Print Sermon

এই ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য হল ধর্ম্মোপদেশের পান্ডুলিপি এবং ধর্ম্মোপদেশের ভিডিওগুলি বিশ্বব্যাপী পালক ও মিশনারিদের বিনামূল্যে সরবরাহ করা, বিশেষ করে তৃতীয় বিশ্বে, যেখানে ধর্ম্মতত্ত্বমূলক সেমিনারী বা বাইবেল স্কুল থাকলেও খুব কম রয়েছে|

এই সমস্ত প্রচারের পান্ডুলিপি এবং ভিডিওগুলি এখন www.sermonsfortheworld.com ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রতি মাসে 221টিরও বেশি দেশের প্রায় 1,500,000 কম্প্যুটারে যায়| শত শত লোক ইউটিউবের ভিডিওর মাধ্যমে এগুলি দেখেন, কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তারা ইউটিউব ছেড়ে বেরিয়ে যান এবং আমাদের ওয়েবসাইটে চলে আসেন| ইউটিউব আমাদের ওয়েবসাইটে লোক এনে দেয়| প্রচারের এই পান্ডুলিপিগুলি প্রতি মাসে 38টি ভাষায় প্রায় 120,000 কম্প্যুটারে প্রচারিত হয়| প্রচারের পান্ডুলিপিগুলি গ্রন্থসত্ত্ব দ্বারা সংরক্ষিত নয়, কাজেই প্রচারকগণ আমাদের অনুমতি ছাড়াই এইগুলি ব্যবহার করতে পারেন| মুসলিম এবং হিন্দু রাষ্ট্রসমেত, সমগ্র পৃথিবীতে সুসমাচার ছড়িয়ে দেওয়ার এই মহান কাজে সাহায্য করার জন্য কিভাবে আপনি একটি মাসিক অনুদান প্রদান করতে পারেন তা জানতে অনুগ্রহ করে এখানে ক্লিক করুন|

যখনই আপনি ডঃ হেইমার্‍সকে লিখবেন সর্বদা তাকে জানাবেন যে আপনি কোন দেশে বাস করেন, অথবা তিনি আপনাকে উত্তর দিতে পারবেন না| ডঃ হেইমার্‌সের ই-মেল ঠিকানা হল rlhymersjr@sbcglobal.net |




বিদ্রোহী লোকেদের কাছে প্রচার

PREACHING TO A REBELLIOUS PEOPLE
(Bengali)

লেখকঃ ডাঃ আর.এল.হাইমার্স,জুনি.
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

লস এঞ্জেলেসের ব্যাপটিস্ট ট্যাবারনেকেলে এক সংবাদ
প্রচারিত হয়েছিল সদাপ্রভুর এক সন্ধ্যায় ১৯শে জানুয়ারী, ২০১৪
A sermon preached at the Baptist Tabernacle of Los Angeles
Lord’s Day Evening, January 19, 2014

“তিনি আমাকে বলিলেন, হে মনুষ্য সন্তান, আমি তাহাকে ইজ্রায়েলের সন্তানদের কাছে, যাহারা আমার বিরুদ্ধাচারণ করিয়াছে সেই বিদ্রোহী জাতিগণের কাছে তাহাকে প্রেরণ করিতেছিঃ তাহারা ও তাহাদের পিতৃপুরুষেরা আমার বিরুদ্ধে অধর্মাচারণ করিয়াছে, অদ্যকার দিন পর্যন্ত করিতেছে। সেই সন্তানগণ দৃঢ়মুখ ও কঠিনচিত্ত। আমি তাহাদের নিকট তোমাকে প্রেরণ করিতেছি; তুমি তাহাদিগকে বলিও, সদাপ্রভু সদা এই কথা বলেন। আর তাহারা, তাহারা শুনুক বা না শুনুক, বা তাহারা ইহা বহন করুক বা না করুক,(কারন তাহারা বিদ্রোহী কুল,) তথাপি ইহা জানিতে পাইবে তাহাদের মধ্যে একজন ভাববাদী উপস্থিত হইল” (ইজিকিয়েল ২:৩-৫).


বার বার আমরা বাইবেলের মধ্যে বিদ্রোহী মনুষ্য জাতির প্রতি ঈশ্বরের অদ্ভুত ধৈর্যের বিষয় দেখতে পাই। সেই মহা জল প্লাবনের আগে মনুষ্য জাতির মধ্যে ঈশ্বর সাংঘাতিক মন্দতাকে দেখেছিলেন। তথাপি ঈশ্বর ১২০ বৎসর তাঁর বিচারকে ধরে রেখেছিলেন-যাতে নোয়াহ, “এক ধার্মিকতার প্রচারক হিসেবে,” তাদের সতর্ক করে দিয়েছিলেন(২য় পীটার ২:৫)। পরবর্তী সময়ে ঈশ্বর তাঁর পরাক্রমশীল কার্য্য ও চিহ্নের দ্বারা লোকেদের মিশর থেকে বার করে নিয়ে আসেন। কিন্তু তারা তাঁর দয়ার দান হিসেবে ৪০ বৎসর কাল যাবত মোজেসের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ও বচসা করতে থাকে। পুণরায়, তিনি যখন তাদের পাপের জন্য তাঁর লোকেদের ব্যাবিলনে বন্দী অবস্থায় প্রেরণ করেন,ঈশ্বর তাদের ছেড়ে চলে যান নি। তিনি ভাববাদী ইজেকিয়েলকে তাদের কাছে প্রচার করার জন্য পাঠান, “প্রভু সদাপ্রভু এই কথা বলেন” (ইজেকিয়েল ২:৪)। এই যুগের প্রায় শেষ সময়ে আজ আমরা ঈশ্বরের বিচারের কাছাকাছি রয়েছি। এই জগতের সমস্ত লোকেরা “সদাপ্রভু,ও তাঁর অভিষিক্ত ব্যাক্তির বিরুদ্ধে সামুহিক ভাবে প্রচন্ড বিদ্রোহের আচরণ করেছে, বলছে, “আইস আমরা উহাদের বন্ধন ছিঁড়িয়া ফেলি, আপনাদের হইতে উহাদের রজ্জু খুলিয়া ফেলি” (গীতসংহিতা ২:২,৩)। কিন্তু ঈশ্বর তথাপি এখনও তাদের কাছে প্রচারক পাঠাচ্ছেন তাদের সাবধান করার জন্য যা “আসন্ন অভিশাপের হাত থেকে পলায়ন করার জন্য” (ম্যাথুজ ৩:৭)। হ্যাঁ, এমনকি এই ভয়ানক সময়ে, এই যুগের শেষে, ঈশ্বর এখনও পর্যন্ত প্রচারকদের পাঠাচ্ছেন পাপীদের কাছে তাদের সতর্ক করে দেওয়ার জন্য আসন্ন শেষ বিচারের দিন সম্বন্ধে ।

