যাবারন্যাক্ল মন্ডলীতে এই ধর্ম্মোপদেশটি প্রচারিত হয়েছিল
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord's Day Evening, November 27, 2016

‘‘আর সদাপ্রভু আদমকে এই আজ্ঞা দিলেন, তুমি এই উদ্যানের সমস্ত বৃক্ষের ফল স্বচ্ছন্দে ভোজন করিও; কিন্তু সদসদ্-জ্ঞান-দায়ক যে বৃক্ষ, তাহার ফল ভোজন করিও না, কেননা যে দিন তাহার ফল খাইবে, সেই দিন মরিবেই মরিবে’’ (আদিপুস্তক 2:16-17)|


প্রথম মানুষ আদমকে ঈশ্বর সম্পূর্ণ পাপশূণ্য করে সৃষ্টি করেছিলেন| তাকে একটি খুব সুন্দর বাগানে রাখা হয়েছিল| সেই বাগানের প্রত্যেকটি গাছের ফল খাওয়ার পক্ষে উপযুক্ত ছিল| আদম সহজেই গাছে উঠতে পারতেন এবং পরম উপাদেয় সেই ফলগুলি পেড়ে আনতে পারতেন| সেই সুন্দর বাগানে তার কোন উদ্বিগ্নতা এবং কোন শত্রু ছিল না| পশু ও পাখীদের মধ্যে সকলেই ছিল নিরামিষাশী| সেখানে এমন কেউ ছিল না যারা কোনভাবে সেই মানুষটিকে আঘাত করবে বা তার ক্ষতি করবে| মানুষটি স্বয়ং ছিলেন নিরামিষাশী, সেই কারণে পশু হত্যা করে তাদের মাংস খাওয়ার কোন প্রয়োজন তার ছিল না| এদন উদ্যানের সব কিছুই ছিল শান্তিপুর্ণ| সেখানে কোন ঝড়ঝাপটা ছিল না যে তাকে আড়াল খুঁজতে হবে, কারণ সেখানে কখনও বৃষ্টি হয়নি| ‘‘আর পৃথিবী হইতে কুজ্ঝটিকা উঠিয়া সমস্ত ভূতলকে জলসিক্ত করিল’’ (আদিপুস্তক 2:6)| মানুষটির এই বিষয়ে উদ্বেগের কিছুই ছিল না| তাকে অসুস্থ করে দেওয়ার মতন কোন রোগ তার ছিল না| তার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার মতন কোন শত্রু ছিল না, এবং তার ভয় পাওয়ার মতন কোন প্রাণী সেখানে ছিল না| এটা ছিল একটা যথার্থই পাপমুক্ত পরমদেশ|

আর আদমের কোন পাপ ছিল না যা তাকে কষ্ট দেবে| তার নিজের মধ্যে কোন পাপপূর্ণ চরিত্র ছিল না, উদ্বিগ্ন হওয়ার মতন তার কোন মানসিক সমস্যা ছিল না| আদম তার নিজের মধ্যে শান্তিতে ছিলেন| আদম ঈশ্বরের সঙ্গে শান্তিতে ছিলেন| এটা ছিল একটা যথার্থই পরমদেশ| এমনকী একজন প্রেমিকা অনুসন্ধান করার বিষয়েও উদ্বিগ্ন হওয়ার কোন প্রয়োজন তার হয়নি| তাকে আরাম দেওয়ার জন্য এবং তার স্ত্রী হিসাবে তাকে সাহায্য করার জন্য ঈশ্বর একটি নিখুঁত, অতি সুন্দর, মনোরম নারী সৃষ্টি করেছিলেন| কাজেই তিনি কখনও একাকী হননি| যেহেতু সেই নারী নিষ্পাপ ছিলেন, সেখানে তার পক্ষে কোন সুযোগ ছিল না মানুষটির হৃদয় ভেঙ্গে দেওয়ার, কোন সুযোগ ছিল না তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার, কোন সম্ভাবনা ছিল না যে সেই নারী কখনও মানুষটিকে ভালবাসা বন্ধ করে দেবে বা তাকে ছেড়ে যাবে| যেহেতু সেখানে কোন পাপ ছিল না নারীটি ঈশ্বরকে অসন্তুষ্ট না করে নিজের সমস্ত যৌন বাসনা এবং প্রয়োজন মেটাতেন| এটা ছিল একটা যথার্থ পাপমুক্ত পরমদেশ|

প্রত্যেকদিন ঈশ্বর মানুষটির সঙ্গে সুরেলা কন্ঠে কথা বলতেন| সেইসময়ে তিনি কখনও প্রলুব্ধ হননি| ঈশ্বরের ক্রোধ প্রশমিত করতে কোন কিছু করার প্রয়োজন তার কখনও হয়নি, কারণ প্রশমিত করার মতন কোন ক্রোধ সেখানে ছিল না| মানুষটি একটি সুন্দর নারীর সঙ্গে বাস করতেন যে তাকে ভালবাসত| সুস্বাদু খাদ্যে পরিপূর্ণ একটি উদ্যানে তিনি বাস করতেন| তিনি ঈশ্বরের সঙ্গে শান্তিতে ছিলেন| এটা ছিল একটা যথার্থই পরমদেশ|