আর তাই, বিশ্বস্ত প্রচারক ভাববাদী ইজেকিয়েলের শিক্ষা থেকে অনেক কিছু শিখতে পারে। তাদের বেশ কয়েক জনকে আমি আজকের পাঠ্যাংশে আপনাদের কাছে সংপৃক্ত করবো।

১. প্রথম, বিশ্বস্ত প্রচারকেরা ভাববাদীর কাছে শেখেন যে বিদ্রোহী লোকেদের কাছে প্রচার করার জন্য তাদের পাঠানো হয়েছে।

আমাদের পাঠ্যাংশ বলে,

“হে মনুষ্য সন্তান, আমি তোমাকে প্রেরণ করেছি ইজ্রায়েল সন্তানদের কাছে, তোমাকে পাঠিয়েছি বিদ্রোহী জাতিগণের কাছে যাহারা আমার বিদ্রোহী হয়েছেঃ তাহারা ও তাহাদিগের পিতৃপুরুষেরা আমার বিরুদ্ধে অধর্মাচারণ করিয়ে আসিতেছে, অদ্যকার দিন পর্যন্তও করিতেছে” (ইজেকিয়েল ২:৩).

আমরা যেন কোন ভাবেই চিন্তা না করি যে ব্যাবিলনের বন্দীত্বের সময়ে ইহুদীরাই কেবল বিদ্রোহী জাতি ছিলেন। নিশ্চিত ভাবেই আমরা যেন কোন মতেই তা চিন্তা না করি! এই পাঠ্যাংশে “জাতি” শব্দকে এমন ভাবে অনুবাদ করা হয়েছে তা আসলে ঈশ্বরের মনোমত লোক হিসাবে স্বাভাবিক ভাবে হিব্রু শব্দের মতো নয়। এখানে হিব্রু যে শব্দ তা হল “গই।” ইহা হল এমন একটা শব্দ যা ইহুদীরা পরাজিতদের, পৌত্তলিক, ও বিধর্মীদের ক্ষেত্রে ব্যাবহার করে থাকে। ইহার অর্থ হল ইজ্রায়েল ব্যাবিলনের মধ্যে বিধর্মীদের থেকেও খারাপ অবস্থায় রয়েছে!

মনুষ্য জাতির কি প্রকারই না চিত্র ইহা! আমরা হলাম এক বিদ্রোহী মানব প্রজাতি! কি জাতি? মনুষ্য প্রজাতি! ঈশ্বর বলেন যে আমরা হলাম বিদ্রোহী লোক, “এক বিদ্রোহী জাতি যারা আমার বিরুদ্ধে বিদ্রোহচারণ করেছে” (ইজেকিয়েল ২:৩)। বাইবেল বলে, “আমরা সকলে ভ্রান্ত মেষের ন্যায় প্রত্যেকেই নিজ নিজ পথের দিকে ফিরেছি” (ঈশা ৫৩:৬)। বাইবেল বলে, “কিন্তু এই লোকেদের চিত্ত অবাধ্য ও প্রতিকুলচারী (জেরেমিয় ৫:২৩)। সমুদয় মনুষ্য জাতি বিপথগামী হয়েছে, ঈশ্বরের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী ও বিদ্রোহী হয়ে উঠেছে! বাইবেল বলে, “সকলেই বিপথে গিয়েছে, তাহারা একসঙ্গে অকর্মণ্য হয়েছে; সৎকর্ম করে এমন কেহই নাই, না, একজনও নাই” (রোমানস ৩:১২)। বাইবেল বলে, “ কারণ সেই এক মনুষ্যের অনাজ্ঞা বহতা দ্বারা অনেককে পাপী বলিয়া ধরা হইল” (রোমানস ৫:১৯)। আদম ঈশ্বরের আজ্ঞার বিরুদ্ধে বিরুদ্ধাচারণ করেছিল। স্বভাবের দ্বারা সমস্ত মনুষ্যই ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী হয়েছে। আমরা “আপন মাংসের অভিলাষে অভিশাপের সন্তান ছিলাম” (এফেসিয়ানস ২:৩)। বাইবেল বলে,

“তাহলে কি দাঁড়ালো? আমাদের অবস্থা কি অন্য লোকেদের থেকে শ্রেষ্ঠ ? না, কোন ভাবেই নয়ঃ কারণ আমরা ইতিপূর্বে দোষ করিয়াছি ইহুদী ও গ্রীক উভয়ের বিরুদ্ধে, আর তাহারা সকলেই পাপের অধীন; যেমন লিখিত আছে, ধার্মিক একজনও নাই, না, একজনও নাঃ এমন একজনও নাই যে ঈশ্বরকে বুঝবে, ঈশ্বরের অণ্বেষণ করবে এমন কেহই নাই। সকলেই বিপথে গিয়াছে, তাহারা সকলে একসঙ্গে অকর্মণ্য হইয়াছে ; সৎকর্ম করে এমন একজনও নাই, না, একজনও না। তাহাদের কণ্ঠ অনাবৃত কবর স্বরুপ; তাহারা জিহবা দ্বারা ছলনা করিয়াছে; তাহাদের ওষ্ঠধরের নিম্নে কালসর্পের বিষ মজুতঃ তাহাদের মুখ অভিশাপ ও কটু কাটব্যে পূর্ণঃ তাহাদের চরণ রক্তপাতের জন্য ত্বরাণ্বিতঃ পায়ে পায়ে ধ্বংস ও বিনাশঃ শান্তির পথ তাহাদের জানা নাইঃ ঈশ্বর ভয় তাহাদের চক্ষুর অগোচরে” (রোমানস ৩:৯-১৮).

এই সমস্ত কিছু আমাদের প্রতি নেমে এসেছে আদমের থেকে। আমাদের প্রকৃত স্বভাবের দিক দিয়েই আমরা ঈশ্বরের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধাচারণ করার স্বভাবকে লাভ করেছি। ডাঃ মার্টিন লয়েড-জোনস বলেন,

পাপের মধ্যে মানুষের এই যে বর্ণণা তা কিন্তু খুবই সরল সত্য, এক সাংঘাতিক সত্য। আর পাপই এই বিষয়টা আমাদের কাছে নিয়ে এসেছে... ঈশ্বর পবিত্র আত্মার দ্বারা আমাদের দোষী সাব্যস্ত করুন কেননা এর পূর্বে আমরা শাস্তিপ্রাপ্ত হই নি এটা দেখার জন্য যে আমরা স্বভাবে কি-ক্রোধের সন্তান,আর এমন কি অন্যরাও পর্যন্ত (Martyn Lloyd-Jones, M.D., Romans, Chapter 2:1-3:20, The Righteous Judgment of God, The Banner of Truth Trust, 2005 reprint, p. 214).

ঈশ্বর মনুষ্যকে তার পাপের মধ্যে বিচার করেন। ইহা খুব একটা সুন্দর ছবি নয়, কিন্তু ইহা এক নির্ভুল চিত্র। আমি ১৭ বৎসর বয়স থেকেই শুরু করেছি এই ভেবে যে মানুষ খুব সহজেই উদ্ধার লাভ করবে। কিন্তু আমি ভুল ছিলাম। আমার সর্বপ্রথম যে সংবাদ তা বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল,আর আমাকে বলা হয়েছিল আমি যেন সেই ভাবে আর প্রচার না করি। কিন্তু এক “যুবক নেতা” যিনি আমাকে বলেছিলেন তা ছিল বিকৃত, মন্ডলীর মধ্যে বিরক্ত করা হচ্ছিল ছেলেমেয়েদের। সুতরাং ঈশ্বর আমাকে বললেন, “ওর কথা শুণো না, রবার্ট।” সেমিনারীতে প্রচারকারী অধ্যাপক বলেছিলেন, “তুমি খুব ভালো প্রচারক, কিন্তু এক সমস্যা উৎপন্নকারী হিসেবে তুমি এক খারাপ খ্যাতি অর্জন করেছো।” তিনি এইজন্য তা বলেছিলেন কেননা আমি অধ্যাপককে উত্তর দিচ্ছিলাম যিনি বাইবেলকে আক্রমণ করেছিলেন। এরপরে আমি আরো একজন প্রচারকের কাজ শুরু করি যিনি সান ফ্রান্সসিসকোর কাছে হিপিদের কাছে পৌঁছেছিলেন। সেই প্রচারক আমার সংবাদের সমালোচনা করেছিলেন-আর তা এতোটাই প্রবল ছিল যার ফলে পরিশেষে আমাকে মন্ডলী থেকে পদত্যাগ করেতে হয় আর তারপরে আমি বাড়িতে লস এঞ্জেলেসে ফিরে আসি। এর পরে আমি জানতে পারি যে সেই প্রচারক সেই মন্ডলীতে বেশ কিছু মেয়েদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছে। তারপরেই আমি জানতে পারি যে কেন তিনি আমার সংবাদের সমালোচনা করতেন। পাপের প্রতি চেতনা লাভ করার বিষয়টি তিনি পছন্দ করতেন না।

অনেক প্রচারক কখনও সেই সংবাদটি পান না। তারা বিস্মিত হয়ে জয়ায় যে কেন তাদের কথা কেউ শুনে না। কিন্তু এর উত্তর তো সেখানেই রয়েছে, আমাদের বাইবেলের সেই পাতায়। ঈশ্বর আমাদের পাঠিয়েছেন “সেই বিদ্রোহী জাতির কাছে যারা তাঁর প্রতি বিদ্রোহ করেছে [তাঁকে]” (ইজেকিয়েল ২:৩)। সেই পদের উপরে ডাঃ ম্যাকগী যে মন্তব্য তাতে আমি সম্মতি প্রকাশ করি। তিনি বলেন,

সুসমাচার নিয়ে পৌঁছানো সব থেকে কঠিন যে মানুষগুলির কাছে তারা হলেন মন্ডলীর সদস্য সদস্যারা...যদিও তারা মন্ডলির মধ্যে, তারা বাস্তবে ঈশ্বরের বিরুদ্ধে...তারা কোন সময়েই চায় না যেন কোন একজন তাদের মধ্যে এসে এই কথা বলে যে তারাই হলেন পাপী... তাদের কাছে পৌঁছানো খুবই কঠিন, আর আমার হৃদয় আমার সকল ভাইদের প্রতি যারা আজ তাদের পরিচর্যার কাজে রয়েছেন-তারা যেন এক উষ্ণ কেদারায় বসে রয়েছেন। আর আমি যারা পরিচর্যা কাজে যুক্ত হবার জন্য বিবেচনা করছেন কেননা তারা আহবানের বিষয়ে নিশ্চিত সেই প্রকার যে কোন যুবক ব্যাক্তিদের কাছে উপদেশ প্রদান করতে চাই। পরিচর্যা কাজে যুক্ত হবার থেকে নিজের জীবন বীমা বা তেমন কিছু বেচে দিন। আজকের দিনে মিনিস্ট্রিতে যোগ দেওয়া অত্যন্ত কঠিন আপনি যতই না ঈশ্বরের বাক্যের জন্য দাঁড়াতে চান (J. Vernon McGee, Th.D., Thru the Bible, Thomas Nelson Publishers, 1982, volume III, p. 444; note on Ezekiel 2:3-4).