এবং ঈশ্বর তাকে মাত্র একটাই নিয়ম মানতে বলেছিলেন| এবং তার পক্ষে এই নিয়মটি রক্ষা করা খুব সহজ ছিল| শুধু একটাই মাত্র পালনীয় সহজ আজ্ঞা| ঈশ্বর তাকে বলেছিলেন, ‘‘তুমি এই উদ্যানের সমস্ত বৃক্ষের ফল স্বচ্ছন্দে ভোজন করিও; কিন্তু সদসদ্-জ্ঞান-দায়ক যে বৃক্ষ, তাহার ফল ভোজন করিও না, কেননা যে দিন তাহার ফল খাইবে, সেই দিন মরিবেই মরিবে’’ (আদিপুস্তক 2:16-17)| তার কাছে ঈশ্বরের এইটুকু মাত্র পাওয়ার প্রয়োজন ছিল| তার মাত্র এইটুকুই করার ছিল যে সদসদ্-জ্ঞান-দায়ক বৃক্ষের ফল না খাওয়া| এটা ছিল খুব সহজেই রক্ষা করার মতন একটা নিয়ম| এটা ছিল একটা যথার্থই পরমদেশ|

যাই হোক, বাগানে আরও একজন লোক ছিলেন| শয়্তান সেখানে ছিলেন| তিনি ছিলেন স্বর্গের দেবদূতদের মধ্যে একজন| কিন্তু তিনি ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিলেন এবং তাকে পৃথিবীতে নিক্ষেপ করা হয়েছিল| শয়তান ঈশ্বরের শত্রু ছিলেন| কিন্তু আদম প্রভুর দ্বারা তার থেকে সুরক্ষিত ছিলেন| শয়তানের পক্ষে ঈশ্বরের হৃদয়ে আঘাত হানতে পারার একমাত্র উপায় ছিল ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করতে আদমকেও কাছে পাওয়া|

সেখানে দুটি বৃক্ষ ছিল যেগুলি ছিল সেই বাগানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ| প্রথমটি হল জীবন বৃক্ষ| যদি আদম সেই বৃক্ষটির ফল খেতে থাকেন, তাহলে তিনি এদনের পরমদেশে চিরকাল বাস করতে পারবেন (আদিপুস্তক 3:22)| কিন্তু যদি তিনি সদসদ্ জ্ঞান বৃক্ষের ফল খেতেন, তিনি মারা যেতেন| এটা ছিল এক পাপশূন্য পরমদেশ - যেখানে পালনের জন্য একটাই আজ্ঞা ছিল - জীবনবৃক্ষের ফল খাওয়া আর চিরকাল বেঁচে থাকা| সেটা ছিল আজ্ঞাটির সদর্থক দিক| সদসদ্ জ্ঞানবৃক্ষের ফল খাও এবং তুমি মারা যাবে| এটা হল আজ্ঞাটির নঞর্থক দিক| এটা ছিল খুব সরল একটা নিয়ম - এবং পালনের পক্ষে খুব সহজ| এই গাছ থেকে ফল খাও এবং চিরকাল বেঁচে থাক| অন্য গাছটি থেকে খাও এবং তুমি মারা পড়বে| এটা ছিল এক পাপশূন্য পরমদেশ যেখানে একটা, কেবলমাত্র একটাই, পালন করবার মতন নিয়ম ছিল - পালন করার পক্ষে একটা খুব, খুব সহজ নিয়ম ছিল|

এখন, যেহেতু ঈশ্বর আদম ও তার স্ত্রীকে রক্ষা করতেন, শয়তান তাদের ক্ষতি করতে পারেনি| সর্বসাকুল্যে তিনি যা পেরেছিলেন তা ছিল তাদের প্রলুব্ধ করা, সেই সরল নিয়মটি অমান্য করতে প্রলুব্ধ করা| শয়তান একটি কিলবিল করতে থাকা সাপ ছিলেন না| সেটা পরে ঘটেছিল যখন ঈশ্বর তাকে এবং একটি সাপকে অভিশাপ দিয়েছিলেন| কিন্তু এখন, এই সময়ে, শয়তান বাগানের কয়েকটি প্রাণীর মধ্যে প্রবেশ করেছিলেন| যেমন এর পরবর্তীতে তিনি এবং তার দিয়াবলেরা খ্রীষ্টের আজ্ঞায় একটি শুয়োরের মধ্যে প্রবেশ করেছিলেন| এখানে, যাই হোক, তিনি ‘‘দীপ্তিময় দূত’’ (II করিন্থীয় 11:14) হিসাবে উপস্থিত হয়েছিলেন|

আমরা জানি না আসল সাপটি দেখতে কেমন ছিল| কিন্তু আমরা জানি তার পা ছিল| এবং আমরা জানি যে এটা নিশ্চয়ই এমন কোন এক ধরনের প্রাণী ছিল যাকে এদনের বাগানে তারা হামেশাই দেখত, কারণ হবা এর দ্বারা ভীত হননি| আমরা এছাড়াও জানি যে শয়তান এই প্রাণীটির মধ্যে প্রবেশ করেছিলেন এবং তার মুখের সাহায্যে আদমের স্ত্রীʼর সঙ্গে কথা বলেছিলেন| হবা মোটেও বিস্মিত হননি যখন প্রাণীটি তার সঙ্গে কথা বলেছিল| হবা সম্ভবত তার সঙ্গে এর আগেও অনেকবার কথা বলেছিলেন এবং তার সঙ্গে কথা বলার অভ্যাস তার ছিল| সেটাই হল উপায় যা শয়তান এমনকী এখনও করে থাকেন| শয়তান পাপীদের সঙ্গে তাদের মনের মধ্যে কথা বলতে থাকেন, যতক্ষণ না তারা তার প্রতি অভ্যস্ত হচ্ছে, এবং তাকে ভয় না পাচ্ছে|

একদিন বাগানে হবা একাই ছিলেন| আদম অন্য কোন জায়গায় বাগানের তত্ত্বাবধান ‘‘কৃষিকর্ম এবং রক্ষা’’ (আদিপুস্তক 2:15) করছিলেন| হবা বাগানের মাঝখানে দাঁড়িয়ে, সদসদ্ জ্ঞানদায়ক বৃক্ষের দিকে লক্ষ করছিলেন| আর তখন শয়তান তার কাছে এসেছিলেন| সেই ছিল সময় যখন সাপটি তাকে ফিস্ফিস্ করে বলেছিল, ‘‘ঈশ্বর কি বাস্তবিক বলিয়াছেন, তোমরা এই উদ্যানের কোন বৃক্ষের ফল খাইও না?’’ (আদিপুস্তক 3:1)| তখন সাপটি ঈশ্বরের বাক্যের বিষয়ে প্রশ্ন করেছিল| সেইভাবেই শয়তান এমনকী আজকের দিনেও করে থাকেন| বাইবেলে লিখিত ঈশ্বরের বাক্যকে বিশ্বাস না করার জন্য তিনি আমাদের প্রলোভিত করেন| ঈশ্বর আমাদের প্রতি যা বলেন সেগুলি বিশ্বাস না করার জন্য তিনি আমাদের প্রলোভিত করেন| পালকের আমাদের প্রতি ঈশ্বরের বাক্য প্রচার করাকালীন সময়ে তিনি যা বলছেন তা বিশ্বাস না করার জন্য শয়তান আমাদের প্রলোভিত করেন| কিন্তু, তার চেয়েও বেশি হল, শয়তান ঈশ্বরের বাক্য বিকৃত করেছিলেন এইরকম বোঝানোর দ্বারা যে হবা সেই প্রাণঘাতী বৃক্ষের ফলটি খেতে পারেন, যেহেতু ঈশ্বর বলেছেন, ‘‘সমস্ত বৃক্ষের ফল স্বচ্ছন্দে ভোজন করিও|’’ শেক্সপীয়র বলেছিলেন, ‘‘শয়তান তাহার উদ্দেশ্য সাধনে শাস্ত্রকে উল্লেখ করিতে পারে|’’ এখানে দিয়াবল ঈশ্বরের বার্তার দ্বিতীয় অংশটি, ‘‘কিন্তু সদসদ্ যে বৃক্ষ, তাহার ফল ভোজন করিও না, কেননা যে দিন তাহার ফল খাইবে, সেই দিন মরিবেই মরিবে’’ (আদিপুস্তক 2:17) বাদ দিয়েছিলেন| সেই সাপ ঈশ্বরের বাক্যের সেই অংশটি বাদ দিয়েছিলেন| বাইবেলে দুইবার আমাদের সতর্ক করা হয়েছে শাস্ত্রের কোন বাক্য বাদ না দেওয়ার জন্য, দ্বিতীয় বিবরণ 12:32 পদে একবার এবং প্রকাশিত বাক্য 22:19 পদে আর একবার, যেখানে বলছে, ‘‘আর যদি কেহ এই ভাববাদী গ্রন্থের বচন হইতে কিছু হরণ করে তবে ঈশ্বর এই গ্রন্থে লিখিত জীবন বৃক্ষ হইতে ও পবিত্র নগর হইতে তাহার অংশ হরণ করিবেন...’’ জগতের সমস্ত উদারপন্থী সেমিনারীতে এই মন্দ শিক্ষা দেওয়া হয়| সেবাকাজের জন্য অধ্যয়ণরত যুবকদের শিক্ষা দেওয়া হয় যে বাইবেলের অংশবিশেষ সত্য নয়| আমি যে উদারপন্থী সেমিনারীতে যোগ দিয়েছিলাম সেখানে আমাকেও এই শিক্ষা দেওয়া হয়েছিল| এটা একজন মানুষের সেবাকাজকে ধ্বংস করে দেয় যদি তিনি এই মন্দ শিক্ষাতে বিশ্বাস করেন| প্রেরিত পৌল বলেছিলেন, ‘‘ঈশ্বর নিশ্বসিত প্রত্যেক শাস্ত্রলিপি এবং উপকারী...’’ (II তীমথিয় 3:16)| শাস্ত্রের প্রত্যেকটি বাক্য ছিল মূল ইব্রীয় এবং গ্রীকে ঈশ্বর নিশ্বসিত| সেই কারণে আমি কঠোরভাবে কিং জেমস বাইবেল আঁকড়ে থাকি| আধুনিক বাইবেলগুলি মার্ক 9:29 পদে ‘‘এবং উপবাস’’ শব্দটি বাদ দিয়েছে, অথবা যিশাইয় 7:14 পদে ‘‘কুমারী’’ শব্দটির পরিবর্তে ‘‘যুবতী মহিলা’’ লিখেছে| এই পরিবর্তনগুলি শাস্ত্রের একমাত্র দুটি প্র্রাচীন প্রতিলিপির উপরে ভিত্তি করে করা হয়েছে, যা আমি বিশ্বাস করি যে সেগুলি প্রাথমিক পর্বের জ্ঞানবাদী প্রতিলিপিকারকদের দ্বারা বিকৃত করা হয়েছিল|