ম্যাকগী কি বর্ণনা করেছেন? তিনি বর্ণনা করেন যে মন্ডলীতে যে লোকেরা রয়েছে তারা প্রায় হারিয়ে গিয়েছে। তাদের সকলেই “সিদ্ধান্ত” নিয়েছেন-কিন্তু বাস্তবে তারাই “ঈশ্বরের বিরুদ্ধে রয়েছেন।” সমগ্র আমেরিকার সমস্ত মন্ডলীতে দৃশ্যটা প্রায় একই!

এখন আমি আপনার কাছে এসেছি, এবং আমি ব্যাক্তিগত ভাবে বলছি। আপনি ঈশ্বরের বিরুদ্ধাচারী। আর এই কারণেই আপনি অপরিত্রাণ প্রাপ্ত রয়ে গিয়েছেন। আপনি নানা অজুহাত দেখান, কিন্তু আপনার হৃদয় ঈশ্বরের প্রতি বিরুদ্ধাচারণ করছে। আপনি নিজের পাপের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে অনুতপ্ত হননি। আপনার বিরুদ্ধাচারণের জন্য আপনি অনুশোচনা করেন নি। আপনি এগিয়ে চলেছেন, নির্লজ্জ মুখেই, প্রকাশ্যে জীবন্ত ঈশ্বরের বিরোধিতা করছেন! আমি আপনাকে ঠিক ঠাক বলে দেব আপনি কোথায় চলেছেন। সেখানে কেবল একটাই জায়গা আছে যেখানে সম্ভবত আপনি যেতে পারেন-আর তা হল নরক! আপনি যদি দোষী বলে নিজের পাপ স্বীকার না করেন, আপনি যদি নিজের পাপের জন্য দুঃখ প্রকাশ না করেন, তবে আপনি কোন ভাবেই খ্রীষ্টকে গ্রহণ করার প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করবেন না-ততক্ষণ আপনি নিজের বিদ্রোহেই এগিয়ে যাবেন ঈশ্বর যতক্ষণ পর্যন্ত না সেই সংযোগকে ছিন্ন করছেন-আপনি সেই নর্দমা দিয়ে এগিয়ে যাবেন-সেই অনন্তকালীন অগ্নিতে যার অগ্নি কোণ সময়েই নির্বারিত হয় না!

২. দ্বিতীয়, বিশ্বস্ত প্রচারক ভাববাদীর কাছ থেকে শেখেন যেন তারা ক্রমাগত ভাবে ঈশ্বরের বাক্যকেই প্রচার করে।

ঈশ্বর ইজেকিয়েলকে বলেন,

“তারা ছিল অবাধ্য সন্তান এবং কঠিনচিত্ত। আমি তাহাদের নিকটে তোমাকে প্রেরণ করিতেছি; তুমি তাহাদিগকে আমার কথা বলিও, বলিও প্রভু সদাপ্রভু এই কথা বলেন। আর তাহারা, শুণুক, বা তাহার না শুণুক...” (ইজেকিয়েলঃ৪-৫এ).

ঈশ্বর বাইবেল থেকে অতিসুন্দর পন্থায় আমার সংগে কথা বলেন। ইজেকিয়েলের সময় তিনি তার সঙ্গে সরাসরি ভাবে কথা বলেছিলেন, তাৎক্ষাণিক প্রকাশের দ্বারা। ঈশ্বর এখন আমাদের সঙ্গে কথা বলেন তাঁর লিখিত বাক্যের দ্বারা, সেই বাইবেল- যদিও আমি দুটি ভিন্ন প্রকার মুহুর্তের কথা চিন্তা করতে পারি যেখানে ঈশ্বর অত্যন্ত নির্দিষ্টভাবেই আমার সঙ্গে স্বপ্নের মধ্য দিয়ে কথা বলেছিলেন। আমি সবেমাত্র এক যুবক মুসলমান ভাইয়ের সাক্ষ্য পড়েছি যিনি স্বপ্নের মধ্যে দিয়েই খ্রীষ্টান হয়েছেন (Christianity Today, January/February 2014, pp. 95, 96)। ঈশ্বর প্রায় সময়ে তা মুসলমান দেশে তা করে থাকেন,এবং তা তিনি তৃতীয় বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলতেও তা করে থাকেন। কিন্তু প্রায় সর্বদাই তিনি আমাদের সঙ্গে কথা বলেন লিখিত বাক্য দ্বারা-সেই বাইবেল।

ভাববাদীদের কাছ থেকে, আমরা এই কথা বলতে শিখেছি,“সদা প্রভু এই কথা বলেন।” আমরা তা বাইবেলের যে কর্তৃত্ত্ব সেই ভাবেই তা বলি। “ঈশ্বর নিশ্বসিত প্রত্যেক শাস্ত্রলিপি ঈশ্বরের অনুপ্রেরণাতেই প্রদান করা হয়েছে”(২য় টিমোথী ৩:১৬)। ঈশ্বর তাঁর সেই সত্যতার বিষয়টা আমাকে সেই দিনেই দেখিয়েছিলেন যে দিনে আমি পরিত্রাণ লাভ করেছিলাম, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ১৯৬১ সালে। আমি সততার সঙ্গেই বলতে সক্ষম সেই দিন থেকে আজ পর্যন্ত ঈশ্বর যে হিব্রু ও গ্রীক শব্দে আমাকে দিয়েছেন তার প্রতি আমি কোন সন্দেহ প্রকাশ করিনি! আমি যখন প্রচার করার জন্য দাঁড়াই তখন আমি দৃড়তার সঙ্গে, প্রানবন্ত স্বরেই বলতে সক্ষম হই কেননা আমি আমার নিজের শব্দ বলছি না। আমি প্রচার করছি ঈশ্বরের সেই একমাত্র বাক্য-“সদাপ্রভু ঈশ্বর এই কথা বলেন” (ইজেকিয়েল ২:৪)।