উদারপন্থী সেমিনারীতে যেখানে আমি যোগদান করেছিলাম তারা আমাকে রিভাইস্ড স্ট্যান্ডার্ড বাইবেল নিয়ে ক্লাসে আসতে বলেছিলেন| কিন্তু আমি তাদের অমান্য করেছিলাম এবং সবসময়ে আমার সাথে কিং জেমস বাইবেল নিয়ে যেতাম| আমি মোটেও ‘‘নতুন’’ অনুবাদ বিশ্বাস করি না, এবং আপনাদের কারোরই সেটা করা উচিৎ নয়| কখনো কখনো আমি সেগুলি থেকে উল্লেখ করি যেখানে সেগুলি কিং জেমসের অনুরূপ হয়, কিন্তু আমার ব্যক্তিগত পাঠগ্রহণের সময়ে অথবা মূল পাঠ্যাংশ হিসাবে আমার ধর্ম্মোপদেশে আমি কখনো সেগুলি ব্যবহার করি না| কিং জেমস বাইবেলের সঙ্গে লেগে থাকাকে আমি আমার আজীবন অভ্যাসে পরিণত করেছি, আর আপনাদেরও সেরকম করা উচিৎ!

সেদিন যখন সাপটি সেই বাগানে হবাকে প্রলোভিত করে তখন সাপটি প্রশ্ন করেছিল এবং ঈশ্বরের বিশুদ্ধ বাক্যকে বিকৃত করেছিল| ঈশ্বর পরিষ্কারভাবে দম্পতিকে সেই নিষিদ্ধ ফলটি খেতে বারণ করেছিলেন| কিন্তু শুধু না খেতে| না ‘‘স্পর্শ’’ করার বিষয়ে ঈশ্বর তাদের প্রতি কিছুই বলেননি| যখন হবা বললেন, ‘‘তাহা ভোজন করিও না, স্পর্শও করিও না, করিলে মরিবে’’ তিনি ঈশ্বরের বাক্যের সঙ্গে যোগ করেছিলেন| এটা দ্বিতীয় বিবরণ 12:32 পদটিকে অমান্য করছে, যেখানে ঈশ্বর বলেছেন, ‘‘আমি যে কোন তোমাদিগকে আজ্ঞা করি, তোমরা তাহাই যত্নপূর্ব্বক পালন করিবে; তুমি তাহাতে আর কিছু যোগ করিবে না...’’ (দ্বিতীয় বিবরণ 12:32)| এই আজ্ঞা আবার প্রকাশিত বাক্য 22:18 পদে দেওয়া হয়েছে,

‘‘যাহারা এই গ্রন্থের ভাববাণীর বচন সকল শুনে, তাহাদের প্রত্যেক জনের কাছে আমি সাক্ষ্য দিয়া বলিতেছি, যদি কেহ ইহার সহিত আর কিছু যোগ করে, তবে ঈশ্বর সেই ব্যক্তিতে এই গ্রন্থে লিখিত আঘাত সকল যোগ করিবেন’’ (প্রকাশিত বাক্য 22:18)|

উদারপন্থীরা ঈশ্বরের বাক্যেকে বিকৃত করে এবং তার অংশ বিশেষ বাদ দেয়| বিধর্ম্মী মরমনস্রা তাদের মরমনসের বই তে ঈশ্বরের বাক্যের সঙ্গে যোগ করে| অতএব ঈশ্বরের বাক্যের কিছু অংশ বাদ দেওয়ার, অথবা এর সঙ্গে কিছু যোগ করার প্রলোভন ছিল| কোরিয়ানরা খ্রীষ্টের ক্রুশারোপন বাদ দিয়ে দিয়েছে| বিধর্ম্মীরা এর সঙ্গে যোগ করছেন, যেমন মেরী বেকার এডির লেখা এর সঙ্গে যুক্ত করে, খ্রীষ্টান বিজ্ঞানীরা করেছেন| সমস্ত ভ্রান্ত শিক্ষার মূলে রয়েছে ঈশ্বরের বাক্যে অবৈধ হস্তক্ষেপ| এই অনুসারে বাইবেলে কিছু যোগ করা অথবা তার কিছু অংশ বাদ দেওয়াটা, আজকের দিনেও হবার প্রলোভন চিত্রের অবিকল প্রতিরূপ নির্মাণ করে এবং সমস্ত ধর্ম্মদ্রোহীতার কেন্দ্রে অবস্থান করে|

এখন সেই সাপ প্রলোভনের মধ্যে দিয়ে হবাকে এতদূরে নিয়ে গিয়েছে যে তিনি শয়তানের দ্বারা সরাসরি আক্রান্ত ঈশ্বরের বাক্য শুনতে প্রস্তুত| সে হবাকে বলেছিল, ‘‘তুমি কোনক্রমে মরিবে না’’ যদি তুমি নিষিদ্ধ ফলটি খাও|

‘‘নারী যখন দেখিলেন, ঐ বৃক্ষ সুখাদ্যদায়ক ও চক্ষুর লোভজনক, আর ঐ বৃক্ষ জ্ঞানদায়ক বলিয়া বাঞ্ছনীয়, তখন তিনি তাহার পাড়িয়া ভোজন করিলেন; পরে আপনার মত নিজ স্বামীকে দিলেন, আর তিনিও ভোজন করিলেন| তাহাতে তাঁহাদের উভয়ের চক্ষু খুলিয়া গেল, এবং তাঁহারা বুঝিতে পারিলেন যে তাঁহারা উলঙ্গ; আর ডুমুর-বৃক্ষের পত্র সিঙ্গাইয়া ঘাগ্রা প্রস্তুত করিয়া লইলেন’’ (আদিপুস্তক 3:6, 7)|

তারা ঈশ্বরের বাক্যের অবাধ্য হয়েছিলেন| এখন তারা জেনেছেন যে তারা ছিলেন উলঙ্গ পাপী| অনুশোচনা করা এবং ঈশ্বরের কাছে দয়া ভিক্ষা করার পরিবর্তে, ‘‘তাহারা ডুমুরবৃক্ষের পত্র সিঙ্গাইয়া ঘাগ্রা প্রস্তুত করিয়া লইলেন’’ (আদিপুস্তক 3:7)| আজকের দিনেও পাপীরা ঠিক এইরকম করে থাকেন| তারা বিভিন্ন উপায়ে নিজেদের পাপ ঢেকে রাখার চেষ্টা করে, ‘‘উত্তম কর্ম’’ করার দ্বারা অথবা ‘‘ভক্তির অবয়বধারী’’ (II তীমথিয় 3:5) হয়ে নিজেদের উদ্ধারের প্রচেষ্টা করার দ্বারা|

এখন যখন তারা ঈশ্বরের কন্ঠস্বর তাদের আহ্বান করছেন বলে শুনতে পেলেন, ‘‘আদম ও তাঁহার স্ত্রী সদাপ্রভুর সম্মুখ হইতে লুকাইলেন...তখন সদাপ্রভু ঈশ্বর, আদমকে ডাকিয়া কহিলেন, তুমি কোথায়?’’ (আদিপুস্তক 3:8, 9)| ডঃ ডব্লিউ. এ. ক্রিস্ওয়েল বলেছিলেন,

সর্বাপেক্ষা দুঃখজনক বাক্য যাহা ঈশ্বর পূর্বে কখনো উচ্চারণ করেন নাই তাহা এইরূপ, ‘‘আদম, তুমি কোথায়?’’ [ইহার পূর্বে] সেই মানব এবং মানবী স্বর্গীয় আগ্রহের সহিত সদাপ্রভু ঈশ্বরের সম্মুখে সাক্ষাৎ করিতেন...সর্বদা উহা হইত একটি আনন্দদায়ক, গৌরবময় সময় যখন তিনি [ঈশ্বর] তাহাদের সহিত কথা কহিতে আসিতেন| তাহাদের কোনরূপ ভীতি ছিল না| কিন্তু এখন আছে [তাহারা পাপ করিয়াছে]| সেই মানব ভীত| উভয়েই লজ্জিত| আর সদাপ্রভু ক্রন্দনরত স্বরে ডাকিতেছেন, ‘‘হে আদম, তুমি কোথায়, আর তুমি কি করিয়াছ?’’ সেই হৃদয়ভঙ্গকারী প্রশ্নের উত্তর হইল পাপ, অনুগ্রহ এবং প্রায়শ্চিত্তের সম্পূর্ণ এক কাহিনী (W. A. Criswell, Ph.D., Basic Bible Sermons on the Cross, Broadman Press, 1990, p. 55) |

আজ রাত্রে ঈশ্বর আপনাকে ডাকছেন, ‘‘হে পাপী, তুমি কোথায়?’’

"তখন সদাপ্রভু ঈশ্বর আদমকে ডাকিয়া কহিলেন, তুমি কোথায়? (আদিপুস্তক 3:9)|

প্রয়োগ

এখন আমি আপনাদের এই অধ্যায় এবং পাঠ্যাংশের প্রয়োগ দেখাব| আজ রাত্রে আপনি কোথায় রয়েছেন?