আমি যখন আপনাকে বলছি যে আপনার পাপই আপনাকে নরকে পাঠাবে তখন আমি কেবল কিছু মতবাদ আপনার কাছে বলছি না। ঈশ্বরের বাক্যে যা বলেন সেই কথাই আমি আপনাকে বলছি। সম্পূর্ণ কর্তৃত্ত্ব সহকারে,কোন প্রকার সন্দেহ ছাড়াই,আমি আপনাকে বলতে পারি, “পরে ইহারা অনন্ত দন্ডে প্রবেশ করিবে” (ম্যাথুজ ২৫:৪৬)। আমি কেবল ফুলার সেমিনারীর, রব বেল, জোয়েল অষ্টিন, বা রোমের পোপের বলার দ্বারা নিজের গতিরোধ করতে পারি না। আমার কাছে আমার হাতের মধ্যে রয়েছে ঈশ্বরের বাক্য। আর ঠিক সেই ভাববাদী ইজেকিয়েলের মতোই, ঈশ্বর আমাকেও আহবান করেছেন যেন আমিও ইহা আপনার কাছে ঘোষণা করি-সেই বাক্যের বিষয়! “সদাপ্রভু এই কথা বলেন”-“পরে ইহারা অনন্ত দন্ডে প্রবেশ করিবে।”

আপনি বলবেন, “আমি তা বিশ্বাস করি না!” ইহা আমাকে সামান্য পরিমাণেও পরিবর্তন করে না! ঠিক সেই ভাববাদীর মতোই, আমাকে আহবান করা হয়েছে সেই বিষয়ে প্রচার করার জন্য, “আর তাহারা শুণুক, বা না শুণুক” (ইজেকিয়েল ২:৫)। আধুনিক যে ইংরাজী তা বলে- “তারা শুণুক বা না শুণুক।” আপনি কি শুণতে চান তা করার জন্য আমি সংবাদ প্রস্তুত করতে বসি না! আমি কখনও তা করি না-না আমি কখনও করবো! আমি ঈশ্বরকে জিজ্ঞাসা করি তাদের কি শোণবার প্রয়োজন রয়েছে। এরপরে আমি বাইবেলের সঠিক অনুচ্ছেদ খুঁজে বার করি, আর ইহাকেই আপনার কাছে প্রচার করি। তা আপনি গ্রহণ বা বর্জন করতে পারেন! তারা শুণুক বা না শুণুক! “তারা শুণবে, বা গ্রহণ করবে না।” আমেন! আপনি পাপী। আপনি হারিয়ে গিয়েছেন, পাপে বন্ধন যুক্ত, পাপের দাস হয়েছেন। আপনি মুক্ত হতে পারেন না! আপনি অনন্তকালীন অগ্নিতে অনিবার্য ভাবে গিয়ে পড়বেন! আমি আপনাকে বলবো, আপনি শুণুন বা ইহাকে প্রত্যাখান করুন, আপনি ইহা পছন্দ করুন বা না, আপনি ইহা বিশ্বাস করুন বা না, আপনি ইহার উপরে কার্য্যশীল হোন বা না, আপনি আমার প্রশংসা করুন বা আমাকে অভিশাপ দিন। কেন ? সুতরাং “তারা যেন জানতে পারে যে তাদের মধ্যে একজন ভাববাদী রয়েছে”-এই কারণে! ঈশ্বর আমাকে পাঠিয়েছেন সেই বিষয় গুলো বলার জন্য যে এর জন্য আপনারাও কোন রেহাই নেই। আমার হাত পরিষ্কার রয়েছে। ঈশ্বর যা বলেছেন তা আমি আপনাদের বলেছি। ইহাকে গ্রহণ করুন বা তা প্রত্যাখান করুন। কিন্তু নরকের মধ্যে আপনি কোন বিতর্ক ও কোন অভিযোগ জানাতে পারবেন না। আপনি জানতে পারবেন যে আপনাদের মধ্যে একজন ভাববাদী ছিলেন-একজন ব্যাক্তি যিনি আপনাদের কাছে ঈশ্বরের বাক্য থেকে সত্য কথাটা বলেছিলেন।

এই ভাবে প্রচার করার জন্য আপনাকে সুন্দর ও সামঞ্জস্য পুর্ণ হতে হবে। কেউ যেন এর মধ্যে কোন ভুল খুঁজে না পায়। কেউই সমালোচিত বা উপহাস বিদ্রুপ পছন্দ করে না। আমাকে অতি অবশ্যই স্বাধীন ভাবে স্বীকার করতে হবে বিচ্ছিন্নবাদী নাগরিক হয়ে আমি প্রায় সময়েই নিজেকে বিধ্বস্ত মনে করেছি। কোন কোন সময়ে আমি উপলব্ধি করেছি যে আমি যেন হামাগুড়ি দিয়ে ঠিক এলিজার মতো নিজেকে লুকিয়ে রাখছি কোন গুহার মধ্যে। কিন্তু “আমি সেই শান্তরবে নিশ্চল” হয়ে এলিজাকে ডাকবো,আর বলবো, “এলিজা তুমি এখানে, কি করছো?”(১ম কিংস ১৯:১২,১৩)। এর পরে আমি নিজেকে লুকানো অবস্থার মধ্যে থেকে বের করে আনলাম, আর আবার প্রচার করতে আরম্ভ করলাম। আর সেই সময়ে ঈশ্বর মনে হচ্ছিল যেন এই কথাই আমাকে বলেছিলেন, ঠিক যেমন ভাবে তিনি ইজেকিয়েলের প্রতি করে ছিলেন,

“দেখ, আমি তাহাদের মুখের প্রতিকুলে তোমার মুখ, তাহাদের কপালের প্রতিকুলে তোমার কপাল দৃঢ় করিলাম। যে হীরক চকমকি পাথর হইতে দৃঢ় তাহার ন্যায় আমি তোমার কপাল দৃঢ় করিলামঃ যদ্যপি তাহারা বিদ্রোহীকূল, তথাপি তাহাদিগকে ভয় করিও না, ও তাহাদের মুখ দেখিয়া উদবিগ্ন হইও না” (ইজেকিয়েল ৩:৮,৯).