1. আপনি কি ঈশ্বর থেকে লুকিয়ে বেড়াচ্ছেন? যারা অনুতপ্ত হতে এবং যীশুর কাছে আসতে অস্বীকার করেন তারাই ঈশ্বরের থেকে পালিয়ে বেড়ান| আপনি কি তাই? যখন পবিত্র আত্মা আপনাকে খ্রীষ্টের কাছে আসার আহ্বান জানান তখন কি আপনি ঈশ্বরের থেকে লুকিয়ে থাকেন? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

2. বাইবেল অস্বীকার করার কারণে কি আপনি ঈশ্বর থেকে লুকিয়ে থাকছেন? শয়তান কি আপনার মধ্যে এই চিন্তা ঢুকিয়েছে যে ঈশ্বরের বাক্য হল শুধুমাত্র একটা প্রাচীন বই? এতে বিশ্বাস করার প্রয়োজন আপনার নেই? সে কি আপনাকে বলেছে যে সেখানে লাভের করার মত কোন স্বর্গ এবং ভয় করার মত কোন নরক নেই? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

3. আপনি কি মনে করেন যে আপনি একটা ভাল এবং নৈতিক জীবনে বাস করছেন? আপনি কি মনে করেন যে আপনি যথেষ্ট ভাল, যাতে করে পাপ স্বীকার করার এবং খ্রীষ্টের প্রায়শ্চিত্তের দ্বারা পরিত্রাণপ্রাপ্ত হওয়ার প্রয়োজন আপনার নেই? আপনাকে উদ্ধার করতে আপনার ভাল এবং নৈতিক জীবন কি যথেষ্ট? এটাই কি সেই মিথ্যা যা শয়তান আপনাকে বলেছে? এটাই কি আপনি বিশ্বাস করেন? আজ রাত্রে সেটাই আপনার পাপ?

4. যখন উদ্দীপনায় ঈশ্বর নেমে এসেছিলেন আপনি কি আপনার পাপের চেতনা অনুভব করেছিলেন, আপনার মন এবং বিদ্বেষপূর্ণ হৃদয়ের পাপের চেতনা? যারা নিজেদের পাপের জন্য কাঁদছিলেন তাদের দিকে কি আপনি তাকিয়েছিলেন এবং ভেবেছিলেন তারা দুর্বল বা বোকা? আপনি কি এখন সেটাই ভাবেন? শয়্তান কি আপনাকে চিন্তা করতে বাধ্য করেছে যে যারা কাঁদেন এবং অনুতাপ করেন তারা সকলে বোকা? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

5. যখন আপনি শুনেছিলেন জন্ কেগান পাপের সঙ্গে সংগ্রাম করেছেন সেই বিন্দু পর্যন্ত যে তিনি রাত্রে ঘুমাতে পারতেন না, আপনি কি ভেবেছিলেন যে তিনি একটু হলেও অদ্ভুত? আপনি কি ভেবেছিলেন যে এর কোন দরকার ছিল না, আর সেটা ছিল একটি মূর্খ বালকের পাপ বিষয়ক উদ্বেগ? শয়তান কি আপনাকে ভাবতে বাধ্য করেছিল যে জন্ কেগান ছিলেন অতিরিক্ত ভাবপ্রবণ? আপনার আত্মাতে এই ধরনের কোন কিছুর প্রয়োজন আপনার নেই? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

6. যখন আমি আপনাদের বলছি যে একটা প্রকৃত মন পরিবর্তনে আপনাকে পাপের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করতে হবে এবং আপনার পাপের জন্য গভীর দুঃখ অনুভব করতে হবে, তখন কি আপনি শয়তানের কথা শুনছিলেন? আমি যা বলেছিলাম সেগুলি কি আপনি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন, এবং ভেবেছিলেন যে পথে আপনি রয়েছেন সেটাই ঠিক আছে? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

7. আপনি যখন আমাকে সেটা বলতে শোনেন, আপনি কি ভেবেছিলেন যে আপনার করা পাপগুলি খুব কম এবং তা আপনাকে নরকে যাওয়ার দন্ডাদেশ দেবে না? আপনি কি শয়তানকে বিশ্বাস করেছিলেন যখন সে আপনার মনে সেই চিন্তা প্রবেশ করিয়েছিল? আপনি কি মনে করেন আপনার পাপগুলি এতই অল্প যে ঈশ্বর আপনার বিচার করবেন না? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

8. আপনি কি হারানো বন্ধুদের সঙ্গে এখনও যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন? আপনি কি ভেবেছিলেন ঈশ্বর আপনাকে আশীর্ব্বাদ করবেন এবং উদ্ধার করবেন, এমনকী যদিও আপনার কাছে সেইসব বন্ধুরা রয়েছেন যারা খ্রীষ্ট বিশ্বাসী নন? যখন আপনি শুনেছিলেন যে বাইবেল বলছে, ‘‘যে কেহ...জগতের মিত্র হইতে বাসনা করে সে আপনাকে ঈশ্বরের শত্রু করিয়া তুলে’’ (যাকোব 4:4) তখন আপনি কি জাগতিক বন্ধুদের ত্যাগ করেছিলেন? অথবা আপনি কি ভেবেছিলেন তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব থাকাটাই ঠিক ছিল? শয়তান কি সেটা আপনার হৃদয়ে প্রবেশ করিয়েছিল? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