প্রতিটি প্রকৃত প্রচারককেই বেশ কিছু সুনিশ্চিত কঠোরতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। আর তিনি যদি তা না করেন,এবং নিজেকে লুকিয়ে রাখেন, তবে তিনি ভ্রান্ত ভাববাদী হয়ে ওঠেন।

৩. তৃতীয়, বিশ্বস্ত প্রচারকেরা ভাববাদীর কাছ থেকে শেখেন যে , নিরুৎসাহতার মধ্যেও,বেশ কিছু আত্মা উদ্ধার লাভ করবে।

যে ভাবে দরকার আমরা যদি সেই ভাবে প্রচার করি তবে এই মন্দ দুর্যোগপূর্ণ সময়ে বহু প্রকার নিরুৎসাহতার সম্মুখীন হবো। ঈশ্বর ঈজিকিয়েলকে বলেন,

“এবং তুমি, হে মনুষ্য সন্তান, তাহাদের হইতে ভীত হইও না, যদিও বিষ ও কাঁটা তাদের কাছে আছে তুমি, এবং তুমি বৃশ্চিকের মধ্যে বাস করিতেছঃ তথাপি তাহাদের বাক্যে ভয় করিও না, না তাহাদের মুখ দেখিয়া উদ্বিগ্ন হইও, যদিও তাহারা বিদ্রোহীকুল। তুমি তাহাদের কাছে আমার বাক্য সকল বলিও, তাহারা শুনুক, বা না শুনুকঃ কারণ তাহার অত্যন্ত বিদ্রোহীকুল” (ইজেকিয়েল ২:৬:৬,৭)

যদিও তারা বিষ ও কাঁটা ও বৃশ্চিকের মধ্যে বসবাস করে, পবিত্র এই কার্যভার থেকে কোন কিছুই প্রকৃত প্রচারককে দূরে সরিয়ে নিয়ে যেতে পারবে না। হ্যাঁ, ঈশ্বরের বাক্যের ঘোষণা বাস্তব পক্ষে এক পবিত্র কাজ। আর সেখানে এমন কিছু রয়েছে যাদের হৃদয় ঈশ্বর খোলেন সেই বিষয়ে শোণার জন্য তিনি যা প্রচার করেন আর তাহা উদ্ধার লাভ করে (প্রেরিত ১৬:১৪,১৫)। ঈশ্বর ঈজেকিয়েলকে বলেছিলেন তাদের মধ্যে কেউ কেউ যারা তাঁর কথা শোনে তারা “নিশ্চিত ভাবেই বাঁচবে, কারণ তাদের সচেতন করে দেওয়া হয়েছে” (ইজেকিয়েল ৩:২১)।

১৯৬০ এর প্রারম্ভে লস এঞ্জেলেসের ডাউন টাউনের রাস্তাতে আমার হৃদয় দিয়েই প্রচার করেছিলেন। লোকেরা আমার প্রতি চিৎকার করেছিল, আমার প্রতি বেশ কিছু জিনিস ছুঁড়েছিল, আর আমাকে দিশাহারা ব্যাক্তি বলে ডেকেছিল। কিন্তু একজন প্রাচীন ব্যাক্তি যিনি কালো পোশাকে ও টাইতে সজ্জিত ছিলেন তিনি বেশ কিছু দিন আমার প্রচার শুণেছিলেন, আর আমাকে তার সুন্দর অট্টালিকার এ্যাপার্টমেন্টে নৈশ খাবার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। তার স্ত্রীও সেখানে ছিলেন। তিনি ছিলেন আমাদেরই একটা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল। সুন্দর এই দম্পতি আমাকে অতি সুন্দর ভোজ দিয়েছিলেন,পক্ষান্তরে সেই বৃদ্ধ ব্যাক্তি সেই রাস্তাতে আমার কাছে যা শুণেছিলেন তা বলতে থাকলেন তার স্ত্রী’র কাছে। তারা তাদের ফোটোর এ্যলবাম বার করে এনে তাদের ছবির সঙ্গে তার বাবার ছবিটিও দেখালেন, যিনি ছিলেন সেই-সময়ের সব থেকে নাম করা এক প্রেজবাইটেরিয়ান পালক। সেই সন্ধ্যার শেষ মুহুর্তে সেই বৃদ্ধ লোকটি আমাকে বললেন যে তিনি এবং তার স্ত্রী উভয়েই সেই রাস্তার ধারে আমার প্রচারের বিষয় নিয়ে কথা বলছিলেন। তারা আমাকে বললেন যে তাদের বাড়িতে তারা আমাকে নিমন্ত্রণ জানিয়েছে এইজন্য কেননা তারা উভয়েই উদ্ধার লাভ করতে চায়-আর তারা চাই ছিলেন আমি যেন তাদের উভয়কে খ্রীষ্টের প্রতি পরিচালিত করি! সেই সময়ে আমার বয়স কেবলমাত্র ২২ বৎসর। আমি এইভাবে একজন বয়স্ক ব্যাক্তিকে কোন সময়েই যীশুর প্রতি পরিচালিত করিনি তাঁতে নির্ভর করার জন্য। আমরা সকলে হাঁটু গেড়ে বসার পরে, আমি তাদের খ্রীষ্টের প্রতি পরিচালিত করলাম। তারা যখন উঠে দাঁড়ালেন তখন তাদের গাল বেয়ে কান্নার জল ঝরে পড়ছিল। তারা ছিলেন ওয়াইলসায়ার বিলভডের., প্রেজবাইটেরিয়ান চার্চের সদস্য ও সদস্যা, কিন্তু এতদিন পর্যন্ত তারা পরিত্রাণ লাভ করেন নি। সেই প্রচারের এক অভিজ্ঞতা হারিয়ে যাওয়া জগতের কাছে কোন ভাবেই যেন বিরুপকর ও অমর্যাদার পরিচয় বহন করে না-কেননা কোন একজন যে পরিত্রাতার কাছে আসছেন সেই উল্লাসের জন্যই! ঈশ্বর আমাকে সেই দুটি আত্মাকে দিয়েছিলেন, যাদের নাম হল মিঃ এবং মিসেস এ্যালেন ব্ল্যাক। ইহা যেন মনে হচ্ছিল লস এঞ্জেলেসের রাস্তায় আমি যে সমস্ত প্রচার কার্‍্য করেছি তা যেন বিস্ময়কর মুহুর্তকে উপস্থিত করছিল যা কিনা একজন যুবক ব্যাক্তি তার জীবনে এই ভাবেও তা করতে পারে!