9. আপনার চেনা কারোর সঙ্গে যৌনসংসর্গ করার বিষয়ে আপনি কি এখনও ভেবে চলেছেন - এমনকী এই মন্ডলীরই কারও সঙ্গে - শয়তান কি আপনাকে বলেছে সেই সমস্ত ভাবনা এবং তাদের সঙ্গে নিয়ে আপনার কামনাকে উদ্দীপ্ত করাটা ঠিক হয়েছে? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

10. আপনি কি ভেবেছিলেন যে ঘন্টার পর ঘন্টা ভিডিও গেমস খেলতে থাকাটা সঠিক? অথবা শয়তান আপনাকে বলে যে সেটা একটা নির্দোষ মজা? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

11. পালক হিসাবে আমাকে আপনি কি ভয় পান? আমাকে আপনি ভয় পাচ্ছেন কেন? এটা কি এইজন্যে যে আমি অত্যন্ত কঠোর? এটা কি এইজন্যে যে আমি যা বলছি বা করছি তার মধ্যে আপনি কিছু ত্রুটি খুঁজে পাচ্ছেন? শয়তান কি আমাকে ভয় করতে আপনাকে বাধ্য করাচ্ছে কারণ আপনি ঈশ্বর থেকে লুকিয়ে রয়েছেন, আর সেইজন্যে নিখুঁত না হওয়ার কারণে আমাকে দোষারোপ করছেন? জন্ কেগানের সঙ্গে আপনিও কি একসঙ্গে তাই বলতে পারেন যা তিনি আজ সকালের ধর্ম্মোপদেশে আমার সম্বন্ধে বলেছেন, ‘‘আমাদের পালকের জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানাই’’? ‘‘আপনার আত্মার প্রহরী’’ হিসাবে আপনি কি আমাকে ভালবাসেন - অথবা আপনি আমাকে ভয় পান এবং আপনার গুপ্ত জীবন, ঈশ্বরের মুখপাত্র হিসাবে, আমার থেকে লুকান, যেমন আদম ঈশ্বর থেকে মুখ লুকিয়েছিলেন পাছে তার গুপ্ত জীবন তিরস্কৃত হয়? আমাকে ভয় পেতে শয়তান কি আপনাকে বাধ্য করেছে? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ? (ইব্রীয় 13:17)|

12. প্রথমে পালকের সঙ্গে কথা না বলে আপনি কি নির্দ্দিষ্ট কাউকে আপনার ছেলেবন্ধু বা মেয়েবন্ধু হিসাবে পেতে চেয়েছিলেন? যিনি মন্ডলী পরিচালনা করেন সেই পালককে আপনি কি বিশ্বাস করেছিলেন, অথবা তার থেকে লুকিয়ে ছিলেন, যেমন আদম করেছিলেন সেই বাগানে? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?

13. সেখানে কি আপনার হৃদয়ের কোন মন্দ বিষয় রয়েছে যা আপনার মুখ বন্ধ করে রাখে যখন আমরা আপনাকে প্রশ্ন করি, ‘‘আপনি কি খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করবেন?’’ শয়তান আপনাকে যা বলেছে সেটাই কি সেই মন্দ বিষয়? সে কি আপনাকে বলেছে যে যদি আপনি কোন কথা না বলেন তাহলে আপনি যীশুকে অস্বীকার করার জন্য ক্ষমা পাবেন? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ নয়?

14. মন্ডলীর কারোর প্রতি কি আপনি ঈর্ষাপরায়ণ? তারা প্রশংসিত হচ্ছেন কিন্তু আপনি হচ্ছেন না এই কারণেই কি আপনি ঈর্ষাপরায়ণ? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ নয়?

15. যখন আমন্ত্রণ জানান হয় আপনি কি তা প্রত্যাখ্যান করেন? বাইবেল যা বলছে, ‘‘হীনবুদ্ধির পথ নিজ দৃষ্টিতে উত্তম, কিন্তু যে মন্ত্রণা শুনে সে জ্ঞানী’’ সেটা কি আপনি অস্বীকার করেন? আপনি কি তেমনই মূর্খ যে ধর্ম্মোপদেশের শেষে মন্ত্রণা নিতে অস্বীকার করেন? আজ রাত্রে সেটাই কি আপনার পাপ?


আমি যেসব পাপের উল্লেখ করেছি অথবা অন্য কোন পাপ কি এই বছর আমাদের মন্ডলীতে উদ্দীপনার সময় খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করা থেকে আপনাকে দূরে সরিয়ে রেখেছিল? ‘‘হে আদম, তুমি কোথায়?’’ আপনি কি ঈশ্বরের কন্ঠস্বর শুনেছেন আপনাকে আপনার পাপের সম্বন্ধে বলছেন? আর আপনি কি আদমের সঙ্গে এক সুরে বলতে পারেন, ‘‘আমি তোমার স্বর শুনিয়াছি...এবং আমি ভীত...এবং আমি নিজেকে লুকাইয়াছি’’? শাস্ত্রের দুটি পদ উল্লেখ করে আমি আপনাদের ছেড়ে দিচ্ছি,