তারপরে আমি স্যানফ্রান্সসিসকোর উত্তরে উদারমনা ব্যাপটিস্ট সেমিনারীতে, যাই। যে তিন বৎসর আমি সেখানে ব্যায় করি তা সত্যই ভয়ানক ছিল। আক্ষরিক ভাবেই সেখানে থাকাটাকে আমি ঘৃণা করতে থাকি, এবং শুণতে থাকি যে তারা বাইবেলের পাতা একের পর এক ছিঁড়তে থাকে। আমি ঈশ্বরের বাক্যের জন্য উঠে দাঁড়াই, আর তারা তখন আমার প্রতি এমন ভাবে আচরণ করতে থাকে যে আমি নাকি মানসিক ভাবে বিকারগ্রস্ত। এটা শেষের বছরে এতটাই খারাপ হয়ে য়ায় যে আমি স্নাতক হতে পারি নি। কিন্তু আমি স্নাতক হই। পরবর্তী সময়ে, সেই মন্দ সময়গুলোর দিকে তাকিয়েই,আমি অনুভব করতে পারি যে দুজন ব্যাক্তি আমার সাক্ষ্যের দ্বারা উদ্ধার লাভ করেছে। তাদের একজন ছিলেন কোরিয়ান ব্যাক্তি, এবং অন্য জন ছিকেন একেবারে গভীর দক্ষিণের, যিনি ব্যাপটিস্ট হয়ে থাকলেও জীবনে কোন দিন উদ্ধার লাভ করেন নি। এদের উভয়েই আমার কাছে এসেছিলেন যাদের গাল বেয়ে চোখের জল ঝরছিল,তারা আমাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছিলেন সুসমাচারের প্রতি সৎকারের জন্য এবং তাদের কাছে উদ্ধারের প্রয়োজনীয়তার কথা বলেছিলেম বলে। তাদের নাম ছিল গীল ও মুন। তাদের আমি কোন সময়েই ভুলে যাব না! তাদের পরিত্রাণ উদারমানা সেমিনারীতে সকলের কাছেই যেন মূল্যবান ও হৃদয় বিদারক বলে মনে হচ্ছিল!

সেই সময় আমি যখন ছিলাম,মেরিন কাউন্টিতে,তখন শুক্রবারের প্রতি রাত্রেই স্যানফ্রান্সসিসকোর গোল্ডেন গেট ব্রিজ দিয়ে বেশ কিছু গাড়ি করে যুবক ব্যাক্তিদের নিয়ে যেতাম। আমি সেখানে রাস্তায় প্রচার করতাম ও পক্ষান্তরে তারা লোকেদের হাতে সুসমাচার পুস্তিকা বিতরণ করে তাদের সঙ্গে কথা বলতেন। একদিন রাত্রে একজন বালককে আমার কাছে নিয়ে আসে। সে আমাকে বলেছিল প্রতিদিনই সে ড্রাগ,ও হেরোইন,কয়েক শত ডলার দিয়ে নিত। তার ড্রাগের অভ্যাসকে চালিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে খারাপ কাজ ও চুরি করতে হতো। সে আমাকে বলেছিল, “প্রচারক,অনুগ্রহ করে আমাকে সাহায্য করুন। আমি সোজা পথে চলতে চাই।” তাকে আমি আমার গাড়িতে করে আমার বাড়ি নিয়ে যাই। সম্ভবত এখন তা করতে হলে নিশ্চিত ভাবেই ভয় পাবো, কিন্তু তাকে আমি আমার বাড়ির ভিতরে রান্নঘরে রাখি। সে তো চিৎকার করতে থাকে আর বহু কিছু ছুঁড়ে সমস্ত মেঝের ওপর ফেলতে থাকে যখন আস্তে আস্তে তার ড্রাগের নেশা ছাড়তে শুরু করে। পরিশেষে সে শান্ত হয়ে উঠেছিল। আমাদের মন্ডলীতেও সে এসেছিল। স্যানফ্রান্সসিসকো ছাড়ার পর থেকেই তার সংগে আমার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে য়ায়। এই ভাবে পঁচিশ বৎসর যাবার পরে একদিন এক রাত্রিবেলা এখানেই আমার অফিসে ফোন বেজে ওঠে। আর সেটা ছিল সে! তাকে আমি জিজ্ঞাসা করি যে সে কোথায় ছিল। সে আমাকে বলে সে বিয়ে করে ফ্লোরিডাতে বসবাস করছে। তার দুটো সন্তান আছে আর সে মন্ডলীতে সানডে স্কুলে শিক্ষা দেয়। সেই দিন রাত্রে যেন মেঘের মধ্যে দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে বাড়ি ফিরে আসি! আহা, কি সাংঘাতিক আনন্দই না উপলব্ধি হয় যখন কোন একজন প্রচারিক উপলব্ধি কুরতে পারেন যে কোন একজন জীবন পেয়েছে “কেননা সে সতর্কতা লাভ করেছে” ঈশ্বরের লোকেদের দ্বারা (ইজেকিয়েল ৩:২১)।

আপনার কি খবর ? প্রচারক হিসেবে আমি আপনাকে আমার কাহিনী শুনিয়েছি। ইজেকিয়েলের এই দুটো অধ্যায় থেকে আমার কাছে অত্যন্ত অর্থবহ গত প্রায় পঞ্চাশ বৎসর সময় ধরে, যখন থেকে এই বিষয়ে আমি প্রথমে ডাঃ জে.ভার্নান ম্যাকগীকে রেডিওতে এর উপরে শিক্ষা দিতে শুণি। এই পদগুলি সুসমাচার প্রচার অভিযানে এক দশক পর্যন্ত এই পদটা সব সময়ই আমার মনের অন্তরে রয়ে গেছে-যেখানে পাপীদের বলছি যে তাদের পাপের জন্য ক্রুশের উপরে খ্রীষ্ট মুল্য প্রদান করেছেন; তাদের বলি যে কি ভাবে তিনি মৃত্যু থেকে জীবিত হয়ে উঠেছেন, আর এখন স্বর্গে জীবিত রয়েছেন; তাদের তিনি আহবান জানাচ্ছেন যে পাপ থেকে অনুতপ্ত হয়ে মন পরিবর্তন করে এবং সেই পরিত্রাতার উপরে নির্ভর করে। আজকে রাত্রে আপনি কি যীশুর উপরে নির্ভর করবেন? যদি আপনি ইহা করেন তবে ইহা আমাকে খুব আনন্দ দেবে-এবং তা আপনাকেও অনন্দিত করে তুলবে- সব সময়ের জন্য ও সেই সঙ্গে চিরকালের জন্য!

আপনি যদি যীশুর দ্বারা উদ্ধার লাভ করার বিষয়ে আমাদের সঙ্গে কথা বলতে চান, তবে এই মুহুর্তে আপনার আসন ত্যাগ করে এই অট্টালিকার পিছনে যে অডিটরিয়াম আছে সেখানে যান। মিঃ জন স্যামুয়েল কাগান আপনাকে আরো একটি কক্ষে নিয়ে যাবেন যেখানে আপনি প্রার্থনা ও কথা বলতে পারেন। ডাঃ চ্যান, অনুগ্রহ করে প্রার্থনা করুন যেন আজকের রাত্রে কোণ একজন যীশুর কাছে আসতে পারে। আমেন।

(সংবাদের পরিসমাপ্তি)
ডাঃ হাইমার্সের সংবাদ আপনি প্রতি সপ্তাহে ইন্টারনেটের মাধ্যমে
www.realconversion.com এই সাইটে পড়তে পারেন। ক্লিক করুন “সংবাদের হস্তলিপি”

আপনি ডাঃ হাইমার্সকে মেইল পাঠাতে পারেন rlhymersjr@sbcglobal.net - আপনি
তাকে পত্র লিখতে পারেন P.O. Box 15308, Los Angeles, C A 90015.এই ঠিকানায়
। আপনি তাকে টেলিফোন করতে পারেন (818) 352-0452.

এই সুসমাচারের ম্যানুস্ক্রিপ্ট এর ওপর ডাঃ হাইমসের কোন কপিরাইট নেই। আপনারা
ইহা ব্যাবহার করতে পারেন ডাঃ হাইমসের অনুমতি ছাড়াই। অবশ্য, ভিডিও মেসেজ
সবই কপিরাইটের সহিত আছে এবং কেবলমাত্র তার অনুমতি নিয়েই ব্যাবহার করা যাবে।

সংবাদের আগে শাস্ত্রের যে অংশ পাঠ করা হয়েছে, তা করেছেন মিঃ আবেল প্রধম্মে ইজেকিয়েল ২:৩-৭.
সংবাদের আগে একক সংগীত গেয়েছেন মিঃ বেঞ্জামিন কিন গেইড গ্রীফিথঃ
“Oh Heavy Hearted” (by Dr. John R. Rice, 1895-1980).


খসড়া চিত্র

বিদ্রোহী লোকেদের কাছে প্রচার

PREACHING TO A REBELLIOUS PEOPLE

লেখকঃ ডাঃ আর.এল.হাইমার্স,জুনি.
by Dr. R. L. Hymers, Jr.

“তিনি আমাকে বলিলেন, হে মনুষ্য সন্তান, আমি তাহাকে ইজ্রায়েলের সন্তানদের কাছে, যাহারা আমার বিরুদ্ধাচারণ করিয়াছে সেই বিদ্রোহী জাতিগণের কাছে তাহাকে প্রেরণ করিতেছিঃ তাহারা ও তাহাদের পিতৃপুরুষেরা আমার বিরুদ্ধে অধর্মাচারণ করিয়াছে, অদ্যকার দিন পর্যন্ত করিতেছে। সেই সন্তানগণ দৃঢ়মুখ ও কঠিনচিত্ত। আমি তাহাদের নিকট তোমাকে প্রেরণ করিতেছি; তুমি তাহাদিগকে বলিও, সদাপ্রভু সদা এই কথা বলেন। আর তাহারা, তাহারা শুনুক বা না শুনুক, বা তাহারা ইহা বহন করুক বা না করুক,(কারন তাহারা বিদ্রোহী কুল,) তথাপি ইহা জানিতে পাইবে তাহাদের মধ্যে একজন ভাববাদী উপস্থিত হইল” (ইজিকিয়েল ২:৩-৫).

(২য় পীটার ২:৫;গীতাসংহিতা ২:২,৩; ম্যাথুজ ৩:৭)

১. প্রথম, বিশ্বস্ত প্রচারকেরা ভাববাদীর কাছে শেখেন যে বিদ্রোহী লোকেদের কাছে
প্রচার করার জন্য তাদের পাঠানো হয়েছে, ইজেকিয়েল ২:৩; ঈশা ৫৩:৬;
জেরেমিয়া ৫:২৩; রোমানস ৩:১২; ৫:১৯; এফেসিয়ানস ২:৩; রোমানস৩:৯-১৮.

২. দ্বিতীয়, বিশ্বস্ত প্রচারক ভাববাদীর কাছ থেকে শেখেন যেন তারা ক্রমাগত ভাবে
ঈশ্বরের বাক্যকেই প্রচার করে; ইজেকিয়েল ২:৪-৫এ; ২য় টিমোথি ৩:১৬;
ম্যাথুজ ২৫:৪৬; ১ম রাজা ১৯:১২,১৩; ইজেকিয়েল ৩:৮-৯.

৩. তৃতীয়, বিশ্বস্ত প্রচারকেরা ভাববাদীর কাছ থেকে শেখেন যে, নিরুৎসাহতার মধ্যেও,
বেশ কিছু আত্মা উদ্ধার লাভ করবে , ইজেকিয়েল ২:৬-৭; প্রেরিত ১৬:১৪,১৫; ইজেকিয়েল ৩:২১.