‘‘যে আপন অধর্ম্ম সকল ঢাকে, সে কৃতকার্য্য হইবে না; কিন্তু যে তাহা স্বীকার করিয়া ত্যাগ করে, সে করুণা পাইবে’’ (হিতোপদেশ 28:13)|

‘‘কিন্তু তিনি যেমন জ্যোতিতে আছেন, আমরাও যদি তেমনি জ্যোতিতে চলি, তবে পরস্পর আমাদের সহভাগিতা আছে, এবং তাঁহার পুত্র যীশুর রক্ত আমাদিগকে সমস্ত পাপ হইতে শুচি করে’’ (I যোহন 1:7)|

অনুগ্রহ করে সকলে একসঙ্গে উঠে দাঁড়ান| ডঃ কেগান, জন্ কেগান এবং আমি এখানে এই পুলপিটের সামনে থাকব তাদের যে কাউকে পরামর্শ দিতে যারা পাপ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে এবং প্রভু যীশু খ্রীষ্টকে বিশ্বাস করতে - এবং তাঁর বহুমূল্য রক্তের দ্বারা সমস্ত পাপ থেকে শুচি হতে প্রস্তুত রয়েছেন| আমরা 7নং গানটি করছি, শুধু নিজের আসন ত্যাগ করুন আর এখানে সামনে চলে আসুন| এটা হল 7 নং|

পরিত্রাতা, প্রার্থনা করি, আমার সকল দর্শন পূর্ণ কর,
   হউক আজ শুধু যীশুকেই দেখি;
যদিও উপত্যকার মধ্য দিয়া তুমি আমায় পরিচালনা কর,
   তোমার অম্লান গৌরব আমায় পরিবেষ্টন করে|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, স্বর্গীয় পরিত্রাতা,
   তোমার গৌরবের সহিত আমার আত্মা উজ্জ্বল হইবে|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, যাহা সমস্ত আমি দেখি
   তোমার পবিত্র আকার আমাতে প্রতিবিম্বিত হউক|

সকল ইচ্ছা, আমার সকল দর্শন পূর্ণ কর
   তোমার গৌরবের জন্য রাখ; আমার আত্মা অনুপ্রাণিত,
তোমার পূর্ণাঙ্গ রূপ, তোমার পবিত্র প্রেম,
   উর্দ্ধ হইতে আলোর স্রোত আমার পথ|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, স্বর্গীয় পরিত্রাতা,
   তোমার গৌরবের সহিত আমার আত্মা উজ্জ্বল হইবে|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, যাহা সমস্ত আমি দেখি
   তোমার পবিত্র আকার আমাতে প্রতিবিম্বিত হউক|

পাপের ধ্বংস হউক, আমার সকল দর্শন পূর্ণ কর
   উজ্জ্বল জ্যোতি অন্তরে প্রতিবিম্বিত হউক|
আসুন শুধু তোমার আশীর্ব্বাদের মুখ দেখি,
   তোমার অনন্ত অনুগ্রহ আমার আত্মার পর্ব্ব|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, স্বর্গীয় পরিত্রাতা,
   তোমার গৌরবের সহিত আমার আত্মা উজ্জ্বল হইবে|
আমার সমস্ত দর্শন পূর্ণ কর, যাহা সমস্ত আমি দেখি|
   তোমার পবিত্র আকার আমাতে প্রতিবিম্বিত হোক|
(“Fill All My Vision” by Avis Burgeson Christiansen, 1895-1985) |


যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তাহলে ডঃ হাইমার্স আপনার কাছ থেকে কিছু শুনতে চান| যখন আপনি ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখবেন তখন অবশ্যই তাকে জানাবেন যে কোন দেশ থেকে আপনি তাকে লিখছেন নয়ত তিনি আপনার ই-মেলের জবাব দিতে সক্ষম হবেন না| যদি এই প্রচার আপনাকে আশীর্বাদ দান করেছে তবে ডঃ হাইমার্সকে একট ই-মেল পাঠান এবং তাকে সেইকথা জানান, কিন্তু কোন দেশ থেকে আপনি লিখছেন চিঠিতে সেটা অবশ্যই অন্তর্ভূক্ত করবেন| ডঃ হাইমার্সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net (এখানে ক্লিক করুন) | আপনি যে কোন ভাষায় ডঃ হাইমার্সকে চিঠি লিখতে পারেন, কিন্তু যদি পারেন তো ইংরাজিতেই লিখুন| যদি আপনি ডঃ হাইমার্সকে ডাক-ব্যবস্থার মাধ্যমে চিঠি পাঠাতে চান, তবে তার ঠিকানা হল P.O. Box 15308, Los Angeles, CA 90015 | আপনি তাকে (818)352-0452 নম্বরে ফোন করতে পারেন|

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটে www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন| ক্লিক করুন “প্রচার পান্ডুলিপি|”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রাংশ পাঠ করেছেন মিঃ নোহ সং: আদিপুস্তক 3:8-10 |
সংবাদের আগে একক সংগীত পরিবেশন করেছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিনকেড গ্রিফিত:
“Search Me, O God” (Psalm 139:23-24)/
“I Am Coming, Lord” (by Lewis Hartsough, 1828-1919; chorus only) |